About Us
Md. Razib Hossain - (Kushtia)
প্রকাশ ০৩/০৪/২০২১ ০৬:০৩পি এম

করোনার জন্য অনিশ্চিত ঈদের সিনেমা

করোনার জন্য অনিশ্চিত ঈদের সিনেমা Ad Banner

সিনেমা নেই, সিনেমা নেই করে কাটছে ঢাকাই সিনেমার সময়। এই অসময়ে বেশ কিছু ভালো মানের সিনেমার যাত্রা হয় ২০১৯ সালের দিকে। যার মধ্যে বেশিরভাগই সিনেমাই প্রস্তুত হয়ে আছে প্রদর্শিত হবে বলে। দিনও ঠিক করা ছিলো অনেক সিনেমার, মুক্তি পাবে ২০২০ সালের বিভিন্ন সময়ে।

সে আর হলো কই। মহামারিতে আক্রান্ত সারা পৃথিবী। বাংলাদেশও সংক্রমণে বিপর্যস্ত সময় পার করেছে গেল বছর। তাই বন্ধ ছিলো সিনেমা হল প্রায় সাত মাত। এরপর কাগজে কলমে হলগুলো চালু হলেও বিগ বাজেটের মানসম্পন্ন সিনেমার প্রযোজকরা সাহস করতে পারেননি তাদের সিনেমা মুক্তি দিতে।

কয়েকজন ঠিক করে রেখেছিলেন, আসছে রোজা ঈদে মুক্তি দেবেন সিনেমাগুলো। নতুন এই সিদ্ধান্তেও দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। সিনেমাগুলোর ভাগ্যের জন কুফা হয়ে আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে করোনাভাইরাস।

গেল কয়েক দিনে ঝুঁকিপূর্ণ হারে বেড়েছে করোনার সংক্রমণ। ৪০টিরও বেশি জেলাকে রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেইসঙ্গে আগামী ৫ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউনে যাচ্ছে সারা বাংলাদেশ। আজ কালের মধ্যেই হয়তো ঘোষণা আসবে হল বন্ধ রাখার।

অনেকেই ভাবছেন করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের এই ভয়ঙ্কর স্রোত সহজেই থামবে না। ভাসিয়ে নিয়ে যাবে অনেকদূর। এতে করে দেশ ও মানুষকে নিরাপদ রাখতে সময় বাড়তে পারে লকডাউনের। তাই আসছে রোজা ঈদে হল চালু থাকবে কি না সে নিয়েই সংশয় দেখা দিয়েছে।

এখন পর্যন্ত পাঁচটি সিনেমার নাম শোনা গেছে ঈদের জন্য। সেগুলো হলো শাকিব-বুবলী জুটির ‘বিদ্রোহী’, শাকিব-দর্শনার ‘অন্তরাত্মা’, আরিফিন শুভ-ঐশী জুটির ‘মিশন এক্সট্রিম’, সিয়াম-পূজা জুটির ‘শান’, নিরব-বুবলী জুটির ‘ক্যাসিনো’।

মুক্তির অনিশ্চয়তা নিয়ে ছবি পাঁচটির সংশ্লিষ্টরা প্রত্যেকেই রয়েছেন দুশ্চিন্তায়। কেউ এই মূহূর্তে এ প্রসঙ্গে মুখ খুলতে চাননি। মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন মুক্তি হওয়া এবং না হওয়া নিয়ে।

তবে তাদের প্রত্যাশা, খুব দ্রুতই কেটে যাবে করোনার আতঙ্ক। এক সপ্তাহের লকডাউনে সবাই মিলে করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধ করে আবারও স্বাভাবিক হয়ে উঠবে পৃথিবী, বাংলাদেশ।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ