About Us
Nazrul
প্রকাশ ১৬/১১/২০২০ ০৩:২৭পি এম

প্রতারক ঈশা খাঁর হাত থেকে নিস্তার পায়নি হিজড়াও

প্রতারক ঈশা খাঁর হাত থেকে নিস্তার পায়নি হিজড়াও Ad Banner

প্রেমের ফাঁদে ফেলে বড় অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তথাকথিত প্রেমিক ঈশা খাঁর বিরুদ্ধে। প্রতারণার শিকারের তালিকায় আছেন এক হিজড়াও। তার সঙ্গেও প্রেমের অভিনয় করে দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন ঈশা খাঁ। ঐ হিজরার দায়ের করা মামলায় ঈশা খাঁর বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন আদালত। রবিবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিহাব উদ্দিন এ সমন জারি করেন।   

মামলা সূত্রে জানা গেছে, প্রতারণার শিকার ওই হিজড়ার নাম জুঁই। তিনি ২০১৭ সালে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় তার দলের সঙ্গে থাকতেন। ওই সময় ঈশা খাঁ বসুন্ধরা কমিউনিটি সেন্টারে চাকরি করতেন। একই এলাকায় থাকার জন্য তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। এই বন্ধুত্ব একপর্যায়ে প্রেমের সম্পর্কে  রূপ নেয়।     

একদিন জরুরি প্রয়োজনের কথা বলে তিন মাসের জন্য দেড় লাখ টাকা ধার নেন ঈশা খাঁ। চলতি বছরের ৯ সেপ্টেম্বর ঈশা খাঁর কাছে টাকা চাইলে তিনি কোনো টাকা নেয়নি বলে জানান। পরে স্থানীয়ভাবে বিষয়টির সুরাহা না করতে পেরে রোববার পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আমলি আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন জুঁই। পরে আদালত ঈশা খাঁর বিরুদ্ধে সমন জারি করেন।   

প্রতারণার শিকার জুঁই কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘টাকা নেওয়ার আগে ঈশা খাঁ আমার সঙ্গে সুন্দর করে কথা বলতেন। নিজের জমানো টাকা ধার দিয়ে সেই টাকা চাওয়ায় এখন আমার সঙ্গে মোবাইলে কথাও বলতে চান না। দেখাও করেন না।’   

বাদীপক্ষের আইনজীবী এস এম তৌফিক হোসেন মুন্না বলেন, ‘তৃতীয় লিঙ্গের জুঁইয়ের সঙ্গে ভালোবাসার অভিনয় করে ঈশা খাঁ দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎ করে প্রতারণা করেন। এ ঘটনায় জুঁই বাদী হয়ে ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় একটি মামলা করেন। আদালত মামলাটি সরাসরি আমলে নিয়ে আসামির বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।’


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ