Feedback

জেলার খবর, সাতক্ষীরা, ভ্রমণ

সাতক্ষীরার দর্শনীয় নলতা শরীফ

সাতক্ষীরার দর্শনীয় নলতা শরীফ
November 22
09:28am
2020
Sk Shakil Ahmed
Tala, Satkhira:
Eye News BD App PlayStore

নলতা শরীফ সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার নলতা গ্রামে অবস্থিত। নলতা গ্রামেই জন্মগ্রহন করেন প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, শিক্ষা সংস্কারক ও সমাজহিতৈষী খান বাহাদুর আহসানউল্লাহ। ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তাঁর অবদান অনস্বীকার্য এছাড়াও আউলিয়া হিসাবে তিনি ছিলে সমাদৃত। ১৯৬৫ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি খান বাহাদুর আহসানউল্লাহ-র মৃত্যুর পর তাঁকে নলতায় সমাহিত করা হয়। পরবর্তীকালে তাঁর সমাধিস্থলকে কেন্দ্র করে বর্তমানে খান বাহাদুর আহসানউল্লাহ সমাধি কমপ্লেক্স বা নলতা শরীফ গড়ে উঠেছে।

বাংলাদেশে সমাজ সংস্কার ও ইসলাম প্রচারের জন্য যে সকল ব্যক্তি তাদের প্রচেষ্টা ব্যয় করেছেন তার মধ্যে খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ অন্যতম। তিনি সাতক্ষীরা তথা বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত ব্যক্তি। তার ওফাতের পর তার নাম অনুসারে সাতক্ষীরা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে নানানপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। তার স্মৃতি ধন্য সাতক্ষীরার নলতা শরীফ বর্তমানে একটি দর্শনীয় স্থান।

বাংলাদেশের বিখ্যাত আহছানিয়া মিশনের প্রতিষ্ঠাতা এই খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ। 

খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ ১৮৭৩ সালের ২৭ ডিসেম্বর এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মুন্সী মোহাম্মদ মুফিজ উদ্দিন এবং মায়ের নাম মোছা: আমিনা বেগম। স্থানীয় স্কুলে লেখাপড়া শেষে আহসান উল্লাহ উচ্চ শিক্ষার জন্য কলকাতা যান এবং ১৮৯৫ সালে প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে দর্শনে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ছিলেন রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের প্রথম মুসলিম প্রধান শিক্ষক। তিনিই ছিলেন প্রথম ব্যক্তি যিনি ব্রিটিশ সরকারের অধীনে অবিভক্ত বাংলার শিক্ষা বিভাগে একজন মুসলমান হিসেবে যোগ দেন এবং সহকারী ডিরেক্টর পদ পর্যন্ত অলঙ্কৃত করেন। এছাড়াও তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সিনেটর ছিলেন।

নলতা শরীফের প্রায় ৪০ বিঘা জমির ওপর মসজিদ, মাজার, লাইব্রেরি, অফিস, অতিথিশালা, স্বাস্থ্যকেন্দ্র, পুকুর এবং ফুলের বাগানে একটি দৃষ্টিনন্দন সমাধি সৌধ রয়েছে। সমাধি সৌধের তিন দিকে ৩ টি সিঁড়িপথ তৈরি করা হয়েছে। প্রধান সিঁড়িপথ তুলনামূলক প্রশস্থ এবং আকর্ষণীয়। সমাধি সৌধে রয়েছে একটি কেন্দ্রীয় গম্বুজসহ মোট ৯ টি দর্শনীয় গম্বুজ। প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসের ৮, ৯ এবং ১০ তারিখ খান বাহাদুর আহসানউল্লাহর মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে নলতা শরীফে বার্ষিক ওরস মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ওরস উপলক্ষ্যে নলতায় মেলার আয়জন করা হয়। এসময় মেলা দেখতে এবং ওরসে যোগ দিতে সারাদেশ থেকে হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী নলতা শরীফ ছুটে আসেন। এছাড়া নলতা শরীফে ১৯৫০ সাল থেকে প্রতি রমজানে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হচ্ছে।

নলতা শরীফ সারাবছর দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকে। তবে নলতা শরীফে অবস্থিত জাদুঘর সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত খোলা থাকে।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

জয়পুরহাট জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে সভাপতি আ’লীগের, সম্পাদক বিএনপির

জয়পুরহাট জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে সভাপতি আ’লীগের, সম্পাদক বিএনপির

৭১ টিভি চ্যানেলে ৫৬ টি বিদ্যালয় নিয়ে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে বরগুনায় শিক্ষকদের মানববন্ধন

৭১ টিভি চ্যানেলে ৫৬ টি বিদ্যালয় নিয়ে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে বরগুনায় শিক্ষকদের মানববন্ধন

শীতের সকালেও উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন মধুমিতা

শীতের সকালেও উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন মধুমিতা

সর্বশেষ

সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনের আগে ভাগেই প্রচারণার আমেজ

সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনের আগে ভাগেই প্রচারণার আমেজ

পানিতে সারা-বরুণের ঠোঁটঠাসা চুমু, "কুলি নম্বর ১"এর ট্রেলার নিয়ে হইচই

পানিতে সারা-বরুণের ঠোঁটঠাসা চুমু, "কুলি নম্বর ১"এর ট্রেলার নিয়ে হইচই

২০২০ সালে বিচ্ছেদ হলো যাদের

২০২০ সালে বিচ্ছেদ হলো যাদের

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন

ভাস্কর্য বিতর্কে কঠোর অবস্থানে সরকার

ভাস্কর্য বিতর্কে কঠোর অবস্থানে সরকার

দেশের সবচেয়ে বড় রেলসেতু নির্মাণ কাজ শুরু হচ্ছে আজ থেকে

দেশের সবচেয়ে বড় রেলসেতু নির্মাণ কাজ শুরু হচ্ছে আজ থেকে

চাটখিল উপজেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদকের করোনা

চাটখিল উপজেলা বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদকের করোনা

দেশে বিশ্ববিদ্যালয় নাকি কারিগরি শিক্ষার প্রসার প্রয়োজন বেশি?

দেশে বিশ্ববিদ্যালয় নাকি কারিগরি শিক্ষার প্রসার প্রয়োজন বেশি?

ধর্ষিত বউ- ১০ম পর্ব

ধর্ষিত বউ- ১০ম পর্ব

রোহিঙ্গা গণহত্যা, মামলা লড়তে ৫ লাখ ডলার দিল বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা গণহত্যা, মামলা লড়তে ৫ লাখ ডলার দিল বাংলাদেশ

ইতিহাসের আজকের দিনেঃ ২৯ নভেম্বর

ইতিহাসের আজকের দিনেঃ ২৯ নভেম্বর

প্রভাষক জোসেফ খান আর নেই

প্রভাষক জোসেফ খান আর নেই

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

স্বাধীন ও টেকসই ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ

স্বাধীন ও টেকসই ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ

আবারো হোঁচট খেলো রিয়াল মাদ্রিদ

আবারো হোঁচট খেলো রিয়াল মাদ্রিদ