Md.Shagar Hasan
প্রকাশ ২৩/০২/২০২১ ০৪:০৬পি এম

সবার আগে দেশের খেলা: মোস্তাফিজ

সবার আগে দেশের খেলা: মোস্তাফিজ Ad Banner

সিদ্ধান্তটা খেলোয়াড়দের ওপরেই ছেড়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে যে কেউ চাইলে যেকোনো লিগে খেলতে পারবে, এমনকি জাতীয় দলের খেলা থাকলেও গতকাল সোমবার পড়ন্ত বিকেলে বিসিবি কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে এ কথাই বলেছিলেন সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তবে সেই পথে হাঁটলেন না বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। আসন্ন আইপিএলের সময় বাংলাদেশ দলের খেলা থাকলে তিনি বাংলাদেশের জার্সি গায়েই খেলবেন।

তিনি সাফ বলে দিয়েছেন, সবার আগে দেশের খেলা।

আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিসিবি একাডেমিতে সংবাদমাধ্যমে মোস্তাফিজ বলেছেন, ‘সবার আগে আমার দেশের খেলা। শ্রীলঙ্কা (সফরের) টেস্টে যদি থাকি, তাহলে আমি টেস্ট খেলব।যদি না থাকি তাহলে বিসিবি তো আমাকে বলবে যে, আমি নাই।

তখন আমি বিসিবিকে বলব (আইপিএল খেলার কথা), বিসিবি যদি আমাকে ছাড়ে, তাহলে আমি আইপিএলে খেলব।

দেশপ্রেম আগে।’২৫ বছর বয়সী এ বাঁহাতি পেসারের সোজাসাপটা কথা, তিনি সিদ্ধান্ত নেয়ার ভার দিয়ে রাখবেন বিসিবির কোর্টেই। ক্রিকেট বোর্ড তাকে যেটা বলবে, সেটাই করবেন তিনি। বিসিবি চাইলে শ্রীলঙ্কা সফরে অবশ্যই যাবেন তিনি।

মোস্তাফিজের ভাষ্য, ‘যদি টেস্টে আমাকে রাখে, আমি টেস্ট খেলব। যদি না রাখে তাহলে বিসিবি জানে। বিসিবি যেটা বলবে আমি সেটা করব। বিসিবি চাইলে (শ্রীলঙ্কা যেতে) রাজি না হওয়ার তো কিছু নাই। দেশের খেলা বা আইপিএলে খেলা- এ বিষয়ে অন্য কোন চাপ নেই।’ 

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) হওয়া আইপিএলের নিলামে বাংলাদেশ থেকে সুযোগ পেয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান।

সাকিবকে ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং মোস্তাফিজকে ১ কোটি রুপিতে কিনে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস।সাকিব আল হাসান এরই মধ্যে আইপিএলের জন্য জাতীয় দল থেকে ছুটি চেয়ে নিয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, সে সময় শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট সিরিজ থাকলে খেলতে পারবেন না।সাকিবের এমন সিদ্ধান্তের পর সবার আগ্রহ ছিল মোস্তাফিজের ওপর।

আজ মোস্তাফিজ জানালেন টেস্ট সিরিজের দলে তিনি থাকলে, আগে টেস্টই খেলবেন।ডজন দেশে ফিফটি করে গেইলের বিশ্ব রেকর্ড  করাচি কিংসের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ২৪ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলে দিয়েছিলেন পূর্বাভাস,

যার পূর্ণতা দিয়েছেন ঠিক পরের ম্যাচেই।ধারাবাহিকতা ধরে রেখে সোমবার রাতে লাহোর কালান্দারসের বিপক্ষে ৫টি করে চার-ছয়ের মারে ৬৮ রানের ইনিংস খেলেছেন কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরসের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল।

আর এ ফিফটির মাধ্যমে স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি দেশে পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস খেলার রেকর্ড গড়লেন গেইল।

এবার পাকিস্তান নিজেদের মাটিতেই পিএসএল আয়োজন করা রেকর্ডটি গড়তে পেরেছেন দ্য ইউনিভার্স বস। পাকিস্তানসহ এ নিয়ে ১২তম দেশে ফিফটি হাঁকালেন তিনি।

এতদিন ধরে ভারতের হিটম্যানখ্যাত রোহিত শর্মার সঙ্গে সমান ১১টি দেশে ফিফটির রেকর্ড ছিল গেইলের। এখন এটি পুরোপুরি নিজের করে নিলেন গেইল।

এছাড়া বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে টেস্ট খেলুড়ে প্রথম দশ দেশে ফিফটির রেকর্ডও গড়েছেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এই ফেরিওয়ালা।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ