Feedback

জাতীয়, জেলার খবর

মসজিদে নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৭

মসজিদে নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৭
May 01
04:31pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore
আই নিউজ বিডি ডেস্ক: ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া পূর্বপাড়া এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ও স্থানীয় প্রভাব বিস্তার এবং মসজিদে নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাতজন আহত হয়েছে। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইকুরিয়া পূর্ব পাড়া জামে মসজিদের সভাপতি মো. শামসুদ্দিন ওরফে শামসুর সঙ্গে আওয়ামী যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী কেলের দীর্ঘদিন যাবৎ দলীয় ও পারিবারিক বিবাদ চলে আসছিল। গতকাল উক্ত মসজিদে নামাজ পড়তে যায় মোহাম্মদ আলী কেলের ছোট ভাই মহব্বত আলী। পূর্ব শত্রুতার সেই রেশ ধরে মহব্বত আলীকে মারধর করে শামসু ও তার ছেলেরা। খবর পেয়ে মহব্বত আলীর বড় ভাই মোহাম্মদ আলী কেলে লোকজন নিয়ে পাল্টা হামলা করে তাদের ওপর। এ ঘটনায় মহব্বত আলীর পক্ষের সাতজন আহত হয়। আহতরা হলেন, মোহাম্মদ আলী কেলে (৩৫),আসাদ উল্ল্যাহ (৩৫), মহব্বত আলী (২৫), আবু সাঈদ (৩৮), আলী হোসেন (৪০), শাকিল (৩৫) এবং শুভ (২৫)। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিক ও স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। খবর পেয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ ও র‌্যাব-১০ কেরানীগঞ্জ ক্যাম্প ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় আহত মোহাম্মদ আলী কেলে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তিনি বলেন, অভিযুক্ত সামসু ও আমরা একই সমাজের। আমরা একই মসজিদে নামাজ আদায় করে থাকি। বুধবার রাতে আমার ছোট ভাই মসজিদে নামাজ পড়তে যায়। সেখানে সামসু ও তার ছেলে-ভাতিজারা আমাদের নামাজ পড়তে দিবে না বলে আমার ছোট ভাইয়ের ওপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করে। খবর পেয়ে আমি ও আমার স্বজনরা হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা আমাদেরকেও মারধর করে আহত করে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আমাদের উদ্ধার করে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত সমাসুদ্দিন ওরফে সামসুর মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান, ইকুরিয়া পূর্ব পাড়া জামে মসজিদের তিনি সভাপতি। তার বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগ মিথ্যা। মোহাম্মদ আলী কেলে আওয়ামী লীগের নাম বিক্রি করে এলাকায় মাদকের আখরা বানিয়ে ফেলছে। কিছুদিন আগে মাদকসহ তার বোনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে গেছে। আমি সেই মাদক বিক্রিতে তাদের বাধা দেওয়ায় উল্টো তারা আমার বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে আমাদের বিরুদ্ধে আবার থানায় মামলা করেছে। এ ব্যাপারে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহজামান বলেন, আহতদের পক্ষ থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। বিষয়টি আমরা সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক আসামিদের গ্রেপ্তার করব। সূত্র : কালের কণ্ঠ

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

শাকিল বাড়ি ফিরেছে,তবে মৃত

শাকিল বাড়ি ফিরেছে,তবে মৃত

নূরদের বিরুদ্ধে মামলাকারী তরুণীর এবার শাহবাগ থানায় মামলা

নূরদের বিরুদ্ধে মামলাকারী তরুণীর এবার শাহবাগ থানায় মামলা

দেশের বাজারে বর্তমান স্বর্ণের দাম

দেশের বাজারে বর্তমান স্বর্ণের দাম

মানুষ মত দেখতে অদ্ভুত প্রাণীটির দেখা মিলল পৃথিবীতে!

মানুষ মত দেখতে অদ্ভুত প্রাণীটির দেখা মিলল পৃথিবীতে!

স্মৃতির পাতায় অমলিন প্রিয় ক্যাম্পাস

স্মৃতির পাতায় অমলিন প্রিয় ক্যাম্পাস

স্তন  নিয়ে  প্রশ্ন করায় বেজয় চটে গেলেন শার্লিন চোপড়া

স্তন নিয়ে প্রশ্ন করায় বেজয় চটে গেলেন শার্লিন চোপড়া

পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা দাবি রাষ্ট্রপক্ষের

পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা দাবি রাষ্ট্রপক্ষের

রোববার থেকে সৌদির নতুন ভিসা

রোববার থেকে সৌদির নতুন ভিসা

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ  মামলার তথ্য ও প্রমাণাদী চেয়ে তদন্ত কমিটির জরুরি প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ মামলার তথ্য ও প্রমাণাদী চেয়ে তদন্ত কমিটির জরুরি প্রেস বিজ্ঞপ্তি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ লক্ষ টাকার বীমা দাবী প্রদান করেছে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ লক্ষ টাকার বীমা দাবী প্রদান করেছে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স

সুনামগঞ্জ সমাচার

সুনামগঞ্জ সমাচার

প্রথম ম্যাচে জয় পায় কলকাতা নাইট রাইডার্স

প্রথম ম্যাচে জয় পায় কলকাতা নাইট রাইডার্স

দুর্নীতি দমনে প্রধানমন্ত্রীকে পরামর্শ দিলেন ড. জাফরুল্লাহ

দুর্নীতি দমনে প্রধানমন্ত্রীকে পরামর্শ দিলেন ড. জাফরুল্লাহ

আত্মহত্যা !!

আত্মহত্যা !!

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় বিবিসির সাংবাদিকের সাক্ষ্য

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় বিবিসির সাংবাদিকের সাক্ষ্য

সর্বশেষ

শুটিংয়ের ফিরলেন আলিয়া ভাট

শুটিংয়ের ফিরলেন আলিয়া ভাট

প্রেমিকের মৃত্যুর পরদিন গলায় ফাঁস দিল কিশোরী

প্রেমিকের মৃত্যুর পরদিন গলায় ফাঁস দিল কিশোরী

মেয়েকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করলেন মা, অভিযোগ বাবার

মেয়েকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করলেন মা, অভিযোগ বাবার

অখ্যাত স্কুলের বিখ্যাত শিক্ষকঃ একজন হামিদ স্যার

অখ্যাত স্কুলের বিখ্যাত শিক্ষকঃ একজন হামিদ স্যার

চার ব্যক্তিকে আল্লাহ অপছন্দ করেন

চার ব্যক্তিকে আল্লাহ অপছন্দ করেন

সূচ ছাড়াই নেওয়া যাবে ভ্যাক্সিন, অভিনব আবিস্কার বিজ্ঞানীদের.

সূচ ছাড়াই নেওয়া যাবে ভ্যাক্সিন, অভিনব আবিস্কার বিজ্ঞানীদের.

ঢাবির সেই ছাত্রীর নামে আরেক মামলা

ঢাবির সেই ছাত্রীর নামে আরেক মামলা

ছিনিয়ে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে হত্যা : মিজানের বাবা-মা গ্রেফতার

ছিনিয়ে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে হত্যা : মিজানের বাবা-মা গ্রেফতার

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান

নির্ধারণ করা হল ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ

নির্ধারণ করা হল ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ

মধ্যরাতে রণবীরের সঙ্গে মুম্বই ফিরলেন দীপিকা

মধ্যরাতে রণবীরের সঙ্গে মুম্বই ফিরলেন দীপিকা

পেয়াজের ঝাঁজে ইলিশের রাজনীতি

পেয়াজের ঝাঁজে ইলিশের রাজনীতি

শিহ্মকের বর্বরতা

শিহ্মকের বর্বরতা

মাইম্যান রাখতেই বিএনপির অঙ্গ সংগঠন গোছানোয় বিলম্ব

মাইম্যান রাখতেই বিএনপির অঙ্গ সংগঠন গোছানোয় বিলম্ব

অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সময় হাতেনাতে ধরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা

অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সময় হাতেনাতে ধরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা