মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Md. Akramul Islam
প্রকাশ ২২/০২/২০২১ ০২:১৩পি এম

পীরগাছা উপজেলার মধ্যে হবে একটি আদর্শ ওয়ার্ড

পীরগাছা উপজেলার মধ্যে হবে একটি আদর্শ ওয়ার্ড Ad Banner

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না হলেও নির্বাচনী গরম হাওয়া বইছে রংপুরের পীরগাছা উপজেলার ১নং কল্যাণী ইউপির ৯নং ওয়ার্ডে। এখানকার সম্ভাব্য ইউপি সদস্য পদ প্রার্থীরা ইতোমধ্যেই কোমর বেধেঁ মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।

দোয়া প্রার্থী সম্বলিত পোস্টার, ফেস্টুনে সাটিয়ে ভোটারদের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলছে প্রার্থীরা।  এর আগে ৯ নং ওয়ার্ডে তেমন কোনও উন্নয়ন হয়নি। গরিব-দু:খিদের খোঁজ খবর রাখেনি কেউই। কথা দিয়ে কেউই কথা না রাখায় নির্বাচনে অংশ নেওয়ার স্বপ্ন দেখছে ওই ওয়ার্ডের শিক্ষিত যুবক শাহীন মির্জা সুমন। সুমন নামেই এলাকায় তাঁর বেশ সু-নাম ও কদর রয়েছে।

নিরিহ মানুষ জনের পাশে থেকে দির্ঘদিন জনসেবা করে আসছেন তিনি। আপদে-বিপদে বিপদ গ্রস্থদের পাশে থেকে সেবা দেওয়ায় বেশ সু-নাম কুড়িছেন তিনি। এক কথায় ৯ নং ওয়ার্ডের গরিবের বন্ধু বলতেই মানুষ সুমন কে চেনেন। খবর-৭১বার্তা২৪.কম।  রোববার  দুপুরে কথা হয় সম্ভাব্য ইউপি সদস্য পদ প্রার্থী  শাহীন মির্জা সুমনের সাথে।

এসময় তিনি একান্ত সাক্ষাতকারে  জানান, আমি নির্বাচিত হলে ৯নং ওয়ার্ডের নাগরিকদের কোনও প্রকার টাকা নেওয়া ছাড়াই দু:স্থ মাতা কার্ড,বয়স্ক ভাতা,বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা,কর্মসৃজন কর্মসূচির নামের তালিকা প্রণোয়নে নাম অর্ন্তভূক্ত করা হবে।  সংষ্কার করা হবে রাস্তা-ঘাট, নির্মাণ হবে কালর্ভাট, মাদক মুক্ত, বাল্যবিবাহ মুক্ত হবে ৯ নং ওয়ার্ড। সেই সাথে পীরগাছা উপজেলার মধ্যে হবে একটি আদর্শ ওয়ার্ড। একটি রোল মডেল ওয়ার্ড করতে যা যা প্রয়োজন সব করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। 

ইউপি সদস্য পদ প্রার্থী শাহীন মির্জা সুমন আরও জানান, তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্র করে কথায় কথায় যেনো কেউই মামলা- মোকদ্দমায় জড়িয়ে সর্ব শান্ত না হয়।

এজন্য গ্রাম্য আদালতের মাধ্যমে বিবাদ মিমাংসা করে দিয়ে ৯ নং ওয়ার্ডে শান্তি,শৃঙ্খলা ফিরিয়ে এনে পুলিশী হয়রানী থেকে জনগনকে রক্ষা করার ব্যবস্থা করা হবে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ