Feedback

খোলা কলাম

ইংরেজি ভাষা শিক্ষা ও এই ভাষায় আমাদের দক্ষতার অবস্থান

ইংরেজি ভাষা শিক্ষা ও এই ভাষায় আমাদের দক্ষতার অবস্থান
November 20
05:59pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

পাঁচ দশকের বেশি সময় ধরে ভাষা ও সংস্কৃতি নিয়ে কাজ করছে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক  আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান এডুকেশন ফার্স্ট ( ই এফ) । ১১৬টি দেশে কার্যক্রম পরিচালনাকারী  প্রতিষ্ঠানটি ২০১১ সাল থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জনগোষ্ঠীর ইংরেজি দক্ষতা বিষয়ে  প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে।২০১৯ সালের সূচকটি ডিসেম্বর মাসেই প্রকাশ করেছে  প্রতিষ্ঠানটি। প্রথম ভাষা ইংরেজি নয়, এমন ১০০টি দেশের ২৩ লাখ মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে  ইংরেজি দক্ষতা পরিমাপ করেছে তারা।

প্রাপ্ত স্কোরের ভিত্তিতে দেশগুলোকে অতি উচচ, উচচ, মধ্যম,  নিম্ন ও খুবই নিম্ন দক্ষ- এ পাঁচ স্তরে ভাগ করা হয়েছে। ৪৮দশমিক ১১ স্কোর নিয়ে বাংলাদেশ  রয়েছে তালিকার একাত্তরতম স্থানে, দক্ষতার শ্রেণি হিসেবে যা খুবই নিম্ন। এটি একটি  আন্তর্জাতিক পরিমাপ এবং মূল্যায়ন। ইংরেজি ভাষাটি আমাদের দেশে বার বছর অর্থাৎ উচচ  মাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত বাধ্যতামূলক বিষয় হিসেবে শেখানো হয়। পাবলিক পরীক্ষাগুলোতে  আমরা দেখি যে, ইংরেজিতে পাসের হার ৯৮-৯৯ শতাংশ অর্থৎ ইংরেজিতে অকৃতকার্যের সংখ্যা  নেই বললেই চলে। পুরো বিপরীতমূখী চিত্র আমরা দেখতে পাচিছ ই এফ-এর প্রতিবেদনে। আমাদের  জাতীয় মূল্যায়ন ও আন্তর্জাতিক মূল্যায়ন -দুটি দুই মেরুতে অবস্থান করছে।

এটি অবশ্য  আমাদের সাধারন পর্যবেক্ষনও বলছে যে, আমাদের শিক্ষার্থীদের ইংরেজির প্রকৃত দক্ষতা অতি  নিম্নমানের।  শিক্ষাবিদরা বলছেন, প্রাথমিক স্তর থেকেই দেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইংরেজিভীতি তৈরি হচেছ।  মানসম্মত শিক্ষকের অভাব ও দুর্বল পাঠক্রমের কারণে পরবর্তী ধাপগুলোতে এ দুর্বলতা আর কাটিয়ে  উঠতে পারছে না শিক্ষার্থীরা। ইংরেজিতে দুর্বলতা নিয়েই “শিক্ষাজীবন শেষ করছে তারা।

ঢাকা  বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের এমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ’  আমাদের দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যারা ইংরেজিতে পাঠদান করছেন, তাদের ইংরেজিতে  দক্ষতা কোন পর্যায়ে রয়েছে, সেটি দেখতে হবে। শিক্ষকরাই যদি দুর্বল হন, তারা শিক্ষার্থীদের কী  শেখাবেন? একদিকে বিষয়ভিত্তিক শিক্ষকের অভাব, অন্যদিক নিয়োগ পাওয়ার পরও প্রশিক্ষণের  ব্যবস্থা না করার ফলে পরিস্থিতির পরিবর্তন হচেছনা।” প্রশিক্ষণ যে হচেছনা তা নয় কিন্তু প্রশ্ন  হচেছ এই প্রশিক্ষন কতটা কার্যকরী? তবে,প্রশিক্ষণ মানে অতিরিক্ত কিছু অর্থপ্রাপ্তির বিষয়  এটি যেমন অংশগ্রহনকারীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য তেমনি যারা আয়োজন করেন তাদের জন্যও।

এত  সফল হচেছনা আসল উদ্দেশ্য।  সামাজিক পরিস্থিতির বর্ণনায় সূক্ষ্ম ও যথাযথ ভাষার প্রয়োগ, উচচমার্গীয় ইংরেজি রচনা  সহজে পড়তে পারা এবং ইংরেজি ভাষা ব্যবহারকারী দেশের স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে চুক্তিতে দর  কষাকষির সক্ষমতা থাকলে তাকে অতি উচচস্তরের দক্ষতা হিসেবে বিবেচনায় নিয়েছে ই এফ।  প্রধান ভাষা ইংরেজি নয়, এমন দেশগুলোর মধ্যে এ শ্রেণিতে প্রথম দিকে আছে নেদারল্যান্ড,  সিঙ্গাপুর ও সুইডেন। ইংরেজিতে কর্মস্থলে প্রেজেন্টেশন দেয়া, টিভি শো বুঝতে পারা ও  পত্রিকা পড়তে পারাকে উচচদক্ষতা হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে ইএফ। দক্ষতার এ শ্রেণিতে থাকা  দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম হাঙ্গেরি, দক্ষিণ কোরিয় ও ফিলিপাইনস।

ব্যক্তিগত দক্ষতার ক্ষেত্রসহ সংশ্লিষ্ট  বৈঠকে অংশগ্রহন, ইংরেজি গানের কথা বুঝতে পারা ও পরিচিত বিষয়সংশ্লিষ্ট পেশাদার ই-মেইল  লেখার সক্ষমতাকে মধ্যম মানের দক্ষতা হিসেবে চিহ্নিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এসব শ্রেণিতে  যেসব দেশ আছে তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ হচেছ চীন, কোস্টারিকা, ফ্রান্স ও ভারত। পর্যটক  হিসেবে ইংরেজি ভাষাভাষী কোন দেশে সঠিকভাবে পথ চলাচল, সহকর্মীদের সঙ্গে ছোট ছোট  আলোচনায় সম্পৃক্ত হওয়া ও ইংরেজিতে পাঠানো সহকর্মীদের ই-মেইল বুঝতে পারলে তাকে নিম্ন  দক্ষতা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এ শ্রেণির দেশগুলোর মধ্যে আছে বলিভিয়া, পাকিস্তান,  রাশিয়া, জাপান ও নেপাল।

আর সাধারনভাবে ইংরেজিতে নিজের পরিচিতি (নাম, বয়স, দেশ    ইত্যাদি) তুলে ধরা, সাধারন চিহ্নগুলো বুঝতে পারা ও বিদেশী অতিথিকে সাধারন পথনির্দেশনা  দেয়ার সক্ষমতাকে অতি নিম্ন স্তরের দক্ষতা হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে ইএফ। ইংরেজিতে দক্ষতার এ  শ্রেণিতে যেসব দেশ আছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচেছ বাংলাদেশ, মালদ্বীপ ও সংযুক্ত আরব  আমিরাত।  ইংরেজি প্রধন ভাষা নয় এমন ১০০টি দেশের মধ্যে ৪৮ দশমিক ১১ স্কোর পেয়ে বাংলাদেশের অবস্থান  ৭১তম। যেখানে পাশর্^বর্তী দেশ ভারত বাংলাদেশ থেকে দুই স্তর উপরে মধ্যম মানে রয়েছে। তালিকায়  ৩৪তম অবস্থানে থাকা ভারতের স্কোর ৫৫দশমিক ৪৯।

তালিকায় বাংলাদেশের চেয়ে চারধাপ এগিয়ে  ৬৬তম অবস্থানে রয়েছে নেপাল। নেপাল এগিয়ে থাকার একটি কারণ স্পষ্ট যে, নেপালের ইংলিশ  ল্যাংগুয়েজ টিচার্স এসোসিয়েশন (নেল্টা) অত্যন্ত শক্তিশালী একটি সংগঠন। এই সংগঠনটি  নেপালের পুরো ইংলিশ টিচারদের একটি ছাতার নিচে নিয়ে এসেছে। ৩৪টি চ্যাপ্টার আছে  নেল্টার। প্রতিটি চ্যাপ্টারে প্রতিবছর কনফারেন্স হয় যেখানে ইংরেজি শিক্ষকগন নিজেরা তাদের  পেপার উপস্থাপন করেন।

শুধু তাই নয়, নেল্টা প্রতিবছর আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন করে  যেখানে সার্কসহ ইংরেজিভাষাভাষী বেশ কয়েকটি দেশ থেকে বিশেষজ্ঞগন আসেন।  আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে নেপালের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ইংরেজি শিক্ষকগন যোগদান করেন।ফলে, তাদের  অবস্থা অনেকটাই আমাদের চেয়ে ভাল। আমি নিজে নেপালের আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে এবং  আঞ্চলিক কনফারেন্সে একাধিকাবার গিয়েছে।

ব্রিটিশ কাউন্সিল ও আমেরিকান সেন্টারও  নেল্টাকে যথেষ্ট সহায়তা করে।নিম্ন স্তরে থাকা দেশটির স্কোর ৪৯।এবারের সূচকে স্কোরে আগের  চেয়ে পিছিয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৮সালের সূচকে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ৪৮দশমিক ৭২।  শিক্ষার ভিত্তি পর্বে ইংরেজি দুর্বলতা থেকে গেলে পরবর্তী স্তরগুলোতে। মাধ্যমিক কিংবা কলেজ  এমনকি বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষাও শেষ হচেছ ইংরেজিতে অদক্ষতা নিয়ে। আন্তর্জাতিক সমীক্ষাও  বলছে ইংরেজি দক্ষতায় বাংলাদেশের অবস্থান খুবই নিম্ন স্তরের।

যদিও ব্যবসা, শিক্ষা, গবেষণা  এমনকি বিদেশ ভ্রমণ সব ক্ষেত্রেই ভাষা হিসেবে ইংরেজির দক্ষতা গুরুত্বপূর্ন। কমিউনিকেটিভ  পদ্ধতিতে ইংরেজি শিক্ষাদান পদ্ধতিকে ভুল উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা ইংরেজি শিখেছি গল্প,  কাবিতা পড়ে। এখন পাঠ্যবইয়ে গল্প কবিতা রাখা হয়েছে খুবই কম। ফলে ইংরেজি অনেক কঠিন  একটি ভাষা----- এ ধরনের মনোভাব শিক্ষার্থীদের মধ্যে তৈরি হচেছ, যা পরবর্তী সময়ে তাদের এ  বিষয়ে দক্ষতা অর্জনে প্রতিবন্ধক হিসেবে কাজ করছে। 

ইংরেজির দুর্বলতা কাটিয়ে ওঠার জন্য শুধুমাত্র ইংরেজি কারিকুলাম অনুসরণ করলে এবং শিক্ষা  প্রতিষ্ঠানে ইংরেজি পড়লেই ইংরেজিতে দক্ষতা হওয়া যাচেছনা। দেশব্যাপী ইংরেজি শিক্ষকদের  প্রশিক্ষনের আওতায় আনা এবং সর্বোপরি ইংরেজি শিক্ষকদের পর্যবেক্ষনে রাখা, তাদের পেশাগত  উন্নয়ন ও বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষন প্রয়োজন যা বাংলাদেশ ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ টিচার্স  এসোসিয়েশনের মত সংগঠন অনেকটাই করতে পারে।

বেল্টা প্রতিবছর একটি করে জাতীয়  সম্মেলন ও প্রতি দুই বছর পর পর আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করে। বেল্টার সদস্য সংখ্যা  প্রায় তিন হাজার। তবে, প্রত্যন্ত অঞ্চলে সকল প্রকার ইংরেজি শিক্ষক এখনও এই সংগঠনের  ছায়াতলে আসেননি। যারা ইতিমধ্যে এসেছেন তারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে উপকৃত হয়েছেন  এবং হচেছন, তাঁরা পেশাগত উন্নয়ন ঘটানোর পর্যায়ে অবস্থান করছেন। বেল্টার কার্যক্রম আরও  বিস্তৃত হলে এবং সরকারি ও বেসরকারি সহায়তা পেলে বেল্টা দেশের ইংরেজি শিক্ষার উন্নয়নে  প্রভুত ভূমিকা পালন করতে পারবে বলে আমাদের বিশ্বাস। 

ইংরেজিতে অদক্ষতা পেশাগত জীবনেও নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে বলে জানান  নিয়োগদাতারা। অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের (এবিবি) সাবেক চেয়ারম্যান  আনিস এ খান বলেন, পেশাগত প্রয়োজনীয়তায় ইংরেজি শেখার বিকল্প নেই। যদিও ব্যাংকে  কর্মকর্তা নিয়োগ দিতে গিয়ে ইংরেজিতে প্রত্যাশিত দক্ষ জনবল পাওয়া যাচেছনা। বিশেষ করে  আন্তর্জাতিক কোন গ্রাহক বা বিনিয়োগকারী কিংবা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রেজেন্টশন দেয়ার ক্ষেত্রে সাবলীল ইংরেজি বলতে সক্ষম কর্মকর্তা খুঁজে পাওয়া দুস্কর।দেশের সরকারি প্রশাসনে  যারা আছেন, তাদেরকে বিষয়টির ওপর ওথেষ্ট গুরুত্ব দেয়া হয়েছে ফলে তারা অনেকেই এখনই  ইংরেজির দক্ষতা বাড়ানোর চেষ্টা করছেন এবং অনেকে সফলও হয়েছেন।

কিন্তু শুধুমাত্র প্রশাসনের  লোকজনই তো দেশ বিদেশে প্রয়োজনীয় যোগাযোগ করেন না, সেখানে পেশাগত অনেককেই  এই কাজ করতে হয় যা করতে তাদের যথেষ্ট অদক্ষতার প্রমাণ আমরা দেখছি।  গবেষকরা বলছেন দেশের শিক্ষার্থীদের ইংরেজি বিষয়ে দুর্বলতার অন্যতম কারণ বিষয়ভিত্তিক  শিক্ষকের অভাব। বেসরকারি গবেষণা সংস্থা গণসাক্ষরতা অভিযান এডুকেশন ওয়াচ ২০১৮-১৯  প্রতিবেদন বলছে, ইংরেজি বিষয়ে পাঠদানরত মাধ্যমিকের ৫৬শতাংশ শিক্ষকেরই বিষয়ভিত্তিক  কোন প্রশিক্ষণ নেই।ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক এস এম  হাফিজুর রহমান বলেন, আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে মাধ্যমিক শিক্ষকদের বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণের  বিষয়টি খুবই জরুরি।

মাঠপর্যায়ে কাজ করতে গিয়ে দেখেছি, অনেক শিক্ষক ইংরেজি বিষয়ে  স্পষ্ট জ্ঞান নেই তবুুও তারা ইংরেজি শিক্ষক।শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে কোন জিজ্ঞাসা এলে নিজের  মতো ব্যাখ্যা দিচেছন। এতে অনেক সময় দেখা যায় শিক্ষার্থীরা ভুল শিখছে। তাই বিষয়ভিত্তিক  শিক্ষক প্রশিক্ষণের বিষয়টি আরও গুরুত্বসহকারে নেয়া উচিত।  শহরভিত্তিক ইংরেজি দক্ষতার সূচকও প্রকাশ করেছে ইএফ।

সেখানে দেখা যায়, জাতীয় অবস্থানের  তুলনায় রাজধানী ঢাকার অবস্থান তুলনামুলক ভালো, এটি হওয়ারই কথা তারপরেও ৪৮দশমিক ৬৭স্কোর  নিয়ে রাজধানী ঢাকা রয়েছে নিম্ন অবস্থানে। ইংরেজিতে দক্ষতা বৃদ্ধির বিষয়ে সরকার ও  শিক্ষাসংশ্লিষ্টদের জন্য বেশকিছু সুপারিশ তুলে ধরেছে ইএফ। সেখানে কারিকুলাম সাবলীলভাবে  ইংরেজি বলাকে অনেক বেশি গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি ইংরেজিতে দক্ষতা যাচাইয়ে শিক্ষক-  শিক্ষার্থীদের নিয়মিত অ্যাসেস করার কথা বলা হয়েছে। এ ছাড়া ইংরেজি শিক্ষার নতুন পদ্ধতি  বিষয়ে শিক্ষকদের প্রশিক্ষক ও ইংরেজিতে নিয়মিত কথা বলেন এমন শিক্ষক দিয়ে ইংরেজি  শেখানোর ব্যবস্থা করতে বলেছে প্রতিষ্ঠানটি।   


মাছুম বিল্লাহ 

 শিক্ষা বিশেষজ্ঞ ও গবেষক  বর্তমানে ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচিতে কর্মরত এবং প্রেসিডেন্ট- ইংলিশ  টিচার্স এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (ইট্যাব) , সাবেক ক্যাডেট কলেজ ও  রাজউক কলেজ ও বাউবি-র শিক্ষক । 

মোবাইল: ০১৭১৪-০৯১৪৩১

ইমেইল: masumbillah65@gmail.com

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, যশোরের নতুন অধ্যক্ষ হলেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল নুসরাত নূর আল চৌধুরী

ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, যশোরের নতুন অধ্যক্ষ হলেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল নুসরাত নূর আল চৌধুরী

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় বৃদ্ধ মায়ের বিষ পানে আত্নহত্যা! আটক ৩!

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় বৃদ্ধ মায়ের বিষ পানে আত্নহত্যা! আটক ৩!

পাগলার কান্দিপাড়ায় অজ্ঞান পার্টির কবলে ১০ বছরের মাদ্রাসা ছাত্র

পাগলার কান্দিপাড়ায় অজ্ঞান পার্টির কবলে ১০ বছরের মাদ্রাসা ছাত্র

আবারও ইউটার্ন ট্রাম্পের, 'কখনও হার মানব না'

আবারও ইউটার্ন ট্রাম্পের, 'কখনও হার মানব না'

দুই বছরেও শেষ হয়নি হাবিপ্রবির গ্রন্থাগার ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখার অটোমেশনের কাজ

দুই বছরেও শেষ হয়নি হাবিপ্রবির গ্রন্থাগার ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখার অটোমেশনের কাজ

ভালোবাসার প্রতিদান তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

ভালোবাসার প্রতিদান তানিয়া সুলতানা হ্যাপি

ঘূর্ণিঝড়ের আকারে আজ রাতেই ছোবল মারতে পারে নিভার, সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ১৪৫ কিমি

ঘূর্ণিঝড়ের আকারে আজ রাতেই ছোবল মারতে পারে নিভার, সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ১৪৫ কিমি

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

পাকিস্তানসহ ১৩ টি দেশকে ভিসা দিবে না আরব আমিরাত

পাকিস্তানসহ ১৩ টি দেশকে ভিসা দিবে না আরব আমিরাত

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আন্দোলন, সিঙ্গাপুরে ১৫ বাংলাদেশিকে বহিষ্কার

পাকিস্তানে ধর্ষকের শাস্তি "পুরুষাঙ্গ" অকেজো করে দেওয়া

পাকিস্তানে ধর্ষকের শাস্তি "পুরুষাঙ্গ" অকেজো করে দেওয়া

কুবিতে প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল চালু করার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হলো

কুবিতে প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল চালু করার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হলো

করোনা প্রতিরোধে হাবিপ্রবি ছাত্রলীগ শাখার মাস্ক ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা প্রতিরোধে হাবিপ্রবি ছাত্রলীগ শাখার মাস্ক ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

আমতলীতে নদী দখল করে ইটভাটা, দ্রুত বন্ধের দাবী এলাকাবাসীর

আমতলীতে নদী দখল করে ইটভাটা, দ্রুত বন্ধের দাবী এলাকাবাসীর

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নসেট পরীক্ষার্থীদের হাতে কখন পৌঁছাবে ?

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নসেট পরীক্ষার্থীদের হাতে কখন পৌঁছাবে ?

সর্বশেষ

কিংবদন্তী ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই

কিংবদন্তী ফুটবলার ম্যারাডোনা আর নেই

ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা মারা গেছেন

ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা মারা গেছেন

ময়মনসিংহে শিশু ধর্ষণ মামলা ধামাচাপা দিতে গিয়ে কারাগারে শ্রমিক নেতা

ময়মনসিংহে শিশু ধর্ষণ মামলা ধামাচাপা দিতে গিয়ে কারাগারে শ্রমিক নেতা

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

ভৈরবে গাজাঁ আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

সাঘাটায় জেলের বরশিতে ধরা পড়া ঘড়িয়াল নদীতে অবমুক্ত

সাঘাটায় জেলের বরশিতে ধরা পড়া ঘড়িয়াল নদীতে অবমুক্ত

রাশিয়ার জলসীমায় ঢুকে পড়ায় যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া

রাশিয়ার জলসীমায় ঢুকে পড়ায় যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া

সোনারগাঁয়ে’র সাংবাদিক রিপনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রের অভিযোগ ও অপপ্রচার

সোনারগাঁয়ে’র সাংবাদিক রিপনের বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রের অভিযোগ ও অপপ্রচার

খুলনায় ভুয়া অভিযোগের প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

খুলনায় ভুয়া অভিযোগের প্রতিবাদে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

বাগেরহাটে মানববন্ধনের মাধ্যমে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালন

বাগেরহাটে মানববন্ধনের মাধ্যমে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালন

আনন্দ টিভির আনন্দ উৎসব-২০২০ (পর্ব-১)

আনন্দ টিভির আনন্দ উৎসব-২০২০ (পর্ব-১)

লালমনিরহাটে বিভাগীয় লেখক পরিষদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

লালমনিরহাটে বিভাগীয় লেখক পরিষদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

রংপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্বলন

রংপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্বলন

খাশোগি হত্যাকাণ্ড, নতুন সন্দেহভাজনের তালিকা করেছে তুর্কি আদালত

খাশোগি হত্যাকাণ্ড, নতুন সন্দেহভাজনের তালিকা করেছে তুর্কি আদালত

শ্যামনগরে খুদে বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবনকৃত প্রকল্প স্টল প্রদর্শনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হল বিজ্ঞানমেলা

শ্যামনগরে খুদে বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবনকৃত প্রকল্প স্টল প্রদর্শনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হল বিজ্ঞানমেলা

বগুড়ায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, চালক-হেলপারসহ আহত ৫

বগুড়ায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, চালক-হেলপারসহ আহত ৫