Feedback

জেলার খবর, গাইবান্ধা

গাইবান্ধায় সড়ক নির্মাণে ধীরগতি, দুর্ভোগে শহরবাসী

গাইবান্ধায় সড়ক নির্মাণে ধীরগতি, দুর্ভোগে শহরবাসী
November 21
10:20pm
2020
mahfuz
Rangpur Metro Kortawalli, Rangpur:
Eye News BD App PlayStore

গাইবান্ধা সড়ক ও জনপদ বিভাগ জানায়, জেলা শহরের পুর্বদিকে বড় মসজিদ থেকে পশ্চিমে পুলিশ সুপার কার্যালয় পর্যন্ত আড়াই কিলোমিটার সড়ক চারলেন প্রকল্প উদ্বোধন হয় ২০১৮ সালে। ওই কাজের ব্যয় ধরা হয় ১১৭ কোটি টাকা, যার মধ্যে সড়ক নির্মাণ ছয় কোটি ও জমি অধিগ্রহণ ১১১ কোটি টাকা।

দায়িত্ব পাওয়া ঢাকার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘এমএম বিল্ডার্স’ চলতি বছরের ৩০ জুনের মধ্যে কাজ শেষ করার কথা ছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ না হওয়ায় চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়। ইতোমধ্যে পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল পর্যন্ত প্রায় আধা কিলোমিটার চারলেন সড়কের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

সড়ক ও জনপদ বিভাগ আরও জানায়, বাসটার্মিনাল থেকে ১ নম্বর রেলগেট পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ কাজ মামলা সংক্রান্ত জটিলতায় বন্ধ রয়েছে। ১ নম্বর রেলগেট থেকে বড় মসজিদ পর্যন্ত সড়কের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে।

কিন্তু ইতিমধ্যে কাজের অগ্রগতি হয়েছে মাত্র ৪০ শতাংশ। শনিবার সরেজমিন দেখা গেছে, ১ নম্বর রেলগেট থেকে বড় মসজিদ পর্যন্ত সড়কের দুইপাশে সড়ক ও জনপদ বিভাগের সীমানায় কোনো স্থাপনা নেই। শুধু সরকারি মহিলা কলেজ ভবন রয়েছে, সেটি ভাঙার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। প্রায় একমাস আগে সড়কের উত্তর পাশে কিছু অংশ খুঁড়ে বালু ফেলা হয়েছে। শহরের কাচারি বাজার এলাকায় সড়কের দক্ষিণ পাশে প্রায় ২০০ মিটার অংশে নর্দমার জন্য গর্ত করে রাখা হয়েছে। কিছু অংশে বালু ফেলা হয়েছে। এছাড়া সড়ক নির্মাণ কাজের কোনো অগ্রগতি নেই। কবে কাজ শেষ হবে তা কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারছে না।

গাইবান্ধা শহরের কাচারি বাজারের ব্যবসায়ী রবীন চন্দ্র সাহা বলেন, ১০-১২ দিন আগে সড়কের দক্ষিণ পাশে নর্দমার জন্য গর্ত করা হয়েছে। পাশেই মাটি স্তূপ করে রাখা হয়েছে। বাতাস উঠলেই বালুঝড় বয়। এছাড়া এ কারণে এখানে সবসময় যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। ব্যবসায়ীদের বেচাকেনায় বিঘ্ন ঘটছে।

এই সড়ক সম্প্রসারণের কাজ একদিন চলে তো আর চারদিনই বন্ধ থাকে, বলেন তিনি।

গাইবান্ধা নাগরিক পরিষদের আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, চারলেন সড়ক নির্মাণ গাইবান্ধাবাসীর স্বপ্ন ছিল। দুই বছর আগে কাজের উদ্বোধন দেখে মানুষ আনন্দিত হয়েছিল। কিন্তু দুই বছরে কাজের কোনো অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

“ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতি রয়েছে। যেভাবে ধীরগতিতে কাজ চলছে, তাতে কবে কাজ শেষ হবে তা কেউ আঁচ করতে পারছেন না।”

শহরের ডিবি রোডের ব্যবসায়ী আব্দুল হাই বলেন, সড়কের দুইপাশ থেকে স্থাপনা সরানোর কারণে স্থাপনার জায়গা উঁচুনিচু হয়ে আছে। কংক্রিটের খুঁটির মাথা, ইটপাথর উঠে আছে। স্থাপনা সরানোর পর এগুলো কেউ অপসারণ করেনি। সড়ক ও জনপদ বিভাগ কিংবা ঠিকাদারের লোকজনও করেনি। ফলে পথচারীরা দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। সবসময় যানজট লেগেই থাকছে।

শহরের পুর্বপাড়ার ট্রাকচালক ফারুক মিয়া বলেন, শহরের কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল থেকে বড়ো মসজিদ পর্যন্ত সড়কটি খনাখন্দে পরিণত হয়েছে। ফলে যানবাহন চলছে লাফিয়ে লাফিয়ে। এছাড়া কার্পেটিং উঠে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

“বৃষ্টির সময় দুর্ভোগের কোনো সীমা থাকে না। এ ছাড়া চারলেন হবে বলে সংস্কার করা হয়নি। কিন্তু সংস্কারও করা হচ্ছে না, চারলেনও হচ্ছে ধীরগতিতে।কাজে ধীরগতি বিষয়ে জানতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমএম বিল্ডার্সের মালিক মহিউদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।

তবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি রফিক মিয়া বলেন, গাফিলতির অভিযোগ সঠিক নয়। যে সড়কে চারলেনের কাজ হচ্ছে সেটি গাইবান্ধা জেলা শহরের প্রধান সড়ক। কাজটি দ্রুত সম্পন্ন করতে দুই বছর থেকেই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত ছিল।

“কিন্তু নানা কারণে কাজে বিলম্ব হয়েছে। সড়কের দুইপাশ থেকে স্থাপনা সরাতে বিলম্ব হয়েছে। এখানও বেশিরভাগ এলাকা থেকে বৈদ্যুতিক খুঁটি সরানো হয়নি।”

তিনি বলেন, সড়ক খোঁড়াখুঁড়ি করলেই পানির লাইন ও টেলিফোনের লাইন বের হচ্ছে। সেগুলো ঠিকঠাক রেখে কাজ করতে সময় লাগছে। এজন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলো কোনো সহযোগিতা করছে না। তারপরও দ্রুত কাজ করতে চেষ্টা করা হচ্ছে।

গাইবান্ধা সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান বলেন, সড়ক ঘেঁষে স্থাপিত বৈদ্যুতিক খুঁটি না সরানো এবং সড়কে পানির লাইন ও টেলিফোন লাইনের কারণে কাজ বিলম্ব হচ্ছে। তবে দ্রুত কাজ সম্পন্ন করার জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে তাগাদা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর কাজ শেষ করার সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল; তবে প্রকল্পের মেয়াদ ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মেস ভাড়া মওকুফ চায় হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

ভাস্কর্য নির্মাণ সম্পর্কে যা বললেন আজহারী

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

"গৌরির নাম বদলে আয়েশা, পরতে হবে বোরখা"-স্ত্রীকে বললেন শাহরুখ

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের আলোচিত শিশু সানজিদা হত্যার দায় স্বীকার করলো গর্ভধারিনী মা

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

মসজিদের কক্ষে প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে ধরা ইমাম

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

১৪৪ তলা বিল্ডিং গুলিয়ে ফেলা হলো মুহূর্তের মধ্যে

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

এবার 'বাবু খাইছো' গান গেয়ে আলোচনায় হিরো আলম

জয়পুরহাট জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে সভাপতি আ’লীগের, সম্পাদক বিএনপির

জয়পুরহাট জেলা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে সভাপতি আ’লীগের, সম্পাদক বিএনপির

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

চেতনার ভিসুভিয়াস ! তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

পানিতে সারা-বরুণের ঠোঁটঠাসা চুমু, "কুলি নম্বর ১"এর ট্রেলার নিয়ে হইচই

পানিতে সারা-বরুণের ঠোঁটঠাসা চুমু, "কুলি নম্বর ১"এর ট্রেলার নিয়ে হইচই

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

মৃত্যুকে ভয় না করে সেনাদের যুদ্ধ জয়ের প্রস্তুতি নিতে বললেন শি

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে নিহত

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

সন্তান রেখে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী, শ্বশুর-শাশুড়িকে হয়রানি

শীতের সকালেও উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন মধুমিতা

শীতের সকালেও উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন মধুমিতা

সর্বশেষ

ঘুমের সমস্যা কে চিরতরে বিদায় জানান

ঘুমের সমস্যা কে চিরতরে বিদায় জানান

ভিপি নুরের ডিজিটাল আইনের মামলা প্রতিবেদন ৫ জানুয়ারি

ভিপি নুরের ডিজিটাল আইনের মামলা প্রতিবেদন ৫ জানুয়ারি

আবরার হত্যা: সাক্ষ্য দিলেন আবরার মামা

আবরার হত্যা: সাক্ষ্য দিলেন আবরার মামা

ধুনটে নূর-থ্রী স্টার অটো ব্রিকস এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন

ধুনটে নূর-থ্রী স্টার অটো ব্রিকস এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন

কিশোরগঞ্জে সিএনজিতে আগুন, দুই জন গুরুতর  আহত

কিশোরগঞ্জে সিএনজিতে আগুন, দুই জন গুরুতর আহত

ভারতীয় ওটিটি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে মনোনয়ন পেলেন বাংলাদেশের তন্বী

ভারতীয় ওটিটি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে মনোনয়ন পেলেন বাংলাদেশের তন্বী

পৌর নির্বাচনে ফুলবাড়ীতে নৌকার প্রার্থী  খাজা মঈন উদ্দিন চিশতি

পৌর নির্বাচনে ফুলবাড়ীতে নৌকার প্রার্থী খাজা মঈন উদ্দিন চিশতি

ঝালকাঠিতে জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের মানব বন্ধন ও সমাবেশ

ঝালকাঠিতে জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের মানব বন্ধন ও সমাবেশ

শীতকালে থাকুন খুঁশকি মুক্ত

শীতকালে থাকুন খুঁশকি মুক্ত

ভাস্কর্য আর মূর্তি এক নয়: ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

ভাস্কর্য আর মূর্তি এক নয়: ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

এক ওয়েব সিরিজে তামান্নার পারিশ্রমিক ১.৮ কোটি রুপি

এক ওয়েব সিরিজে তামান্নার পারিশ্রমিক ১.৮ কোটি রুপি

গভীর রাতে শীতার্তদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিলেন ইউএনও

গভীর রাতে শীতার্তদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিলেন ইউএনও

‘দ্য কপিল শর্মা শো’ থেকে কি বাদ পড়তে চলেছেন ভারতী সিংহ, মাদককাণ্ডের জের

‘দ্য কপিল শর্মা শো’ থেকে কি বাদ পড়তে চলেছেন ভারতী সিংহ, মাদককাণ্ডের জের

রায়হান হত্যা মামলা : ভিসেরা রিপোর্ট পিবিআই’র হাতে

রায়হান হত্যা মামলা : ভিসেরা রিপোর্ট পিবিআই’র হাতে

জামালপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

জামালপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ