About Us
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১
  • সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম:
Verified MD. MIRAZUL-AL- MISHKAT
প্রকাশ ১৯/১১/২০২০ ০৪:৪৪পি এম

থানায় জিডি যেভাবে লিখতে হয়!

থানায় জিডি যেভাবে লিখতে হয়! Ad Banner

বেশিরভাগ মানুষকে যে কারনে থানায় যেতে হয় তার মধ্যে অন্যতম কারন হলো জিডি করা। যেসব কারনে জিডি করা হয় সেগুলো হলো।

১। মালামাল/কাগজপত্র হারানো, 

২।মানুষ হারানো

৩। ভয়ভীতি হুমকি প্রদান। 

উপরোক্ত বিষয়ে তিন লাইনে জিডি লেখার ফরম্যাট  দেয়া আছে। 

তাং ২০/১১/২০২০ খ্রিঃ

বরাবর

অফিসার ইনচার্জ,

(______ক) থানা, রংপুর জেলা।

বিষয়ঃ সাধারন ডায়েরী/জিডি করার আবেদন

জনাব, 

বিনীত নিবেদন এই যে আমি খ(২৮), পিতা-গ, গ্রাম-ঘ, থানা-ঙ, জেলা রংপুর থানায় এসে লিখিতভাবে জানাচ্ছি যে, (এইটুকু সব জায়গা একই থাকবে শুধুমাত্র নিচের বিষয়বস্তুগুলো প্রয়োজনে পরিবর্তন করবেন))

#কাগজপত্র হারানোর বিষয়ে

গত ইং ১১/১১/২০২০ তারিখ বিকাল ৪.০০ঘটিকার সময় বাড়ি থেকে স্কুলে/বাজারে/মার্কেটে যাওয়ায় সময় আমার কাছে থাকা মোবাইল/এসএসসি কাগজপত্র/পাসপোর্ট/ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে যায়। বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করে পাইনি

((কাগজপত্র/মালামালের বিবরণঃ যার যেটা হারাবে সেটা উল্লেখ করবেন যেমন মোবাইল নং, IMEI no, SSC/HSC ROLL, REGI, Passport no ETC)

#মানুষ হারানোর বিষয়ঃ উপরের ফরম্যাট ঠিক রেখে এখান থেকে শুরু

গত ইং ১১/১১/২০২০ তারিখ বিকাল ৪.০০ঘটিকার সময় বাড়ি থেকে স্কুলে/বাজারে/মার্কেটে যাওয়ায় সময় আমার ছেলে/মেয়ে/বাবা কোথায় যেন চলিয়া যায়। পরবর্তীতে সে আর বাড়িতে ফিরে আসেন নাই। খোজাখুজি অব্যাহত আছে... (হারানো নিখোঁজ ব্যক্তির শারীরিক বর্ণনা দিতে হবে)

#ভয়ভীতি দেখানোর বিষয়ঃ উপরের ফরম্যাট ঠিক রেখে এখান থেকে শুরু..

গত ইং ১১/১১/২০২০ তারিখ বিকাল ৪.০০ঘটিকার সময় পারিবারিক শত্রুতার বিরোধের জন্য বা অন্যান্য কারনে যদু/মদু (ঠিকানা যতটুকু আছে) মোবাইল নাম্বার 012345..... হতে আমার মোবাইল ফোনে অথবা সরাসরি অকথ্য ভাষায় গালাগালি সহ নানা রকম ভয়ভীতি হুমকি দেখায়।

অতএব উপরোক্ত বিষয়ে সাধারন ডায়েরী করতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

নিবেদক

নামঃ

মোবাইল নংঃ

জিডি শেষ..

বিঃদ্রঃ রংপুর জেলার সকল থানায় পুলিশ সুপার কর্তৃক সরবরাহকৃত জিডির ফর্ম আছে ।ডিউটি অফিসারের কাছ থেকে এক কপি চেয়ে নিবেন। ফর্ম না থাকলে সাদা কাগজে এক কপি কম্পিউটারে অথবা হাতে লিখে আর দুই কপি ফটোকপি করে মোট তিনকপি ডিউটি অফিসারের কাছে দিবেন। ডিউটি অফিসার এটার উপর সীল স্বাক্ষর দিয়ে এককপি আপনাকে ফেরত দিবেন। 

জিডি লিখার জন্য কারো কাছে যেতে হবে না। কাউকে টাকা পয়সা দিবেন না, টাকা চাইলে সিনিয়র অফিসারদের জানাবেন। নিজের জিডি নিজেই লিখুন। এটা প্রয়োজনের জন্য সংগ্রহে রাখতে পারেন।

সকল সরকারি প্রতিষ্ঠানের সেবা পাওয়া প্রত্যেকটি জনগনের নাগরিক অধিকার । তাই আসুন নিজে সচেতন হই অন্যকেও সচেতন করি। 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ