Feedback

জাতীয়

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস পরীক্ষার হার বিশ্বে সর্বনিম্ন

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস পরীক্ষার হার বিশ্বে সর্বনিম্ন
April 01
03:45pm
2020
MD Satu Verify Icon
Gopalpur, Tangail, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore
বিশেষজ্ঞরা বার বার সতর্ক করে দিয়ে বলে দিয়েছেন, পর্যাপ্ত পরিমাণ টেস্ট না করা হলে এই মহামারি বন্ধ করা সম্ভব হবে না। কারণ টেস্ট না করা হলে অবস্থার আসল চিত্র উঠে আসবে না
বিপুল পরিমাণ জনসংখ্যার বিপরীতে অত্যন্ত কম পরিমাণে করোনাভাইরাস শনাক্ত পরীক্ষা (টেস্ট) করা হচ্ছে বাংলাদেশে। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্যানুযায়ী, গড়ে প্রায় এক লাখ ৪শ ৯৯ জন মানুষের মধ্যে সন্দেহভাজন আক্রান্ত হিসেবে একজনকে টেস্ট করা হচ্ছে। এদিকে, বিশেষজ্ঞরা বার বার সতর্ক করে দিয়ে বলে দিয়েছেন, পর্যাপ্ত পরিমাণ টেস্ট না করা হলে এই মহামারি বন্ধ করা সম্ভব হবে না। কারণ টেস্ট না করা হলে অবস্থার আসল চিত্র উঠে আসবে না। যেখানে বাংলাদেশ লাখে মাত্র ১ জনের টেস্ট করছে, সেখানে অন্যান্য দেশে এই অনুপাত অনেক গুণ বেশি। কোনো কোনো দেশে প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে এক হাজার জনকে টেস্ট করা হচ্ছে। গত ১৬ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) ডিরেক্টর জেনারেল ড. টেড্রোস অ্যাডহানোম ঘেব্রেয়েসাস বলেন, “আপনি চোখ বেঁধে আগুনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে পারবেন না। তেমনি কে বা কারা আক্রান্ত তা না জেনে আমরা এই মহামারিকে বন্ধ করতে পারব না। সবগুলো দেশের প্রতি আমাদের সহজ বার্তা হলো- টেস্ট, টেস্ট, টেস্ট। প্রত্যেক সন্দেহভাজন আক্রান্তকে টেস্ট করুন।” তবে, আইইডিসিআর-এর তথ্যানুযায়ী ১৬ কোটিরও বেশি জনসংখ্যার এই দেশে এখন পর্যন্ত ১,৬০২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে সন্দেহভাজন আক্রান্ত ব্যক্তিদের শরীর থেকে। গত মাসে দেশে তিনজন করোনাভাইরাস আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া যায়। এরপর ৮ মার্চ থেকে শুরু হওয়া টেস্টে প্রতিদিন গড়ে করা হয়েছে ৬৭টি টেস্ট। জনসংখ্যা তো বটেই দেশব্যাপী কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের বিপরীতেও এই সংখ্যা অত্যন্ত কম। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশব্যাপী কোয়ারেন্টিনে ছিলেন ৬০ হাজার ১৫ জন। একই অবস্থা পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও। প্রতি দশ লাখ জনসংখ্যার বিপরীতে তারা টেস্ট করেছে ১১ জনকে। গত ২০ মার্চ পর্যন্ত ১৪,৫১৪টি নমুনা সংগ্রহ করেছে তারা। অর্থাৎ, প্রতি ৯৪,৮৪৭ জন মানুষের বিপরীতে ভারত টেস্ট করেছে একজনকে।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

মাকে হারিয়ে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

মাকে হারিয়ে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

গৃহকর্মীদের উপর অত্যাচার এ কেমন পাশবিকতা! মোহাম্মদ হেলালুজ্জামান

গৃহকর্মীদের উপর অত্যাচার এ কেমন পাশবিকতা! মোহাম্মদ হেলালুজ্জামান

আমির নির্বাচনে দ্রুত সময়ের মধ্যে হেফাজতের সম্মেলন: বাবুনগরী

আমির নির্বাচনে দ্রুত সময়ের মধ্যে হেফাজতের সম্মেলন: বাবুনগরী

আহমদ শফীর মৃত্যুর কারণ জানালেন ছেলে

আহমদ শফীর মৃত্যুর কারণ জানালেন ছেলে

আল্লামা আহমেদ শফীর জানাজা সময় ও স্থান

আল্লামা আহমেদ শফীর জানাজা সময় ও স্থান

আল্লামা আহমদ শফির চিরপ্রস্থানে দেশময় শোকের ছায়া

আল্লামা আহমদ শফির চিরপ্রস্থানে দেশময় শোকের ছায়া

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে যাওয়ায় প্রেমিকাকে মারপিট করেছে প্রেমিক

বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে যাওয়ায় প্রেমিকাকে মারপিট করেছে প্রেমিক

ফের বাড়ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর ছুটি!

ফের বাড়ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর ছুটি!

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

ইবিতে ক্যাম্পাসিয়ান এন্ট্রোপ্রিনউর এসোসিয়েশন’র কমিটি গঠন

ইবিতে ক্যাম্পাসিয়ান এন্ট্রোপ্রিনউর এসোসিয়েশন’র কমিটি গঠন

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

কুষ্টিয়ায় ১৩ ঘণ্টার ব্যবধানে মা-মেয়ে-বাবার মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় ১৩ ঘণ্টার ব্যবধানে মা-মেয়ে-বাবার মৃত্যু

সর্বশেষ

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার,  সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার, সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

টাঙ্গাইলে সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদের কমিটি গঠন

টাঙ্গাইলে সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদের কমিটি গঠন

বগুড়ায় নাশকতা মামলার আসামী বিএনপি নেতাসহ গ্রেপ্তার ৫

বগুড়ায় নাশকতা মামলার আসামী বিএনপি নেতাসহ গ্রেপ্তার ৫

গোপালপুরে চা বিক্রেতার মরদেহ উদ্ধার

গোপালপুরে চা বিক্রেতার মরদেহ উদ্ধার

নাগরপুরে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর উদ্বোধন

নাগরপুরে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর উদ্বোধন

মধুপুরে অনগ্রসর নৃ-গোষ্ঠীর মাঝে গরু বিতরণ

মধুপুরে অনগ্রসর নৃ-গোষ্ঠীর মাঝে গরু বিতরণ

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

পাইকগাছায় হুমকির মুখে কালিনগর ওয়াপদার বেঁড়িবাঁধ

পাইকগাছায় হুমকির মুখে কালিনগর ওয়াপদার বেঁড়িবাঁধ

শ্যামনগরের দ্বীপ গাবুরায় ক্ষতিগ্রস্থদের জলবায়ু অবরোধ

শ্যামনগরের দ্বীপ গাবুরায় ক্ষতিগ্রস্থদের জলবায়ু অবরোধ