আব্দুর রহমান
প্রকাশ ০২/০১/২০২১ ১১:২৩এ এম

নারীনেত্রী মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম আর নেই

নারীনেত্রী মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম আর নেই Ad Banner

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শনিবার ভোরে রাজধানীর বিআরবি হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। ঢাকার নিজ বাসায় রাতে অসুস্থ হয়ে পড়লে আয়শা খানমকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু শনিবার এক বিবৃতিতে আয়শা খানমের মৃত্যুর কথা জানান।

তিনি আরও জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে আয়শা খানমের মরদেহ সেগুনবাগিচায় মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে থাকবে। সেখানে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হবে। পরে নেত্রকোনায় জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত করা হবে বলে জানান তিনি।

ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সহসভাপতি আয়শা খানম বাষট্টির ছাত্রআন্দোলন, ঊনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান এবং মুক্তিযুদ্ধসহ সব আন্দোলনের সক্রিয় সংগঠক ছিলেন। আয়শা খানমের জন্ম নেত্রকোনার গাবড়াগাতি গ্রামে ১৯৪৭ সালের ১৮ অক্টোবর। তার বাবার নাম গোলাম আলী খান এবং মা জামাতুন্নেসা খানম। পাকিস্তান আমলে হামুদুর রহমান শিক্ষা কমিশন বাতিলের দাবিতে ১৯৬২ সালের ছাত্র আন্দোলনে যুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে রাজনীতিতে পা রাখেন তিনি। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি রোকেয়া হল ছাত্র সংসদের সহসভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৭১ সালে ছাত্র ইউনিয়নের সহসভাপতি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে ঢাকায় শিক্ষার্থীদের সংগঠিত করতে নামেন তিনি।

ডামি রাইফেল হাতে ঢাকায় নারী শিক্ষার্থীদের মিছিলের যে ছবি আলোচিত হয়, তাতে আয়শা খানমও ছিলেন। মহিলা পরিষদের পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়, আয়শা খানম বাষট্টির ছাত্র আন্দোলন, উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান, মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সব প্রগতিশীল আন্দোলনের সক্রিয় সংগঠক ছিলেন।

তিনি ছাত্রজীবন শেষে বঞ্চিত অধিকারহীন নারীদের অধিকার আদায়ে আমৃত্যু নিয়োজিত ছিলেন। তার মৃত্যুতে বাংলাদেশের নারী আন্দোলন এক অকৃত্রিম অভিভাবককে হারাল।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ