About Us
MD. AJIJUL ISLAM SOJIB - (Habiganj)
প্রকাশ ০২/০৩/২০২১ ১০:৩৯পি এম

১৯৭২'র শায়েস্তাগঞ্জ পোস্টঅফিস ডিজিটাল যুগেও অন্ধকার

১৯৭২'র শায়েস্তাগঞ্জ পোস্টঅফিস ডিজিটাল  যুগেও অন্ধকার Ad Banner

জরাজীর্ণ ভবন, ছাদ থেকে কোয়া ধসে পড়ছে, কোথাও কোথাও ভবনের প্রাচীর ভেঙে বের হয়ে এসেছে ভেতরের রড, এ রকম নানা সমস্যা নিয়েই চলছে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসের কার্যক্রম। 

শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসটি ১৯৭২ সালে শায়েস্তাগঞ্জের প্রাণকেন্দ্রে স্টেশন রোডে স্থাপিত হয়েছিল। ডিজিটাল যুগে দেশ প্রবেশ করলে ও পোস্ট অফিসের প্রয়োজনীয়তা এখনো ফুরিয়ে যায়নি। সরকার পোস্ট অফিসকে আধুনিকায়ন করার জন্য সবরকম সহায়তাই করে যাচ্ছে। 

তারই ধারাবাহিকতায় শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসেও চালু হয়েছে পোস্ট ই সেন্টার। শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট ই সেন্টারে ৬০ জন শিক্ষার্থী ঝুঁকিপূর্ণ ভবনেই ক্লাস করছেন। শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসে কর্মরত রয়েছেন ১৪ জন স্টাফ। 

অফিস সূত্রে জানা যায়, বারবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে নতুন ভবনের জন্য চিঠি দিলে ও তারা কোনো সাড়া দেননি। ফলে ঝুঁকির মধ্যেই চলছে কাজ৷ শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসের অধীনে রয়েছে ১৪টি সাব অফিস। এসব অফিসের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্রও থাকে এই অফিসেই। এছাড়া পুরো অফিস জুড়েই বিদ্যুতের তার ঝুলানো। তাই যেকোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ পোস্ট অফিসের পোস্ট মাস্টার (পিএম) গোলাম মোস্তফা শামীম বলেন, আমিসহ ১৪ জন কর্মকর্তা - কর্মচারী এই অফিসে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ এছাড়া আমার জন্য নির্ধারিত বাসভবনটিও পরিত্যক্ত। সব মিলিয়ে নানা সমস্যার বেড়াজালে এই অফিস। নতুন ভবনের জন্য বিভাগীয় অফিসকে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে হবিগঞ্জের সহকারী পোস্ট মাস্টার জেনারেল (এপিজি) মো. আব্দুল কাদের বলেন, নতুন ভবনের জন্য ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় অফিসে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। হয়তো কিছুদিনের মধ্যে নতুন ভবনের জন্য ফাইল অনুমোদন হবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ