Abdul Latif Moral
প্রকাশ ২০/০২/২০২১ ১২:৫৭এ এম

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর আত্মহত্যা

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর আত্মহত্যা Ad Banner

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড্রয়িং এন্ড পেইন্টিং ডিসিপ্লিনের ২০ ব্যাচের শিক্ষার্থী আফসানা আফরিন সুমি (১৯) আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি)  দুপুরে নিজ বাসভবনে  ওড়না দিয়ে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। প্রেমে ব্যর্থ হয়ে তার এই আত্মহত্যা বলে ধারণা করা হচ্ছে। সে নগরীর ফুলবাড়িগেট মিরেরডাঙ্গা এলাকার ইউনুস মোল্যার মেয়ে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খানজাহান আলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ্বাস। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, আফসানা আফরিন সুমি (১৯) ওড়না দিয়ে ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দেয়। পরে তার আত্মীয়-স্বজন তাকে গলায় ফাঁস দেওয়া থেকে নামিয়ে খুমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর ১ টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

বর্তমানে তার মরদেহ খুমেক হাসপাতালের লাশ ঘরে রয়েছে। সুমির পিতা ইউনুস মোল্যা বলেন, ৬ ছেলে মেয়ের মধ্যে সবার ছোট এবং আদরের মেয়ে সুমি, একটু রুগ্ন থাকায় খাওয়ার জন্য তার মা প্রতিনিয়ত চাপ সৃষ্টি করতো।

সেই ক্ষোভে সুমি আত্মহত্যা করতে পারে বলে মনে করেন তিনি।। সুমির বাবা জানান, তার কোন বন্ধু বান্ধব তেমন ছিল না, শুধুমাত্র পড়াশুনা নিয়ে সে পড়ে থাকতো। 

তবে তার সহপাঠীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় , সুমি সব সময় হাসিখুশি থাকতো কিন্তু সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া নিয়ে হতাশায় ভুগছিলেন।  সুমির ফেইসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ স্টোরিতে দেখা যায়, প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়াকে কেন্দ্র করে আত্মহত্যার এক ঘণ্টা আগেও পোস্ট দিয়েছিলেন।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ