Wednesday -
  • 0
  • 0
Md. Motahar hossain.
Posted at 23/11/2020 09:55:am

রংপুরের মিঠাপুকুরে ১ সপ্তাহে প্রতিবন্ধী শিশু কলেজ ছাত্রীসহ চার নারী ধর্ষনের শিকার

রংপুরের মিঠাপুকুরে ১ সপ্তাহে প্রতিবন্ধী শিশু কলেজ ছাত্রীসহ চার নারী ধর্ষনের শিকার

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় এক সপ্তাহে প্রতিবন্ধী, শিশু ও কলেজ ছাত্রীসহ চার নারী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে ১জন প্রতিবন্ধী, ১জন কলেজ ছাত্রী, ১জন মাদ্রাসা ছাত্রী ও ১জন শিশু। তন্মধ্যে প্রতিবন্ধী ঐ নারী হুইল চেয়ারে বসে চলাফেরা করে। এসব ঘটনায় পৃথক ৪টি মামলা হয়েছে।     

স্থানীয় বাসিন্দা, ভুক্তভোগী ও থানা সুত্রে জানা যায়, গত এক সপ্তাহের মধ্যে ৪ নারী ও শিশু ধর্ষনের শিকার হয়েছে। ২১ নভেম্বর মিঠাপুকুর উপজেলার বৈরাগীগঞ্জ এলাকা থেকে ভক্তিপুর গ্রামের ১কলেজ ছাত্রীকে উপর্যূপরি ধর্ষন করেছে মিজানুর রহমান নামে বিরাহিমপুর গ্রামের এক যুবক। এঘটনায় ওই ছাত্রীর মারাতœক রক্তক্ষরন হওয়ায় স্বজনেরা তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। ধর্ষনের শিকার ওই ছাত্রী বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি)-তে চিকিৎসাধীন। ধর্ষনের ২য় ঘটনা ঘটে গত ১৯ নভেম্বর মিঠাপুকুর উপজেলার সরকারপাড়া পদাগজ্ঞ গ্রামে।

৬ষ্ঠ শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন করেছে একই গ্রামের মুকুল মিয়ার ছেলে সাতগাড়া আলীয়া মাদ্রাসার ছাত্র মোরশেদ। ধর্ষনের ৩য় ঘটনা ঘটে উপজেলার বড়বালা আটপুনিয়া গ্রামে। স্থানীয় মাদ্রাসার আলীম পড়–য়া ছাত্রীকে একই এলাকার প্রভাবশালী ইট ভাটার মালিক মোবারক আলীর ছেলে রেজওয়ান ধর্ষন করেছে। ধর্ষনের শিকার ছাত্রীর আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোকজন এসে ধর্ষক রেজওয়ানকে ধরে ফেললে তার বাবা লোকজন নিয়ে এসে ধর্ষিতার বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে ধর্ষক ছেলেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ধর্ষনের ৪র্থ ঘটনা ঘটে উপজেলার ছড়ান আদর্শপাড়া গ্রামে।

নুরু মন্ডলের ছেলে ২সন্তানের জনক ডেকোরেটর কর্মী আশরাফুল ইসলাম একই গ্রামের প্রতিবন্ধী হুইল চেয়ার ছাড়া চলতে পারেনা এমন ১নারীকে বিয়ের প্রলোভনে সময় সুযোগে একাধিকবার ধর্ষন করে। ফলে ওই প্রতিবন্ধী নারী বর্তমানে ৭ মাসের গর্ভবতী। ওই প্রতিবন্ধীর মা ধর্ষনের শিকার প্রতিবন্ধী মেয়েকে হুইল চেয়ার ঠেলে বিচারের আশায় থানায় নিয়ে আসেন। এ সকল ঘটনায় পৃথক ৪টি ধর্ষন মামলা হয়েছে। পুলিশ কোন ধর্ষককেই গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো ধর্ষক ও তাদের  লোকজনের মামলা তুলে নেয়ার হুমকির মুখে নির্যাতিতদের পরিবার আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন মর্মে তারা অভিযোগ করছেন। এসব ঘটনাসহ বিভিন্নস্থানে সাম্প্রতিক কালের নারী নির্যাতন ধর্ষন বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তিপ্রিয় সাধারন মানুষ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।       

মিঠাপুকুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, নারী নির্যাতন ধর্ষনসহ সব ধরনের অপরাধ প্রতিরোধে প্রতিটি এলাকায় নিয়মিত বিট পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি প্রতিটি মামলা গুরুত্বের সাথে তদন্ত কার্যক্রম চালানো হচ্ছে এবং ধর্ষকদের গ্রেফতার করার জন্য তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ