About Us
Md.Shahidul Islam - (Bandarban)
প্রকাশ ০৩/০৪/২০২১ ০৮:২৪পি এম

ক্ষমতার জোরে আবু তাহেরের জায়গা অবৈধভাবে দখলের পায়তারা

ক্ষমতার জোরে আবু তাহেরের জায়গা অবৈধভাবে দখলের পায়তারা Ad Banner

সাতকানিয়া উপজেলার বাজালিয়া মৌজার আর.এস ১৬৬৫ এবং ২৫৮নং খতিয়ানের এর.এস ২৫১৭ (৫১২৫-২৫১৭) দাগাদির ১৮শতক সম্পত্তির ওয়ারিশসূত্রে প্রথম পক্ষ ১-আবু তাহের,২-আবু ইউসুফ,৩-আবু তৈয়ব,৪-আবু আয়ূব, সর্বপিতা মরহুম আহমদ কবির,সর্বসাং-বাজালিয়া,ডাকঘর-বাজালিয়া,৬নং ওয়ার্ড,উপজেলা সাতকানিয়া জেলা-চট্টগ্রাম।

উল্লেখিত সম্পত্তির সমান ভাবে মালিক হওয়া সত্ত্বেয় কথিত জেএমবি সক্রিয় সদস্য আবুল কাশেম ক্ষমতার অপব্যহার করে ভয়ভিথি প্রদর্শন করে আবু তাহের গং হইতে জোরপূর্বক জায়গা দখল ও দোকানঘর দখলের পায়তারা করার খবর পাওয়া গিয়াছে।

আবু তাহের ও তার সাথে আরো ৩ ভাই প্রতিবেদক কে অভিযোগে জানান, ক্ষমতা ও টাকার জোরে আমাদেরকে এক প্রকার জিম্মি ও বাদ্য করিয়া কথিত জেএমবির নেতা আবুল কাশেম, ভাই মো: শাহ জাহান, ভাই মো: শাহ আলম সহ ইউপি সদস্য এর যোগসাজোশে আমাদের বাড়ি ভিঠা নিয়ে পরিকল্পিত সমস্যা সৃষ্টি করে, আমাদের মধ্যে বাড়ি ভিঠার সীমানা ও চলাচলের পথ নিয়া সমস্য্যা দেখা দিলে আমরা উভয় পক্ষ তা সমাধানের জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য ছৈয়দ মিয়ার নিকট পরিমাপের মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করতে চাইয়ে ইউপি সদস্য উভয় পক্ষের আত্বীয় ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ নিয়ে সরজমিনে উপস্থিত থাকিয়া একজন সার্ভেয়ার দ্বারা জমি পরিমাপ করিয়া খুটিঁ দ্বারা সীমানা চিহ্নত করিয়া দেন।

২য় পক্ষ অর্থাৎ শুধুমাত্র কবির আহমদ এর পুত্র আবুল কাশে গং তাদের পরিবার চলাচল করার জন্য নিদির্ষ্ট ক্ষতিপূরণ অর্থাৎ চলাচলের জন্য জায়গার উপযুক্ত মূল্য পরিশোধ করে দেওয়ার প্রতুশ্রুতি/ ওয়াদা থাকলে ও আজ পর্যন্ত নানা তালবাহানা করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে কোন টাকা পয়সা ১ম প্রথম পক্ষ আবু তাহের গং কে পরিশোধ করে নাই।

বর্তমানে আমাদের জায়গা ও দোকন ঘরের লোভে বিভিন্ন ভাবে আমাকে হয়রানি করে জায়গা ও দোকান ঘর দখলের পায়তারা অব্যহত রেখেছে। আমি এই ব্যাপারে দুষ্কৃতকারীদের কার্যক্রমে বাধাঁ প্রদান কিংবা প্রতিবাদ করিলে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সহ রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষ বাধিঁবার পরিবেশ সৃস্টি হয়েছে, যার ফলে যে কোন সময় এলাকায় নৈরাজ্যকর পরিস্থতি সৃষ্টি হতে পারে, হতা-হতের ঘটনা সৃষ্টি হতে পারে।

এমতাবস্থায় তদন্তক্রমে বিবাদীদের অবৈধ কার্যকলাপ বন্ধে আইন ও বিচার বিভাগ, প্রশাসন বিভাগ, মানবাধিকার কমিশন, সুশিল সমাজের নাগরিকগণ, উচ্চ পদস্থ নেত্রীবৃন্দসহ সকলের নিকট ন্যায় বিচার পাওয়ার আকুল আবেদন জানাচ্ছি। এর ফলে মানুষ আইনের প্রতি আরো শ্রদ্ধশীল হবে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা পাবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ