About Us
Md. Razib Hossain - (Kushtia)
প্রকাশ ০৩/০৪/২০২১ ০৩:৩৬পি এম

বন্ধ হচ্ছে পাবজি লাইট

বন্ধ হচ্ছে পাবজি লাইট Ad Banner

বিশ্বব্যাপী বন্ধ হচ্ছে পাবজি লাইট। অবশ্য পাবজির মূল ও লাইট ভার্সন ভারতে নিষিদ্ধ হয়েছিল আগেই। এবার আগামী ২৯ এপ্রিল বিশ্বজুড়ে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে পাবজি লাইট ভার্সনটিও। এ বিষয়ে সম্প্রতি একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পাবজির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, 'কোভিড-১৯ মহামারির এই কঠিন সময়ে আমরা অগণিত পাবজি লাইট প্রেমীদের কাছ থেকে যে আবেগ ও সমর্থন পেয়েছি, তার জন্য কৃতজ্ঞ। তবে অনেক বিবেচনার পর এটি বন্ধ করে দেয়ার কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে এবং আমাদের সফর শেষ হওয়ার সময় চলে এসেছে। আমরা দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি পাবজি লাইটের সেবা এপ্রিলের ২৯ তারিখ শেষ হয়ে যাবে।'

আয়ের দিক থেকে ২০২০ সালের সমীক্ষায় বিশ্বে এক নম্বরে থেকেছে পাবজি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী শুধু ২০২০ সালেই প্রায় ২.৬ বিলিয়ন রেভিনিউ অর্জন করেছে পাবজি।

এমন দুর্ধর্ষ ফিচার, যুদ্ধের পটভূমি পাবজির আগে গেম জগতে প্রত্যক্ষ করেননি কেউই। আর তাই তো সারা বিশ্বে মুহূর্তে জনপ্রিয় হয়ে পড়ে পাবজি। যদিও খবরের শিরোনামে শুধুমাত্র পাবজির প্রতি নেশার জন্য বহুজনের প্রাণ হারানোর খবরও উঠে এসেছে বারবার।

যেমন ২০২০ সালে ভারতের অন্ধপ্রদেশে পাবজির নেশায় বুঁদ হয়ে দিনের পর দিন খাবার না খেয়ে মারা যায় বছর ১৬ এর এক নাবালক। পাবজি খেলতে খেলতেই ভারতের পুণেতে ব্রেন স্ট্রোকে মারা যান ২৫ বছরের এক যুবক। পাবজিতে জিততে না পেরে স্বয়ং এ রাজ্যেই অবসাদে মারা যায় এক ছাত্র।

পাবজি বা প্লেয়ার আননোনস্ ব্যাটেলগ্রাউন্ডস্ গেমটির মোবাইল ভার্সনে একসাথে অনেকজন মিলে অবতরণ হন এক যুদ্ধক্ষেত্রে। যতক্ষণ না পর্যন্ত একজন সিঙ্গেল সেনা বেঁচে থাকছেন যুদ্ধে ততক্ষণ খেলে যেতে হয়। ২০১৮ সালে অ্যাঙ্গরি বার্ড, টেম্পল রান, ক্যান্ডি ক্রাশের মতো গেমগুলোকে পেছনে ফেলে সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন গেমের তালিকায় শীর্ষে জায়গা করে নেয় পাবজি।

চীনকে বাদ দিয়ে গোটা বিশ্বে পাবজি গেমের মোট ডাউনলোড সংখ্যা ছাড়িয়েছে প্রায় ১ বিলিয়ন। ডাউনলোডের নিরিখে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাবজি।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ