mahfuz
প্রকাশ ১৩/০২/২০২১ ০৬:৪৯পি এম

রমেক হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার ড্রেনে; কর্মচারীকে শোকজ

রমেক হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার ড্রেনে; কর্মচারীকে শোকজ Ad Banner

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ড্রেনে একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার পরে থাকা নিয়ে সর্বত্র আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আবু সাঈদ খান বাবু ওরফে অক্সিজেন বাবু নামে এক ইলেকট্রিশিয়ানকে শোকজ করেছে।

শনিবার (১৩ পেব্রুয়ারি) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন রমেক হাসপাতালের পরিচালক (প্রশাসন) মোস্তফা জামান চৌধুরী। হাসপাতাল সূত্র জানায়, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে গত ৩০ ডিসেম্বর ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী মশিয়ার রহমান বকুল ও আশিকুর রহমান নয়নকে অন্যত্র বদলী করা হয়।

এই বদলী ঠেকাতে তদবির শুরু করেন ওই দুই কর্মচারী। প্রায় ১২দিন পর স্বাস্থ্য অধিদফতর আশিকুর রহমান নয়নের বদলীর আদেশ স্থগিত করে। মশিয়ার রহমান বকুল ৪৩দিন অতিবাহিত হলেও নতুন কর্মস্থলে যোগদান করেননি।

তিনি অক্সিজেন সিলিন্ডারের দায়িত্বে থাকা আবু সাঈদ খান বাবু ওরফে অক্সিজেন বাবুকে সঙ্গে নিয়ে তদবির করতে ঢাকায় অবস্থান করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সিলিন্ডারটি অবৈধভাবে বে-সরকারি হাসপাতালে সরবরাহ করা হয়েছিল।

অক্সিজেন শেষ হওয়ায় সিলিন্ডারটি ফিরত দিতে এসে অক্সিজেন বাবুকে না পেয়ে ড্রেনে ফেলে রেখে চলে যায়। ড্রেনে থাকা সিলিন্ডারের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এটি ভাইরাল হয়।

এতে অনেকেই বলেছেন, হাসপাতালের ভর্তি রোগীরা অক্সিজেন পায় না। একটি সিন্ডিকেট অবৈধভাবে বে-সরকারি হাসপাতালের তা বিক্রি করছেন। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার আবু সাঈদ খান বাবু ওরফে অক্সিজেন বাবুকে শোকজ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে মশিয়ার রহমান বকুল ও আবু সাঈদ খান বাবু ওরফে অক্সিজেন বাবুর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

রমেক হাসপাতালের পরিচালক (প্রশাসন) মোস্তফা জামান চৌধুরী বলেন, অক্সিজেন বাবু নামে এক কর্মচারীকে কৈফিয়ত তলব করা হয়েছে। মশিয়ার রহমান বকুল নতুন কর্মস্থলে যোগদান করেছেন কিনা আমার জানা নেই।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ