About Us
Anuj ghosh
প্রকাশ ০৬/০৪/২০২১ ০৫:৩৮পি এম

গোপালগঞ্জে জমি দখলের প্রতিবাদে বীরঙ্গনার সংবাদ সম্মেলন

গোপালগঞ্জে জমি দখলের প্রতিবাদে বীরঙ্গনার সংবাদ সম্মেলন Ad Banner

গোপালগঞ্জ জমি থেকে বেদখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সদরের পুরাতন মানিকদাহ গ্রামের আহম্মদ মিয়ার মেয়ে  বীরঙ্গনা হেলেনা বেগম।  মঙ্গলবার বেলা ১১টায় জেলা প্রেস ক্লাবে তিনি এ সংবাদ সম্মেলন করেন।   

সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, সদর উপজেলার মানিকদাহ মৌজায় পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত ১ একর ১৭ শতাংশ জমির মধ্যে ৭ শতাংশ বাদে অবশিষ্ট জমি স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল দখল করে নিয়েছে। গত ২৮ মার্চ সদর উপজেলার চাপাইল গ্রামের সাহিনা বেগমের ভাই সরাফাত শেখ, ওবায়দুল শেখ ও ওয়াসেল শেখ এবং তাদের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাকে জোর করে  বাড়ী থেকে বের করে দেয়।  ঘরের মধ্য থেকে আমার সমস্ত মালামাল বাইরে ফেলে দেয়। আমি ও আমার ছেলে মেয়েরা তাদের বাঁধা দিলে ধারালো অস্ত্রশÍ্র নিয়ে তারা আমার উপর হামলা করে।   

এসময় অবৈধ দখলদাররা আমার জমির উপর ঘর নির্মান করে। ওইদিন রাতে আমি গোপালগঞ্জ থানায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দাখিল করি। এরপর পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে। তারপরও দখলদাররা তাদের কাজ চালিয়ে যায়। পরে  গত ৩ এপ্রিল বাধ্য হয়ে আমি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আবেদন করলে আদালত সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করে।     বীরঙ্গনা হেলেনা বেগম বলেন, আমি একজন বিধবা অসহায় নারী। জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের পাশে একটি ছোট চায়ের দোকান করে ছেলে মেয়েদের নিয়ে কোন রকম জীবন জীবিকা নির্বাহ করছি। দখলদাররা এলাকায় প্রভাবশালী।পুলিশের পক্ষ থেকে আমি কোন সহযোগিতা পাচ্ছিনা।প্রতিপক্ষ উল্টো আমাকে নানান রকমের ভয়ভীতি ও পুলিশ দিয়ে হয়রানি করার চেষ্টা করছে।     

একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আমি প্রশাসনের কাছে এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবী করছি। পাশাপাশি আমার বেদখলীয় সম্পত্তি ফিরে পেতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।  অভিযুক্ত দখলদার সাহিনা বেগমের ভাই সরাফত শেখ বলেন, ১০-১২ বছর আগে ক্রয়সূত্রে আমার বোন সাহিনা বেগম ওই সম্পত্তির মালিক। জমি ক্রয় করার পর সেখানে তিনি প্রচীর নির্মান করেন। এরপর সেখানে ঘর উঠিয়ে ভাড়া দিয়ে আসছিলেন। সম্প্রতী আমার বোনের জমিতে নির্মান কাজ করতে গেলে হঠাৎ করে কোন কারন ছাড়াই হেলেনা বেগম সেখানে ১৪৪ জারি করেন। এরপর থেকে নির্মান কাজ বন্ধ রয়েছে।        


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ