About Us
Rakib Monasib
প্রকাশ ০৪/০৪/২০২১ ০৯:২৪এ এম

শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে বড় ধাক্কা খেয়েছে ইউভেন্তুস

শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে বড় ধাক্কা খেয়েছে ইউভেন্তুস Ad Banner

বিরতির আগে ও পরে দুই গোল হজম করে হারের শঙ্কায় পড়েছিল ইউভেন্তুস। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর গোলে পরাজয় এড়ালেও লিগ শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে বড় ধাক্কা খেয়েছে তারা। উজ্জ্বীবিত পারফরম্যান্সে টানা ৯ বারের চ্যাম্পিয়নদের রুখে দিয়েছে তোরিনো।   

তোরিনোর মাঠে শনিবার স্থানীয় সময় বিকেলে সেরি আর ম্যাচটি ২-২ ড্র হয়েছে। ফেদেরিকো চিয়েসার গোলে ইউভেন্তুস এগিয়ে যাওয়ার পর আন্তোনিও সানাব্রিয়ার জোড়া গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। শেষ দিকে সমতা টানেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।  এই ড্রয়ে ইউভেন্তুসের টানা দশমবারের মতো লিগ শিরোপা জয়ের আশা আরও ফিকে হয়ে গেল। শীর্ষে থাকা ইন্টার মিলানের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে ৯ পয়েন্টে পিছিয়ে আছে তারা।  গত ডিসেম্বরে নগর প্রতিপক্ষ দলটির বিপক্ষে ঘরের মাঠে শুরুতে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করে জিতেছিল ইউভেন্তুস।   

এবার অবশ্য শুরুতে নিজেরাই গোল করে তারা। আলভারো মোরাতার পাস ধরে ডি-বক্সে দুজনের বাধা এড়িয়ে গোলরক্ষকের পায়ের ফাঁক দিয়ে বল জালে পাঠান চিয়েসা।    ২৭তম মিনিটে সমতা টানে পয়েন্ট তালিকার শেষের দিকের দলটি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে রোলান্দো মান্দাগোরার নিচু শট গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি ঝাঁপিয়ে ঠেকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি, বল তার হাতে লেগে উপরে উঠে যায়। গোলমুখে ছুটে গিয়ে হেডে বাকি কাজ সারেন প্যারাগুয়ের ফরোয়ার্ড সানাব্রিয়া। 

৪৩তম মিনিটে ডান দিক থেকে হুয়ান কুয়াদরাদোর দারুণ ক্রসে মোরাতার হেড ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। দুই মিনিট পর তাদের আরেকটি প্রচেষ্টাও পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে যায়। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর ২০ সেকেন্ডের মাথায় এগিয়ে যায় তোরিনো। দারুণ ক্ষিপ্রতায় ডি-বক্সে ঢুকে প্রথম পোস্টে শট নেন সানাব্রিয়া। বল স্ট্যাসনির হাত ছুঁয়ে জালে জড়ায়। খানিক পর দুই মিনিটে দারুণ দুটি সুযোগ পায় ইউভেন্তুস। কিন্তু চিয়েসার জোরালো শট একজনের পিঠে লেগে দিক পাল্টে একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ার পর রোনালদোর হেড কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান গোলরক্ষক।   

৭৯তম মিনিটে সমতায় ফেরে ইউভেসন্তুস। বাঁ দিক থেকে আসা ক্রসে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি জর্জো কিয়েল্লিনি, এক ড্রপে বল চলে যায় গোলমুখে, সেখানে সহজেই হেডে বাকিটা সারেন রোনালদো। তবে শুরুতে অফসাইডের বাঁশি বাজে; কিন্তু পরে ভিএআরের সাহায্যে গোল দেন রেফারি।    আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদোর গোল হলো ২৪টি।    আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে শেষ দিকে লড়াই দারুণ জমে ওঠে। জয় নিশ্চিত করার দারুণ দুটি সুযোগও পেয়েছিল তোরিনো; কিন্তু কেনোমতে বেঁচে যায় ইউভেন্তুস।    নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে সানাব্রিয়ার জোরালো হেডে বল লাফিয়ে ওঠা স্ট্যাসনির আঙুল ছুঁয়ে ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। আর যোগ করা সময়ে দানিয়েলে বাসেল্লির ফ্রি কিক ঝাঁপিয়ে ফিরিয়ে ১ পয়েন্ট নিশ্চিত করেন পোলিশ গোলরক্ষক।   

লিগে টানা দুই ম্যাচ জয়শূন্য রইলো ইউভেন্তুস। আন্তর্জাতিক বিরতিতে যাওয়ার আগে নবাগত বেনেভেন্তোর বিপক্ষে ঘরের মাঠে ১-০ গোলে হেরেছিল আন্দ্রেয়া পিরলোর দল।  ২৮ ম্যাচে ১৬ জয় ও আট ড্রয়ে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে নেমে গেছে ইউভেন্তুস। সমান পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে ক্রোতোনে ৪-৩ গোলে হারানো নাপোলি।    উদিনেজেকে ৩-২ গোলে হারিয়ে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনে উঠেছে ২৯ ম্যাচ খেলা আতালান্তা। ঘরের মাঠে হোঁচট খেয়েছে এসি মিলান। সাম্পদোরিয়ার বিপক্ষে ১-১ ড্র করা মিলান ২৯ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। ২৭ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ইন্টার মিলান।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ