Verified আই নিউজ বিডি ডেস্ক
প্রকাশ ২২/০২/২০২১ ০৫:০০পি এম

প্রায় ৩০ লাখ টাকার নকল প্রসাধনী জব্দ

প্রায় ৩০ লাখ টাকার নকল প্রসাধনী জব্দ Ad Banner

রাজধানীর পুরান ঢাকার রহমতগঞ্জে অভিযান চালিয়ে আনুমানিক ৩০ লাখ টাকার নকল রঙ ফর্সাকারী প্রসাধনী জব্দ করা হয়েছে। এ সময় নকল প্রসাধনী তৈরির দায়ে দুইজনক আটক করেছে র‍্যাব।

পাশাপাশি ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আটক দুজনকে দুই মাসের কারাদণ্ড দেয়া হবে বলে জানান র‍্যাব।

আজ সোমবার দুপুরে র‌্যাব ও বিএসটিআইয়ে যৌথভাবে এই অভিযান চালায়।

পুরান ঢাকার রহমতগঞ্জে হাজী বাল্লু রোডের ‘নিধি কসমেটিকস’ নামে এই কারখানায় ফেয়ার অ্যান্ড লাভলির আদলে 'নিধি অ্যান্ড লাভলি', 'তিব্বত', 'নোভা'সহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ত্বক ফর্সাকারী নকল ক্রিম তৈরি হতো।

সেখান থেকেই রাজধানীসহ সারাদেশে বিভিন্ন জায়গায় এইসব নকল প্রসাধনী সরবরাহ করতো এই প্রতিষ্ঠান।

র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা এই অভিযান পরিচালনা করি। তবে আমরা এর মালিক মোহাম্মদ নাসিমকে আটক করতে পারিনি।খবর পেয়ে আগেই পালিয়ে গেছেন। এরা চকবাজার থেকে শুরু করে সারাদেশে এইসব সব নকল প্রসাধনী বিক্রি করতো।

তিনি আরও বলেন, তারা দুই তিন বছর যাবত এই কার্যক্রম চালাচ্ছে। তাদের বিএসটিআই, ল্যাব, কেমিস্ট কিছু নেই। তাদের উৎপাদিত এইসব প্রসাধনী খুবই ক্ষতিকর।

বিপুল পরিমান এইসব প্রসাধনীর আনুমানিক মুল্য ৩০ লাখ টাকা জানিয়ে এই র‍্যাব কর্মকর্তা বলেন, শুধু এইসব ব্যান্ডেরই নয় তারা ভারতের বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল প্রসাধনীও এখানে তৈরি করত।

বিএসটিআইয়ের কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন বলেন, তারা নামহীন প্রচুর কেমিক্যাল দিয়ে এইসব প্রসাধনী তৈরি করছে যা ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

এতে সাময়িকভাবে রঙ ফর্সা হলেও পরবর্তীতে বিভিন্ন রকমের চর্মরোগ হতে পারে। এমনকি এইসব কেমিক্যালের কারণে ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।

বিকেল প্রায় সোয়া ৩ টা পর্যন্ত চলা এই অভিযান শেষে কারখানাটি সিলগালা করে দেয় র‍্যাব।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ