Feedback

জাতীয়

গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে থানায় তিন মামলা সোপর্দ

গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে থানায় তিন মামলা সোপর্দ
November 22
12:31pm
2020
MD Emran
Bhaluka, Mymensingh:
Eye News BD App PlayStore

রাজধানীর বাড্ডা থানায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটডিলিয়ন (র‌্যাব)। পরে আজ রোববার ভোর সোয়া ৬টার দিকে তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়। বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পারভেজ ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্রসহ বিদেশে মদ ও বিদেশি মুদ্রা রাখার অভিযোগে তিনটি আলাদা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ প্রত্যেকটি মামলায় আলাদা করে তার সাত দিনের করে রিমান্ড চাইবে।’ 

এর আগে, গত ২০ নভেম্বর দিনগত রাত থেকে মনিরের বাড্ডাস্থ বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। গ্রেপ্তারের পর করা ব্রিফিংয়ে বাড্ডার ১১ নম্বর রোডে অবস্থিত ছয়তলা ভবনের সেই বাসা থেকে অস্ত্র, মাদকসহ বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা, স্বর্ণ ও নগদ টাকা জব্দ করার বিষয়টি জানায় র‌্যাব। 

বিফ্রিংয়ে রাজধানীর গাউছিয়া মার্কেটের কাপড়ের দোকানের সাধারণ বিক্রয়কর্মী মনিরের ‘গোল্ডেন মনির’ হয়ে ওঠার গল্প জানান র‍্যাবের পরিচালক (আইন ও মিডিয়া) লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ। তিনি বলেন, ‘অভিযানকালে মনিরের বাসা থেকে ১০টি দেশের বৈদেশিক মুদ্রা (বাংলাদেশি ৯ লাখ টাকা), ৬০০ ভরি সোনা (প্রায় আট কেজি) ও এক কোটি ৯ লাখ টাকা নগদ জব্দ করেছি।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘অভিযুক্ত মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনির মূলত একজন হুন্ডি ব্যবসায়ী, স্বর্ণ চোরাকারবারি এবং ভূমির দালাল। তিনি একটি গাড়ির শোরুমের সত্ত্বাধিকারী। পাশাপাশি গাউছিয়াতে একটি স্বর্ণের দোকানের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা রয়েছে।’আমরা তার বাসা থেকে দুটি বিলাসবহুল অনুমোদনহীন বিদেশি গাড়ি জব্দ করেছি। যার একেকটির মূল্য প্রায় ৩ কোটি টাকা। পাশাপাশি তার কার সিলেকশন থেকেও তিনটি বিলাসবহুল অনুমোদহীন গাড়ি জব্দ করা হয়েছে,’ যোগ করেন আশিক বিল্লাহ। 

তিনি বলেন, ‘গ্রেপ্তারকৃত মনির ৯০ দশকে গাউছিয়া মার্কেটে কাপড়ের দোকানের বিক্রয়কর্মী ছিলেন। পরবর্তী সময়ে ক্রোকারিজ, লাগেজ ব্যবসা (ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন পণ্য দেশে আনা) এবং এক পর্যায়ে স্বর্ণ চোরাকারবারের সঙ্গে তিনি নিজেকে জড়িয়ে ফেলেন। তিনি বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ অবৈধ পথে বিদেশ থেকে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছেন।’ 

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘মনিরের স্বর্ণ চোরাচালানের রুট ছিল ঢাকা-সিঙ্গাপুর এবং ভারত। এই সব দেশ থেকে তিনি ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ বাংলাদেশে আমদানি করেছেন। যার ফলশ্রুতিতে তার নাম হয়ে যায় গোল্ডেন মনির।’

স্বর্ণ চোরাকারবারের জন্য মনিরের বিরুদ্ধে ২০০৭ সালে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয় বলেও জানান তিনি। 

তিনি আরও বলেন, ‘গোল্ডেন মনিরের আরেকটি পরিচয় আছে- ভূমিদস্যু। রাজউকের কতিপয় কর্মকর্তার সঙ্গে যোগসাজশে তিনি বিপুল পরিমাণ অর্থ-সম্পদের মালিক হয়েছেন। ঢাকা শহরের ডিআইটি প্রজেক্ট, পাশাপাশি বাড্ডা, নিকুঞ্জ, উত্তরা এবং কেরানীগঞ্জে তার দুই শতাধিকের বেশি প্লট আছে বলে জানতে পেরেছে র‌্যাব।’ ইতোমধ্যে মনির ৩০টি প্লটের কথা প্রাথমিকভাবে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছেন বলেও জানান তিনি। 

র‌্যাবের পরিচালক বলেন, ‘মনির রাজউকের কাগজপত্র জাল-জালিয়াতি করে বিপুল পরিমাণ অর্থ-সম্পদের মালিক হয়েছেন। স্বর্ণ চোরাকারবারি করে তার যে সম্পদের পরিমাণ, সেটি প্রায় এক হাজার ৫০ কোটি টাকার ঊর্ধ্বে।’আমরা প্রাথমিকভাবে তার বিরুদ্ধে আরও বেশ কিছু অভিযোগ পেয়েছি। তার বিরুদ্ধে তদন্ত করার জন্য দুদক, বিআরটিএ, মানিলন্ডারিংয়ের জন্য সিআইডি এবং ট্যাক্স ফাঁকি বা এ সংক্রান্ত বিষয়ে এনবিআরকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ জানাবে র‌্যাব,’ যোগ করেন আশিক বিল্লাহ।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

সরিষাবাড়ীতে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা থাকছে হাবিপ্রবির নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবনে

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

ফেইসবুকে ফেইক আইডি খুলে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত আটক ১

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

জামালপুরের ভ্যান চালক শম্পার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

প্রতি ১০ মিনিটে একটি শিশু মারা যাচ্ছে ইয়েমেনে

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

নারী থেকে "পুরুষ" হলেন হলিউড তারকা

নারী থেকে "পুরুষ" হলেন হলিউড তারকা

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

হিন্দি বলতে না পারায় সিনেমা থেকে বাদ দেন জন, তারই নায়িকা হয়ে বদলা নেন ক্যাটরিনা

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

জেনে নিন কী কী গুণ রয়েছে গোলমরিচে

সর্বশেষ

বুকের রক্ত দিয়ে হলেও জাতির পিতার ভাস্কর্য যথাসময়ে যথাস্থানে স্থাপন হবে

বুকের রক্ত দিয়ে হলেও জাতির পিতার ভাস্কর্য যথাসময়ে যথাস্থানে স্থাপন হবে

জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে সরকার অপপ্রচার করছেলঃভিপি নূর

জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে সরকার অপপ্রচার করছেলঃভিপি নূর

ধারাবাহিক আল কোরআন; সূরা আল বাকারা, আয়াত ৭৮, বাংলা তরজমা ও তাফসির!

ধারাবাহিক আল কোরআন; সূরা আল বাকারা, আয়াত ৭৮, বাংলা তরজমা ও তাফসির!

শ্বশুরের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিবন্ধি ছেলের বউকে নির্যাতন

শ্বশুরের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিবন্ধি ছেলের বউকে নির্যাতন

শিখে নিন 'ইমিউনিটি বুস্টিং' চাটনি, টোম্যাটোর সঙ্গে বিশেষ সব্জি

শিখে নিন 'ইমিউনিটি বুস্টিং' চাটনি, টোম্যাটোর সঙ্গে বিশেষ সব্জি

শেরপুর জেলার সংবাদ

শেরপুর জেলার সংবাদ

মধুসূদন দে স্মৃতি ভাস্কর্য’র  একটি কান ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

মধুসূদন দে স্মৃতি ভাস্কর্য’র একটি কান ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

শীতকালে বাড়ে ধূলিকণার দূষণ, সাথে বাড়ছে ফুসফুসের নানা জটিলতা

শীতকালে বাড়ে ধূলিকণার দূষণ, সাথে বাড়ছে ফুসফুসের নানা জটিলতা

চব্বিশ ঘন্টায় সিলেটে ৩০ জনের করোনা শনাক্ত

চব্বিশ ঘন্টায় সিলেটে ৩০ জনের করোনা শনাক্ত

সগিরা মোর্শেদ হত্যা : মামলার বিচার শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা : মামলার বিচার শুরু

ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল কিনবে সরকার

ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল কিনবে সরকার

কী খাচ্ছেন? মধু নাকি সিরাপ

কী খাচ্ছেন? মধু নাকি সিরাপ

নতুন সাফল্য নাসার বিজ্ঞানীদের, মহাশূন্যে মুলোচাষ, পৃথিবীতেও আসবে নমুনা

নতুন সাফল্য নাসার বিজ্ঞানীদের, মহাশূন্যে মুলোচাষ, পৃথিবীতেও আসবে নমুনা

সৌদি আরবে করোনায় ৯৮০ বাংলাদেশির মৃত্যু

সৌদি আরবে করোনায় ৯৮০ বাংলাদেশির মৃত্যু

সৈয়দপুরে বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই নিহত

সৈয়দপুরে বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই নিহত