Feedback

জাতীয়, আইন-আদালত

ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদের রিমান্ড শুনানি আজ

ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদের রিমান্ড শুনানি আজ
October 28
11:54am
2020
Nurul hasan Anowar
Chatok, Sunamganj:
Eye News BD App PlayStore

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদের রিমান্ড শুনানি আজ। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ শুনানি হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতে এক বছর দণ্ডিত ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদকে সাত দিনের রিমান্ডে পেতে চায় পুলিশ। এ মর্মে মঙ্গলবার আদালতে আবেদন করা হয়েছে। 

এর আগে মঙ্গলবার নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনার আরেক আসামি এবি সিদ্দিক ওরফে দীপুর তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর আগের দিন ইরফানের গাড়িচালক মিজানুর রহমানকে একদিনের রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি পায় পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সেলিমের সহযোগী এবি সিদ্দিক ওরফে দীপুকে টাঙ্গাইল থেকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি একসময় হাজী সেলিমের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা ছিলেন, এখন তার ছেলে ইরফান সেলিমের সঙ্গে থাকেন। 

ইরফান সেলিমের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা এবি সিদ্দিকের গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর ও হত্যাচেষ্টা মামলায় চার আসামিই গ্রেফতার হলেন। রোববার রাতে নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় ধানমণ্ডি থানায় মামলা হয়। এর পর পুরান ঢাকায় হাজী সেলিমের বাসায় র‌্যাব অভিযান চালায়। এ সময় র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত মাদক রাখার দায়ে ইরফান সেলিমকে এক বছর কারাদণ্ড দেন। অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার কারণে দিয়েছেন ছয় মাসের কারাদণ্ড। ইরফানের দেহরক্ষী মো. জাহিদকে ওয়াকিটকি বহন করার দায়ে ছয় মাস সাজা দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।  অভিযানে ওই বাড়ি থেকে অস্ত্র, ইয়াবা, ৩৮টি ওয়াকিটকি ও অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।   

প্রসঙ্গত গত রোববার রাতে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খান বই কিনে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালের সামনে পেছন থেকে তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয় সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের স্টিকারযুক্ত গাড়ি। ওয়াসিফ নিজের পরিচয় দিলেও গাড়ি থেকে নেমে একজন গালাগাল করে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যান। এর পর গাড়িটি কলাবাগান বাসস্ট্যান্ড সিগন্যালে দাঁড়ালে ওয়াসিফ মোটরসাইকেল নিয়ে সেখানে গিয়ে গাড়িটির জানালায় নক করেন। তখন গাড়ি থেকে লোকজন নেমে ওয়াসিফকে মারধর করে রক্তাক্ত করেন। তাদের বিরুদ্ধে পর দিন সকালে ধানমণ্ডি থানায় মামলা করেন ওয়াসিফ।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

নুরু মন্ডল মারা গেছেন

দুপচাঁচিয়ায় পৌরসভার উদ্যোগে উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন

দুপচাঁচিয়ায় পৌরসভার উদ্যোগে উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতি আসলামকে বহিষ্কার

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতি আসলামকে বহিষ্কার

চিকিৎসক সংকটসহ নানা সমস্যায় বেহাল কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল

চিকিৎসক সংকটসহ নানা সমস্যায় বেহাল কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল

কুমিল্লায় বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

কুমিল্লায় বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

জামালপুর শহরের যানজট নিরসনে নিরব ভূমিকায় প্রশাসন

জামালপুর শহরের যানজট নিরসনে নিরব ভূমিকায় প্রশাসন

ফরিদগঞ্জে তেলবাহী লরি ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৩

ফরিদগঞ্জে তেলবাহী লরি ও সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৩

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী বালা

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

দুপচাঁচিয়ায় ছাত্রদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে সিয়াম-পরীমনির "বিশ্বসুন্দরী"

অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে সিয়াম-পরীমনির "বিশ্বসুন্দরী"

গোয়ার সৈকতে মোনালিসার হট ফটোশুট

গোয়ার সৈকতে মোনালিসার হট ফটোশুট

মাত্র ৫৪ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম যাওয়ার ট্রেন আসছে

মাত্র ৫৪ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম যাওয়ার ট্রেন আসছে

ভৈরবে ১৭ মাদক কারবারী আটক

ভৈরবে ১৭ মাদক কারবারী আটক

কাশ্মীর নিয়ে মুসলিম দেশগুলোর প্রথম যৌথ প্রস্তাব

কাশ্মীর নিয়ে মুসলিম দেশগুলোর প্রথম যৌথ প্রস্তাব

সর্বশেষ

করোনায় বিশ্বে হতদরিদ্র বেড়েছে ৪০ শতাংশ: জাতিসংঘ

করোনায় বিশ্বে হতদরিদ্র বেড়েছে ৪০ শতাংশ: জাতিসংঘ

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে যা বলল জাতিসংঘ

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে যা বলল জাতিসংঘ

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

ব্যাডমিন্টন খেলায় বিদ্যুতিক লাইন থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ সরকার কর্তৃক অনুমোদনের দাবি

কঙ্গনাকে বয়কটের ডাক

কঙ্গনাকে বয়কটের ডাক

বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিক উল্ল্যাহ হত্যায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিক উল্ল্যাহ হত্যায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

কাকে কড়া ভাষায় শাসালেন শ্রীলেখা?

কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের নতুন ডীন  ড. রাশেদ

কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের নতুন ডীন ড. রাশেদ

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

স্টুডিও ভক্স এর রেজিষ্ট্রেশন শুরু ১৫ই ডিসেম্বর থেকে

করোনায় আক্রান্ত সংসদ সদস্য সানি দেওল

করোনায় আক্রান্ত সংসদ সদস্য সানি দেওল

মন্দিরে বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী উদিত নারায়ণ ও শ্বেতা

মন্দিরে বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী উদিত নারায়ণ ও শ্বেতা

গেল নভেম্বর মাসে ৩৫৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

গেল নভেম্বর মাসে ৩৫৩ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

পৃথিবীর সব মুসলিম দেশে ভাস্কর্য রয়েছে: আ ক ম মোজাম্মেল হক

অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে গিয়ে ধর্ষিত মাদ্রাসাছাত্রী

অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে গিয়ে ধর্ষিত মাদ্রাসাছাত্রী

রংপুর নগরীর সিটি প্লাজায় ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন

রংপুর নগরীর সিটি প্লাজায় ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে সেবার মান, বাড়ছে রোগী

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে সেবার মান, বাড়ছে রোগী