Ahmed Niloy
প্রকাশ ২০/০২/২০২১ ০৫:৩৯পি এম

বিদেশ পাঠানোর টাকা ফেরত চাওয়ায় মাকে হত্যা!

বিদেশ পাঠানোর টাকা ফেরত চাওয়ায় মাকে হত্যা! Ad Banner

ছেলেকে সিঙ্গাপুর পাঠানোর জন্য দেয়া টাকা ফেরত চাইলে মা কুলসুম বেগমকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিবেশি সুমন শেখ।

আজ শনিবার (২০ জানুয়ারি) সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য দিয়েছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) মুন্সিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ারুল হক।

তিনি বলেন, গত ১৭ জানুয়ারি মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার পূর্ব হাঁসারগাঁও এলাকার বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন কুলসুম বেগম। নিখোঁজের ১৯ দিন পর গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিকালে বাড়ির পাশের জমি থেকে তার কঙ্কাল উদ্ধার করে পুলিশ। পরে নিহতের ছেলে কামরুল হাসান অয়ন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। দুই সপ্তাহ অনুসন্ধানের পর হত্যার ক্লু উদঘটন করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

১৮ ফেব্রুয়ারি সিরাজদিখানের রামকৃষ্ণদি এলাকা থেকে গ্রেফতার হয় কুলসুমের প্রতিবেশি আলী হোসেনের ছেলে সুমন শেখ। হত্যার ঘটনায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছেন সুমন।

তিনি আরও জানান, নিহতের ছেলে অয়নকে সিঙ্গাপুর পাঠানোর জন্য প্রতিবেশী সুমন শেখের কাছে ৬ লাখ টাকা দেয় কুলসুম। ১৭ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ওই টাকা ফেরত চাইতে সুমনের সাথে বাড়ির পাশের জমিতে দেখা করতে যায় কুলসুম। সেখানে তাকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে মরদেহ কচুরিপানায় লুকিয়ে পালিয়ে যায় সুমন। পরে বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) তার দেয়া তথ্যমতে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা, ব্যাগ ও অন্যান্য জিনিস পত্র উদ্ধার করেছে পিবিআই।

প্রসঙ্গত, কুলসুম বেগম পূর্ব হাঁসারাগাঁও গ্রামের মো. ইকবাল শেখের স্ত্রী। সে একই উপজেলার তন্তর ইউনিয়নের রুসদী গ্রামের আলী আকবর মোড়লের মেয়ে।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ