Rashedul Islam Chowdhury - (Chattogram)
প্রকাশ ২৩/০২/২০২১ ০১:১৮এ এম

মাদক নির্মূলে সবার সহযোগীতা চান এসপি হাসান

মাদক নির্মূলে সবার সহযোগীতা চান এসপি হাসান Ad Banner

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান বলেছেন, মাদকের সাথে কোনো ধরণের আপোষ হবে না। মাদক প্রতিরোধে পুলিশ থামবে না। শতভাগ নির্মূল না হলেও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনতে শক্তহাতে কাজ করা হচ্ছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত জিরো টলারেন্স লক্ষ্য নিয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণে পুরো জেলায় কাজ করছে পুলিশ। গতকাল বিকেলে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন আয়োজিত মাদক কক্সবাজার আঞ্চলিক মানবাধিকার সম্মেলন-২০২১ এর ‘মাদক নির্মূল ও পরিবেশ রক্ষায় করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। 

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে মাদক ক্যান্সারের মতো রূপ নিয়েছে। তবে মাদকের ভয়াবহতা আরো ভয়ংকর। কারণ ক্যান্সার আক্রান্ত হলে শুধু একজন মানুষেরই ক্ষতি হয়। কিন্তু একজন মাদক সেবনকারী এবং মাদক ব্যবসায়ী পুরো সমাজকে ধ্বংস করে দেয়। তাই এ ব্যাধি থেকে দেশকে মুক্ত করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নয়; সব মানুষকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। 

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে তথ্য দিয়ে সহায়তাসহ সমাজের তৃণমূল পর্যন্ত মাদক বিস্তার রোধে জনসচেতনতা তৈরি করতে হবে।  মাদক সংশ্লিষ্ট কাউকে ছাড় দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে পুলিশ সুপার বলেন, মাদক ব্যবসার সিন্ডিকেটের সাথে অনেক ধরণের মানুষ জড়িত। রয়েছে গড়ফাদার, পাচারকারী, বহনকারী, সরবরাহকারী থেকে শুরু করে খুচরা বিক্রেতা। সবশেষে রয়েছে সেবনকারী।

আমাদের তালিকায় সবাই সমান অপরাধী। তাই কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।  বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের জেলা সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপিকা অ্যাথিন রাখাইনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ড. সাইফুল ইসলাম দিলদার বলেন, বিশ্বের ৪১টি দেশের আমাদের সংগঠনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

আমরা বিশ্বজুড়ে মানবাধিকার রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।  ২০০০ সাথে আমাদের কাজের স্বীকৃতি দিয়েছে জাতিসংঘ। বাংলাদেশেও এভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন।

ইতিমধ্যে দেশের একটি শীর্ষ মানবাধিকার সংগঠনের রূপ নিয়েছে এই সংগঠন। ভবিষ্যতেও এই ধারবাহিকতা অব্যাহত রেখে সব ধরণের মানবাধিকার রক্ষায় বদ্ধপরিকর হয়ে আমরা কাজ করে যাবো। 

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, কক্সবাজার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহের, কক্সবাজার সিটি কলেজের প্রভাষক রোমেনা আকতার, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের জেলা সহ-সভাপতি সম্পাদক মুকিম খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম সোহেল, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আনিছুল হক, কক্সবাজার পৌর শাখা সভাপতি ফাহাদ আলী ফাহাদ।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ