Feedback

রাজনীতি

যারা আমাদের ভোট দেননি তারাও রেশনকার্ড পাবেন: হাছান মাহমুদ

যারা আমাদের ভোট দেননি তারাও রেশনকার্ড পাবেন: হাছান মাহমুদ
April 27
01:27pm
2020
MD Satu Verify Icon
Gopalpur, Tangail, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, যিনি আওয়ামী লীগের কড়া সমালোচক, কোনো সময় আমাদের দলকে ভোটও দেননি, তিনি যদি প্রকৃতপক্ষে অভাবি হন প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত নতুন পঞ্চাশ লাখ রেশন কার্ডে তার নাম অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা সদরে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি ও সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে ত্রাণ বিতরণসহ নানা বিষয়ে আয়োজিত সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এরপর তিনি স্থানীয় প্রশাসনের সাথেও এসব বিষয়ে মতবিনিময় সভা করেন। তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার গত কয়েক বছর ধরে পঞ্চাশ লাখ পরিবারের মধ্যে মাসে ৩০ কেজি করে ১০ টাকা দরে চাল দিচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী নতুনভাবে যে পঞ্চাশ লাখ রেশন কার্ড করা হবে সেগুলো প্রকৃতপক্ষে যাদের প্রয়োজন তাদের মধ্য থেকেই করতে হবে। এই কার্ডটি করার ক্ষেত্রে আমাদেরকে একটু সতর্ক হতে হবে। এ ধরনের কার্ড করার সময় কোন দলীয় পরিচয় বিবেচনা করা যাবে না। যার প্রয়োজন তাকেই অন্তর্ভূক্ত করতে হবে দলমত নির্বিশেষে। এটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, সুতরাং সেভাবেই তালিকা করতে হবে। কারণ একজন মানুষও অভাবে থাকুক সরকার সেটা চায় না। উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুল মোনাফ সিকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদারের সঞ্চালনায় সভায় রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র মো. শাহজাহান সিকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পৌরসভা আ.লীগ সভাপতি মো. আসলাম খাঁন, জেলা আ. লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার, চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. হারুন, দক্ষিণ রাজানগর ইউনিয়ন আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিনসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও দলীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন। হাছান মাহমুদ আরও বলেন, আমাদের দল যেহেতু সরকারি দল, সেহেতু আমাদের দায়িত্ব অনেক বেশি। সরকারি দল হিসেবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব। সেই দায়িত্ব আমাদের দলীয় নেতাকর্মীরা শুরু থেকেই পালন করছে। আজকে একটি মাস দেশের সবকিছু বন্ধ। তারপরও আল্লাহর রহমত ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োচিত পদক্ষেপের কারণে এখনও পর্যন্ত একজন মানুষও না খেয়ে মৃত্যুবরণ করেনি। সুতরাং কেউ যেন না খেয়ে থাকে সেদিকে আমাদের দৃষ্টিপাত করতে হবে। তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে কিছু মানুষ এখন নতুনভাবে সঙ্কটের মধ্যে পড়েছে। শ্রমজীবী মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাদের প্রতিদিন ইনকাম ছিল, এখন কিন্তু ইনকাম নাই। আবার সবাই কিন্তু ত্রাণ চাইতে পারে না, নিজেদের সমস্যার কথা মুখ ফুটে বলছেন না। আমাদেরকে খেয়াল করে নিজেদের বিবেচনায় যারা চাইতে পারে না তাদের কাছে ত্রাণ পৌঁছানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আবার যারা ভালো মতো চাইতে পারে দেখা যাচ্ছে সে সবার কাছ থেকে নিচ্ছে। এইটা যাতে না হয় পুরো বিষয়টার মধ্যে একটা সমন্বয় হওয় প্রয়োজন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

সর্বশেষ

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার,  সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার, সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার