About Us
Md Jahidul Islam Sumon
প্রকাশ ০৯/০৩/২০২১ ০২:২৩পি এম

ডায়েটের তেল বাদ দিন- রাখুন খাঁটি সর্ষের তেল

ডায়েটের তেল বাদ দিন- রাখুন খাঁটি সর্ষের তেল Ad Banner

আজকাল খাদ্যের নানা অভ্যেসে বদল আনার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররাও। নিয়মিত সুস্বাস্থ্য রক্ষা করতে কে না চায়? কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ায় আমাদের মানসিক চাপ। তার মধ্যে করোনার মত একটি কঠিন রোগের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে আমরা অনেকেই বুঝতে পারছি না আমাদের স্বাস্থ্যরক্ষায় ঠিক কী কী মানতে হবে আর কী কী বর্জন করতে হবে।

তবে মন ও শরীর ঠিক রাখতে সঠিক খাবারের খুব দরকার। এর থেকেই প্রতিদিনের কাজের শক্তি পাই আমরা। তবে আজকাল খাদ্যের নানা অভ্যেসে বদল আনার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররাও। তাই রান্নার তেল নিয়ে একটি বিশেষ পোস্ট রইলো আপনাদের জন্যে।  অনেকেই ডায়েট মানতে বাদ দেন সর্ষের তেল। তবে এখন ডাক্তাররা বলছেন এই তেলটি আমাদের শরীরের জন্যে খুবই দরকারি ও উপকারী। এতে রয়েছে মনো স্যাচুরেটেড ফ্যাট অ্যাসিডের ভান্ডার।

এছাড়াও আছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও আলফা লাইনোলেনিক অ্যাসিডের প্রাচুর্য। এতে মানসিক চাপ ও দহন অর্থাৎ শরীরের জ্বালা কম হয়। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরাও এই তেলকেই ভোজ্যতেলের পর্যায়ে রেখেছেন। হৃদরোগ, উচ্চ চাপ ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যায় এই তেল খুব লাভদায়ক। ঘানির খাঁটি সর্ষের তেল খুব দরকার এই সময়ে শিশু থেকে বুড়োদের। আলফা লাইনোলেনিক অ্যাসিড রক্ত প্লেটেলেটসের উচ্চচাপ কমায়।

গ্যাস্ট্রিক ও কোলোনে প্রদাহ হলে সর্ষের তেলে থাকা ফাইটোকেমিক্যাল তা থেকে রক্ষা করে আমাদের। করোনা একটি ফ্যাটি ভাইরাস। সর্ষের তেল অ্যান্টি ওবেসিটি তেল। তাই এই রোগও থাকবে দূরে। আবার যাদের ওজন কম, তারা সঠিক মাত্রায় খাবারে সর্ষের তেল খেলে ওজন ঠিক থাকবে। 

এছাড়াও আমদের গুড কোলেস্টেরল দরকার। তাই সর্ষের তেল খুব উপকারী। করোনারি হৃদ রোগের সম্ভাবনা অনেক কমিয়ে দেয় এই তেল।

আবার ওজন কমাতেও সাহায্য করে থাকে। ট্রান্স ফ্যাট আমদের শরীরের জন্যে খুব খারাপ কারণ এতে হৃদ রোগের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তবে সর্ষের তেলে এই ফ্যাট নেই একদম। এতে উচ্চ রক্তচাপ, হার্ট অ্যাটাক কমে যায় অনেকটাই।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ