Feedback

জাতীয়

'বাংলাদেশকে আরও মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নিতে কাজ করে যাচ্ছি’

'বাংলাদেশকে আরও মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নিতে কাজ করে যাচ্ছি’
October 29
03:29pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

গুণীজনদের সম্মান করা সবার কর্তব্য বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘যারা একটা সমাজের জন্য, একটি জাতির জন্য, একটি দেশের জন্য অবদান রাখে- তাদের সম্মান করা এটা মনে করি আমাদের কর্তব্য’।   

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অন্যের সহায়তা না নিয়ে আর্থ-সামাজিকভাবে স্বনির্ভরতা অর্জনের মাধ্যমে বাংলাদেশকে আরও মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে করে যাচ্ছি’। বৃহস্পতিবার সকালে স্বাধীনতা পুরস্কার ২০২০ প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে যুক্ত হয়ে অনুষ্ঠানে অংশ নেন।   

স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, আপনারা প্রতিটি ক্ষেত্রে অবদান রেখেছেন। প্রতিবছর ২৫ মার্চ আমরা এই পুরস্কার দিয়ে থাকি। এবার করোনার কারণে সেটা সম্ভব হয়নি। জাতির জনকের জন্মশতবর্ষের অনুষ্ঠানও জনসমাগম না করে করার চেষ্টা করেছি। তবে করোনার মধ্যেও আজ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করার জন্য ধন্যবাদ। আমি বলেছি, যেহেতু স্বাধীনতা পুরস্কার, যেভাবেই হোক পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে এটি তুলে দিতে হবে।  সরকার ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’-এর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল হওয়ার কারণেই কিন্তু এই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পেরেছি। 

সরকারপ্রধান বলেন, একটি স্বাধীন দেশ গড়ে তোলার জন্য এমন কোনো কাজ নেই যা বঙ্গবন্ধু করেননি। কিন্তু তাকে সপরিবারে হত্যা করা হলো। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসেই বিচার বন্ধ করে দেয়। যারা জেলে ছিল তাদের মুক্তি দেয়। যারা পাকিস্তানে ছিল তাদের ফিরিয়ে আনে। পুরস্কৃত করে চাকরি দিয়ে। যে ৭ মার্চের ভাষণ মানুষকে উজ্জীবিত করেছিল তা নিষিদ্ধ করা হয়। স্বাধীনতার কথা এলেই এই বিষয়গুলো মনে পড়ে। 

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, আমরা যেন স্বাধীন জাতি হিসেবে মর্যাদা নিয়ে চলতে পারি। বাংলাদেশকে আমরা দারিদ্র্যমুক্ত করবো। উন্নত-সমৃদ্ধ করবো। করোনাভাইরাস সারা বিশ্বের মানুষকে স্থবির করে দিয়েছে। মানুষ যেন রক্ষা পায়, অর্থনৈতিক গতিশীলতা যেন থাকে। দেশের মানুষের সব মৌলিক চাহিদা পূরণের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। সারাবিশ্বই যেন করোনাভাইরাসের হাত থেকে মুক্তি পায়। সবাইকে এখনই সর্তক হওয়ার নির্দেশ দিয়েছি। যা যা প্রয়োজন ব্যবস্থা নিচ্ছি। 

এ বছর স্বাধীনতা পদকে ভূষিত হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত কমান্ডার আবদুর রউফ ও শহীদ বুদ্ধিজীবী মুহম্মদ আনোয়ার পাশা। এছাড়া স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) ও আজিজুর রহমান; চিকিৎসাবিদ্যায় অবদান রাখায় অধ্যাপক ডা. মো. উবায়দুল কবীর চৌধুরী এবং অধ্যাপক ডা. একেএমএ মুকতাদির; সংস্কৃতিতে অবদানের জন্য কালীপদ দাস ও অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদারকে স্বাধীনতা পদক দেয়া হয়েছে। 

এছাড়া শিক্ষায় অবদান রাখায় ভারতেশ্বরী হোমস প্রতিষ্ঠানটিকে স্বাধীনতা পদকে ভূষিত করা হয়েছে। আট ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠান এবছর স্বাধীনতা পদক পেল।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

দুপচাঁচিয়ায় পৌরসভার উদ্যোগে উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন

দুপচাঁচিয়ায় পৌরসভার উদ্যোগে উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতি আসলামকে বহিষ্কার

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতি আসলামকে বহিষ্কার

চিকিৎসক সংকটসহ নানা সমস্যায় বেহাল কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল

চিকিৎসক সংকটসহ নানা সমস্যায় বেহাল কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল

কুমিল্লায় বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

কুমিল্লায় বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

জামালপুর শহরের যানজট নিরসনে নিরব ভূমিকায় প্রশাসন

জামালপুর শহরের যানজট নিরসনে নিরব ভূমিকায় প্রশাসন

ফরিদগঞ্জে তেলবাহী লরি ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৩

ফরিদগঞ্জে তেলবাহী লরি ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৩

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে সিয়াম-পরীমনির "বিশ্বসুন্দরী"

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে সিয়াম-পরীমনির "বিশ্বসুন্দরী"

মাত্র ৫৪ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম যাওয়ার ট্রেন আসছে

মাত্র ৫৪ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম যাওয়ার ট্রেন আসছে

গোয়ার সৈকতে মোনালিসার হট ফটোশুট

গোয়ার সৈকতে মোনালিসার হট ফটোশুট

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ভৈরবে ১৭ মাদক কারবারী আটক

ভৈরবে ১৭ মাদক কারবারী আটক

কাশ্মীর নিয়ে মুসলিম দেশগুলোর প্রথম যৌথ প্রস্তাব

কাশ্মীর নিয়ে মুসলিম দেশগুলোর প্রথম যৌথ প্রস্তাব

সর্বশেষ

করোনায় আক্রান্ত সংসদ সদস্য সানি দেওল

করোনায় আক্রান্ত সংসদ সদস্য সানি দেওল

মন্দিরে বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী উদিত নারায়ণ ও শ্বেতা

মন্দিরে বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী উদিত নারায়ণ ও শ্বেতা

গেল নভেম্বর মাসে ৩৫৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

গেল নভেম্বর মাসে ৩৫৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে গিয়ে ধর্ষিত মাদ্রাসাছাত্রী

অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে গিয়ে ধর্ষিত মাদ্রাসাছাত্রী

রংপুর নগরীর সিটি প্লাজায় ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন

রংপুর নগরীর সিটি প্লাজায় ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে সেবার মান, বাড়ছে রোগী

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে সেবার মান, বাড়ছে রোগী

জলিল মোহাম্মদের কথায় গাইলেন রিংকু ও মুনিয়া মুন

জলিল মোহাম্মদের কথায় গাইলেন রিংকু ও মুনিয়া মুন

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

সগিরা মোর্শেদ হত্যা: ৩০ বছর পর আবারো হত্যা মামলার বিচারকার্য কাজ শুরু

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জে মহিলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

এই পাঁচটি গাছ দিয়ে কম খরচে  সাজান আপনার বাড়ি

এই পাঁচটি গাছ দিয়ে কম খরচে সাজান আপনার বাড়ি

গবেষকদের ধারণা   শীতকালে দাড়ি রাখলে ঠাণ্ডা কম লাগে ত্বকে

গবেষকদের ধারণা শীতকালে দাড়ি রাখলে ঠাণ্ডা কম লাগে ত্বকে

টাকার পরির্বতে নারকেলে মিলবে কলেজে ভর্তি

টাকার পরির্বতে নারকেলে মিলবে কলেজে ভর্তি

বাগেরহাটে হরিণ শিকারের ফাঁদসহ ৫ শিকারী আটক

বাগেরহাটে হরিণ শিকারের ফাঁদসহ ৫ শিকারী আটক