Feedback

সারাবিশ্ব

করোনার চিকিৎসায় সুফল পাচ্ছে আরব আমিরাত!

করোনার চিকিৎসায় সুফল পাচ্ছে আরব আমিরাত!
April 14
04:36pm
2020
MD Satu Verify Icon
Gopalpur, Tangail, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore
করোনা ভাইরাস বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে থাবা বসিয়েছে। এর বিষাক্ত ছোবলে প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এখন পর্যন্ত কোনও প্রতিষেধক আবিষ্কার না হওয়ায় গোটা বিশ্ব যেন অসহায় হয়ে পড়েছে এই করোনা ভাইরাসের কাছে। তবে করোনার চিকিৎস্যায় ম্যালেরিয়ার প্রতিষেধক হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহার করে সুফল পাচ্ছেন বলে জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের চিকিৎসকরা। শনিবার একটি সংবাদ সম্মেলনে আরব আমিরাতের চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আরব আমিরাতে ৩৭৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। এছাড়া দেশটিতে এ পর্যন্ত প্রায় ৫৮৮ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন বলেও ওই সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে আরব আমিরাতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ডা. ফরিদা আল হোসাইনি বলেন, দেশের অধিকাংশের মধ্যেই করোনার মৃদু সংক্রমণ পাওয়া গেছে। আর যাদের বেশি জ্বর এবং শ্বাস কষ্ট রয়েছে তাদেরকে বাধ্যতামূলক পরীক্ষা করানো হচ্ছে। করোনা ভাইরাস ঠেকাতে আরব আমিরাতের চিকিৎসার বিষয়ে ডা. ফরিদা আল হোসাইনি বলেন, আমরা হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং বিভিন্ন অ্যান্টি ভাইরাল ওষুধ ব্যবহার করছি। এসব ওষুধ কার্যকর হওয়ায় এগুলো বেশি ব্যবহার করছি। এছাড়াও সংযুক্ত আরব আমিরাতে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে যাওয়া রোগীদের রক্তের প্লাজমা দিয়েও চিকিৎসার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। ইতোমধ্যে আরব আমিরাতে এই চিকিৎসা ব্যবস্থার পরীক্ষা চালানো হচ্ছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে ডা. ফরিদা আল হোসাইনি বলেন, যারা করোনা থেকে সুস্থ হয়ে গেছেন তাদের রক্ত সংগ্রহ করা হচ্ছে। ওই রক্তের প্লাজমা আক্রান্তের শরীরে দেওয়া হবে যাতে তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠে। ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, আরব আমিরাতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৭৬ জন। মারা গেছেন ২০ জন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

সর্বশেষ

লকডাউন প্রত্যাহারের দাবিতে স্পেনে বিক্ষোভ!

লকডাউন প্রত্যাহারের দাবিতে স্পেনে বিক্ষোভ!

নোবেল পুরষ্কারের জন্যে মনোনীত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আবিদ

নোবেল পুরষ্কারের জন্যে মনোনীত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আবিদ

সনেট কবিতাঃএতো মায়া ! কবি- মোঃজাহাঙ্গীর আলম!

সনেট কবিতাঃএতো মায়া ! কবি- মোঃজাহাঙ্গীর আলম!

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার,  সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার, সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২