About Us
Md:Sorif Hossian - (Chandpur)
প্রকাশ ৩১/০৩/২০২১ ০৭:১৬পি এম

চাঁদপুর মেঘনায় জাটকা ধরায় ১ মাসে ১৮৫ জেলে আটক

চাঁদপুর মেঘনায় জাটকা ধরায় ১ মাসে ১৮৫ জেলে আটক Ad Banner

জাতীয় সম্পদ ইলিশ রক্ষায় সরকার মার্চ-এপ্রিল দু’মাস চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত প্রায় ৯০ কিলোমিটার এলাকা পদ্মা ও মেঘনা নদী অভয়াশ্রম ঘোষণা করেন। এ সময় জাটকাসহ সব ধরণের মাছ ধরা, ক্রয়-বিক্রয়, মওজুদ ও পরিবহন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

নিষিদ্ধ এ সময়ে সরকার জাটকা ধরা থেকে বিরত থাকা জেলেদেরকে ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত ৪ মাস ৪০ কেজি করে চাল খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রদান করছে। কিন্তু তারপরেও যারা নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মেঘনা নদীতে জাটকা নিধন করছে তাদেরকে আটক করছে জেলা টাস্কফোর্স।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানাগেছে, গত ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জাটকা ধরায় ১৮৫ জেলের জেল ও জরিমানা হয়েছে। জেলা ও উপজেলা টাস্কফোর্স এর নিয়মিত টিম ৩১১টি অভিযান পরিচালনা করেছেন। 

এর মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়েছে ৬৫টি। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সহকারী কমিশনারগণ এসব ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।

অভিযানকালে জাটকা জব্দ হয়েছে ১৫.০২৬টন, অন্যান্য মাছ জব্দ হয়েছে ০.০৪৫টন। নিষিদ্ধ কারেন্টজাল জব্দ হয়েছে ৫৭ লাখ ৭ হাজার ৮০ বর্গ মিটার। অন্যান্য জাল জব্দ হয়েছে ৫৩ হাজার বর্গ মিটার। 

জব্দকৃত জালের আনুমানিক মূল্য ১১ কোটি ৫৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা। এসব ঘটনায় নিয়মিত মামলা হয়েছে ১৫২টি। আটক জেলেদের কাছ থেকে মৎস্য আইনে জরিমানা আদায় হয়েছে ৫ লাখ ৪৮ হাজার টাকা।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুল বাকী বলেন, মঙ্গলবার চাঁদপুর সদর উপজেলায় ২টি নৌকা ও ১টি পিকআপ ভ্যান জব্দ হয়েছে।

একই সাথে কোস্টগার্ড ৩জন পাচারকারীকে আটক করেন। আটক পাচারকারীদের প্রত্যেককে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ১ বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেন।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ