Feedback

জেলার খবর, অপরাধ, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা বাজারে ‘বস বাহিনী’র আবির্ভাব

সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা বাজারে ‘বস বাহিনী’র আবির্ভাব
November 22
11:26pm
2020
জাহাঙ্গীর আলম কবীর
Satkhira, Satkhira:
Eye News BD App PlayStore

এক নব মুসলিম মাসুদুর রহমান এখন সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা বাজারের ‘বস’। তিনি সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা বাজার ইজারা নিয়ে গড়ে তুলেছেন একটি ‘বস বাহিনী’। কোথাও কিছু ঘটলে বাহিনী সদস্যরা তৎপর হয়ে ওঠে।

বাজারে সরকারি জমি দখলসহ বিভিন্ন ঘটনায় নাম আসছে এই বাহিনীর। এই ‘বস বাহিনী’র সদস্যরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বাজার ও আশেপাশের এলাকায়। বাহিনীর সদস্যরা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। এদের অনেকেই নাশকতা মামলার আসামি।

বসের নিয়ন্ত্রিত এলাকায় কোন ঘটনা ঘটলে তার বাহিনী সদস্যরা চলে যায় ঘটনাস্থলে। এরপর তার এ্যগ্রো ফার্মের অফিসে ধরে আনেন বিচারের জন্য। এভাবেই ঝাউডাঙ্গা বাজারে আবির্ভাব হয়েছে ‘বস’ নামের ‘নব্য সাহেদ’। পুলিশ তাকে জানে চেনে। ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়নের পাথরঘাটা গ্রামে শিশু ধর্ষণ ঘটনায় ‘বস’ তৎপর। ধর্ষণ ঘটনা নিয়ে টাকার খেলা শুরু করেছে।

ধর্ষককে বাঁচাতে ঝাউডাঙ্গা বাজারের এই ‘বস বাহিনী’র সদস্যরা মাঠে নেমেছে। ধর্ষককে শিশু বানানোর জন্য দরবার চালাচ্ছে। ধর্ষককে সহযোগিতা করতে সকল ধরনের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ওই ‘বস বাহিনী’র সদস্যরা ধর্ষকের পক্ষে কাগজপত্র তৈরি করছে টাকা দিয়ে।

‘বস বাহিনী’র সদস্যদের দাবি, তার হাত অনেক লম্বা। রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে রয়েছে গোপন গভীর সম্পর্ক। পুলিশের দারোগাদের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে তার ঝাউডাঙ্গা এ্যাগ্রা ফার্মের অফিসে। 

ঝাউডাঙ্গা বাজারে সরকারি জমি দখল করে পাঁকা ঘর নির্মাণের প্রতিযোগিতা চলছে। এক সাথে ৪ জায়গায় ঘর নির্মাণ করা চলছে। রাতে বিপুল সংখ্যক লেবার দিয়ে ঘর নির্মাণ করা হচেছ। সরকারি বাজারের খাস জমি দখল করে পাকা ঘর নির্মাণ করা হলেও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচেছ না। বেতনা ভাংড়াখালির জমি দখল করে ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। বাসস্ট্যান্ড এ পশ্চিম পাশে ঘর নির্মাণ করা হচেছ। বাজারের ৩নং গলিতে বিরাট পাকা ঘর নির্মাণ করা হচেছ। দখলের ঘটনা সকলে দেখছে। দেখছে না ঝাউডাঙ্গা ভূমি অফিস। ‘বস’-এর টাকা পেয়ে চোখ খুলছে না এই অফিসের কর্তারা।

‘বস’কে নিয়ে নানা আলোচনা চলছে ঝাউডাঙ্গা বাজারে। জাল টাকাসহ নাকি একবার ধরাও পড়েছে।

কে এই ‘বস’? কে তার পিতা? কি তার পরিচয়? কোথায় তার বাড়ি? কি তার বৈধ ব্যবসা? কি কাজ করেন? কেন তিনি টাকা উড়িয়ে বাহিনী পুষতে চান? কি তার উদ্দেশ্য? ধর্ম পরিবর্তনের আগে কি নাম ছিল? তা জানা যায়নি।

তার মোবাইল নম্বর দেন না একান্ত নিজস্ব লোক ছাড়া অন্য কারোর কাছে। আবার যাদের কাছে তার মোবাইল নম্বর আছে তাদেরও অন্যকারোর এই নম্বর দেয়া নিষেধ। এই বসের আসল পরিচয় সকলের কাছে অজানা। কেউ সঠিক না জানলেও ঝাউডাঙ্গার মানুষ জানে ভারতে তার স্ত্রী-সন্তান ও দু’টো আঙুর ফলের বাগান আছে। শুকরের মাংস বিদেশে রপ্তানি করে। বেনাপোল স্থলবন্দরে তার আমদানি-রপ্তানির ব্যবসা আছে। ট্রাকের ব্যবসা করেন। সোনা চোরাচালান, মাদক ও জাল টাকার ব্যবসার সাথে জড়িত। কোটি কোটি টাকার মালিক। টাকা ছড়ান মুঠো মুঠো। থাকেন কখনো দেশে, কখনো বিদেশে। ঢাকা খুলনা তার পায়ের নিচে। শুনেছে, আদি বাড়ি যশোরের কেশবপুর। আর তার ছবি তোলা নিষেধ। 

‘বস’ মাসুদুর রহমান পত্রিকা বের করবেন ‘দৈনিক চাঁদমামা’। পত্রিকা ছাপার জন্য প্রেস নাকি এসে গেছে। ‘দৈনিক চাঁদমামা’র স্টিকার মেরেছেন জেলা জুড়ে। 

ঝাউডাঙ্গার ওয়ারিয়া গ্রামে ‘বস’ মাসুদুর রহমান বেতনা নদীর ভেতর থেকে পাকা করে নির্মাণ করেছেন বিশাল বাড়ি। লাগিয়েছেন সিসি ক্যামেরা। রাতের বেলায় বৈদ্যুতিক আলোয় ঝলমল করে তার বাড়ির চারপাশ। সন্ধ্যার পর এখানে নিরিবিলি টেনিস খেলতে আসে দূরদূরান্তের অপরিচিত মানুষ। বাড়ির গেটে একাধিক প্রহরী। ইচ্ছে করলে যে কেউ প্রবেশ করতে পারে না এই বাড়ির ভেতরে।

খালি গায়ে হাফ প্যান্ট পরে মোটর সাইকেল চালান ‘বুলেট’। গাড়ি চড়েন দামি ‘প্যারোডো। নিজের ধর্ম ত্যাগ করে তিনি মুসলিম হয়েছেন। মুসলমান নাম ধারণ করে বিয়ে করেছেন ঝাউডাঙ্গা বাজারের এক মেয়েকে। শ্বশুরকে বানিয়েছেন নিজের বাবা। ধর্ম পরিবর্তন করে মুসলিম হলেও নিয়মিত নামাজ না পড়ে আর্থিক সহযোগিতা করেন পূজার মন্ডপে। 

‘বস’ ঝাউডাঙ্গায় এসে বিভিন্নভাবে টাকা খরচ করছেন পানির মত। হাট-বাজারে নিজ অর্থে গড়ে তুলেছেন ছোটখাট ক্লাব-সমিতি। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ইউনিয়নের সকল এলাকা নিয়ন্ত্রণ নেবার জন্য চলছে তার আগাম প্রস্তুতি। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে তার মনোনীত ব্যক্তিদের নামিয়ে দিয়েছেন চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য। এলাকার যুবকদের ভিড়িয়ে নিচ্ছেন নিজ দলে।

তার প্রভাবে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা। এখন তার দাওয়াতের হিড়িক পড়েছে। অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন বিভিন্ন সভা ও অনুষ্ঠানে। দাওয়াত দিলেই টাকা দেওয়া শুরু করেন। আবার অনেক সভায় যেয়ে মোটা অংকের টাকা দেওয়ার ওয়াদাও করেন।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

ভারত-পাকিস্তান-বাংলাদেশ মিলে একটি দেশ হওয়া উচিত

ভারত-পাকিস্তান-বাংলাদেশ মিলে একটি দেশ হওয়া উচিত

কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলায় আ.লীগ নেতা রিমান্ডে

কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলায় আ.লীগ নেতা রিমান্ডে

কিশোরগঞ্জে বাড়ির পরিত্যক্ত স্থান থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার

কিশোরগঞ্জে বাড়ির পরিত্যক্ত স্থান থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার

বলিউডে না এসেও ১০০ কোটির মালিক রশ্মিকা

বলিউডে না এসেও ১০০ কোটির মালিক রশ্মিকা

মিঠাপুকুরে নিখোঁজের ৪দিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার

মিঠাপুকুরে নিখোঁজের ৪দিন পর শিশুর লাশ উদ্ধার

উত্তরে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’

উত্তরে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’

মুফতিকে বিয়ে করে তোলপাড় ভারতীয় মিডিয়া, বিয়ের পর নামও বদলালেন সানা খান

মুফতিকে বিয়ে করে তোলপাড় ভারতীয় মিডিয়া, বিয়ের পর নামও বদলালেন সানা খান

শীতে পা ফাটা রোধে যা করবেন

শীতে পা ফাটা রোধে যা করবেন

সিলেট নগরীতে তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে নববধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

সিলেট নগরীতে তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে নববধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

রমিজকে তুলোধুনো করলেন হাফিজ

রমিজকে তুলোধুনো করলেন হাফিজ

বালিয়াডাঙ্গীতে বিনামূল্যে বীজ ও সার পাচ্ছেন ৫৭৮০ জন কৃষক

বালিয়াডাঙ্গীতে বিনামূল্যে বীজ ও সার পাচ্ছেন ৫৭৮০ জন কৃষক

রংপুরের মিঠাপুকুরে ১ সপ্তাহে প্রতিবন্ধী শিশু কলেজ ছাত্রীসহ চার নারী ধর্ষনের শিকার

রংপুরের মিঠাপুকুরে ১ সপ্তাহে প্রতিবন্ধী শিশু কলেজ ছাত্রীসহ চার নারী ধর্ষনের শিকার

এক ভবনে তিন ধর্ম

এক ভবনে তিন ধর্ম

হত্যার ১৪ বছর পর ফাঁসির আসামী গ্রেপ্তার

হত্যার ১৪ বছর পর ফাঁসির আসামী গ্রেপ্তার

সঙ্গীতার ব্যানারে আসছে আলম শাহ এর 'ভিতর জ্বলে বাহিরে জ্বলে'

সঙ্গীতার ব্যানারে আসছে আলম শাহ এর 'ভিতর জ্বলে বাহিরে জ্বলে'

সর্বশেষ

এখন আরও ফেমাস মিন্নি, মিন্নিকে দেখলে এখন ছবি তুলতে আসে সবাই

এখন আরও ফেমাস মিন্নি, মিন্নিকে দেখলে এখন ছবি তুলতে আসে সবাই

আদালতের নির্দেশে পাখির বাসার জন্য আমবাগান ভাড়া নিয়েছে সরকার

আদালতের নির্দেশে পাখির বাসার জন্য আমবাগান ভাড়া নিয়েছে সরকার

পাকিস্তানী যুবকের প্রেমে কিয়ারা

পাকিস্তানী যুবকের প্রেমে কিয়ারা

যীশুকে খুঁজতে গিয়ে খুঁজে পেয়েছি মুহাম্মাদ (সা.) কে : লরেন বুথ

যীশুকে খুঁজতে গিয়ে খুঁজে পেয়েছি মুহাম্মাদ (সা.) কে : লরেন বুথ

ডিজিটাল আইনের মামলায় জামিন পেয়েছেন ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল

ডিজিটাল আইনের মামলায় জামিন পেয়েছেন ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল

আবহাওয়ার অনুকুল পরিবেশে পাইকগাছায় আমনের বাম্পার ফলন

আবহাওয়ার অনুকুল পরিবেশে পাইকগাছায় আমনের বাম্পার ফলন

আমতলী কওমি মাদ্রাসা শিক্ষকের নির্মম নির্যাতন, বিচার দাবীকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আমতলী কওমি মাদ্রাসা শিক্ষকের নির্মম নির্যাতন, বিচার দাবীকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে যুবকের আত্মহত্যা

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে যুবকের আত্মহত্যা

আমতলী থানা পুলিশের জব্দকৃত গাছ চুরি স্ব-মিল থেকে উদ্ধার!

আমতলী থানা পুলিশের জব্দকৃত গাছ চুরি স্ব-মিল থেকে উদ্ধার!

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায়

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায়

করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের ভয়াবহতা মোকাবেলায় ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ

করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের ভয়াবহতা মোকাবেলায় ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ

পরিবারের সবার সুস্বাস্থ্যের জন্য মেনে চলুন ৫ পরামর্শ

পরিবারের সবার সুস্বাস্থ্যের জন্য মেনে চলুন ৫ পরামর্শ

খুলনার পাইকগাছায় আরো একটি পৌরসভা গঠনের কার্যক্রম শুরু

খুলনার পাইকগাছায় আরো একটি পৌরসভা গঠনের কার্যক্রম শুরু

সেই রাতের ঘটনায় স্তম্ভিত মন্দানা

সেই রাতের ঘটনায় স্তম্ভিত মন্দানা

বগুড়া পুলিশ পেলো  ৯৯৯ সেবায় ৩ টি গাড়ী

বগুড়া পুলিশ পেলো ৯৯৯ সেবায় ৩ টি গাড়ী