oyasim uddin - (Kishoreganj)
প্রকাশ ০১/০৪/২০২১ ০৮:২৭পি এম

তাড়াইলে করোনা কার্যক্রমে ব্র্যাক প্রশংসিত

তাড়াইলে করোনা কার্যক্রমে ব্র্যাক প্রশংসিত Ad Banner

গত ১ ডিসেম্বরথেকে  থেকে ৩১ মার্চ টানা চার মাস পর্যন্ত তাড়াইল উপজেলায় বেসরকারি এনজিও সংস্থা ব্র্যাকএর অধিনে কোভিড১৯ নিয়ে ব্যাপক কার্যক্রম লক্ষ্য করা যায়। এরমধ্যে ঔষধ,মাস্ক,হ্যন্ড ওয়াশিং বিতরণ, করোনা সচেতনতা, করোনা প্রতিরোধ কল্পে করনীয় ও করোনা টিকা ফর্ম রেজিষ্ট্রেশন  সহ ভেকসিন নিশ্চিত করণ কার্যক্রম উল্লেখযোগ্য।   

জানা যায়, কোভিট১৯ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকল্পে উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে ২ জন করে ১৪ জন স্বাস্থ্য কর্মী নিয়োগ প্রদান করে। স্বাস্থ্য কর্মীদেরকে কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে গর্ভবতী মা ও ০-৫ বছরের শিশুদের পুষ্টি, ভিটামিন ও ক্যালসিয়াম ঘাটতি জনিত ঔষধ,মাস্ক,সাবান ও হ্যান্ড ওয়াশিং  প্রদান করে। করোনার প্রাথমিক লক্ষণ সর্দি,জ্বর, কাশি, গলাব্যাথা সনাক্ত করে তাদের পরামর্শ ও চিকিৎসা ভাতার ব্যবস্থা করে। ইমাম,শিক্ষক, চেয়ারম্যান মেম্বার ও এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও কমিউনিটি ক্লিনিকে করোনা সচেতনতা বিষয়ক সেমিনার করে গণ সচেতনতা বৃদ্ধি করতে দেখা যায়। 

গত এক বছর ধরে আধুনিক বিশ্বকে স্থবির করে দেয়া রোগটির নাম কোভিট ১৯ নোবেল করোনা ভাইরাস। অদৃশ্য এই রোগের কাছে হেরে গিয়েছে লক্ষ লক্ষ মানুষ। আশংকা জনক হারে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের হার। আধুনিক বিশ্ব যখন কোভিট ১৯ এর কাছে হেরে যেতে বসেছিল, ঠিক ঐ সময়ে আবিস্কৃত হলো করোনা ভেকসিন। কিন্তু বাংলাদেশের সহজ সরল সাধারণ  মানুষ ভেকসিন নিতে আগ্রহ লক্ষ্য করা যায়নি। তাই মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে ব্র্যাক সাধারণ মানুষের  পাশে এসে দাড়ায়। তাড়াইল উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ৭ জন সেচ্ছাসেবক ও গ্রাম অনুসারে  সেবিকা নিয়োগের মাধ্যমে ভেকসিন ফর্ম রেজিষ্ট্রেশন চালু করে। গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষকে করোনা ভেকসিন নিতে আগ্রহী করে তুলে। এবং তাদেরকে  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে  ভেকসিন নিশ্চিত করতে সহযোগিতা করে।

সেচ্ছাসেবক ও সেবিকাদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, করোনা ভেকসিন নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে অনেক ভুল ধারণা রয়েছে। গুজব, রটনাকে কাটিয়ে ভেকসিনে রাজি করানো সহজ কাজ নয়। তবে  গ্রামের চল্লিশোর্ধ অনেক মানুষ আছে যারা মরে গেলেও করোনা ভেকসিন দিবেনা বলে পণ করেছে। এমন মানুষকেও করোনা ভেকসিন দিতে পেরেছি। এলাকার সচেতন সাধারণ মানুষ আই নিউজ বিডি কে জানায় ব্র্যাকের এই কর্মসুচি না এলে অজ্ঞ, বয়স্ক এই সাধারণ মানুষদের ভেকসিন দেওয়া সহজ হতো না। তাই ব্র্যাকের এই করোনা বিষয়ক  কর্মসূচিকে স্বাগত জানায়। গত ১ মাসে তাড়াইল উপজেলা ব্র্যাক ৩০০০ টিকা ফর্ম রেজিস্ট্রেশন করে। এরমধ্যে ১৩০০ মানুষকে ভেকসিন নিশ্চিত করা হয়। গতকাল ৩১ মার্চ এই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এই কার্যক্রম স্থগিত হয়ে যায়।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ