• 0
  • 0
MD ABU NASER MAJNU
Posted at 12/01/2021 10:01:pm

আলোর ফেরিওয়ালা পান্নার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

আলোর ফেরিওয়ালা পান্নার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ
পান্না নামের এক চারণ শিল্পী, এক আলোর ফেরিওয়ালা চিত্র-শিল্পের আলো ছড়িয়ে যাচ্ছেন মাগুরার বিভিন্ন এলাকার সুবিধা-বঞ্চিত শিশুদের মাঝে। 

পুরো নাম শামসুজ্জামান পান্না। জন্ম ও বেড়ে ওঠা মাগুরা শহরের ছায়া-ঘেরা, মায়া ভরা ছায়া-বিথি সড়কে। ছোট্ট বেলা থেকেই চিত্র শিল্পের প্রতি ছিল তার অপরিসীম অনুরাগ। বাংলার প্রকৃতি, নদী-খাল-বিল, পাখ-পাখালী, মুক্তিযুদ্ধ এগুলো টানত তাকে।

এই টানেই ১৯৮২ সালে এস এস সি এবং ১৯৮৪ সালে এইচ এস সি পাস করার পর তিনি ভর্তি হন রাজশাহী চারুকলা ইন্সটিটিউটে। সেখানে তিনি প্রি-ডিগ্রি বি এফ এ অর্জন করে ফিরে আসেন নিজ শহর মাগুরাতে। মনোনিবেশ করেন  চিত্র কলায়। গড়ে তোলেন নিজস্ব আর্ট প্রতিষ্ঠান। মাঝে কিছুদিন স্থানীয় একটি স্কুলে শিক্ষকতাও করেন।

বর্তমানে দুই কন্যা সন্তানের জনক শতভাগ পেশাদার এই ব্রতী শিল্পী ‘নন্দন চারুপীঠ’ নামে একটি অংকন প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী। তিনি মাগুরার বিভিন্ন এলাকায়  সুবিধা-বঞ্চিত শিশুদের সম্পূর্ণ বিনামুল্লে ছবি অংকন শিক্ষা দেন এবং নিজ খরচে ছবি আঁকার সামগ্রী বিতরণ করেন।

মাগুরা শহরের পার্শ্ববর্তী মালিক গ্রামে ‘মুক্তি- গাঁথা’ নামে একটি ছবি অংকন বিদ্যালয় আছে যেখানে চিত্র শিল্পী পান্না প্রতি সপ্তাহে দুইদিন সুবিধা-বঞ্চিত শিশুদের সম্পূর্ণ বিনামুল্লে ছবি আঁকা শেখান। এখানে একটি পাঠাগারও আছে। যেখানে এসব দরিদ্র শিশুরা বই পড়তে পারে। তিনি ছোট্ট বাচ্চাদের মাঝে বিনামুল্যে বই ও বিতরণ করেন।

এই শিল্পী যখন বাই-সাইকেল চালিয়ে তার কর্মক্ষেত্রে যান তখন বাচ্চা ছেলে মেয়েরা হ্যামেলিয়নের বাঁশিওয়ালার মতো তার পিছু নেয়। প্রচার বিমুখ এই চিত্র সাধক রামনগর, আলোকদিয়া, বরুনইতৈল, আঠারখাদা, হাজিপুর সহ অনেক এলাকায় এ ধরনের সুবিধা-বঞ্চিত শিশুদের জনে ফ্রী-ক্যাম্পের মাধ্যমে ছবি আঁকা শেখান। জনাব শামসুজ্জামানের স্বপ্ন- এসব সুবিধা-বঞ্চিত শিশুরা যেন মানসিক বুৎপত্তি লাভের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে পারে।

মাগুরার  ঐতিহ্যবাহী নদী নবগঙ্গার নাম অনুকরণে ‘নবগঙ্গা’ নামে একটি পাঠাগার করার স্বপ্নও রয়েছে তার। তার এসব স্বপ্ন পূরণের প্রত্যয়ে তিনি একাকী পথ চলছেন প্রায় চার দশক ধরে। শামসুজ্জামান পান্নার একার পক্ষে তার স্বপ্ন পূরণ অত্যন্ত দুরূহ। তাই সরকার এবং সমাজের বিত্তবানদের তার পাশে এসে দাঁড়াতে হবে।      


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ