Feedback

ক্যাম্পাস, দিনাজপুর

মাত্রাতিরিক্ত ক্রেডিট ফির যাঁতাকলে পিষ্ট হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা"

মাত্রাতিরিক্ত ক্রেডিট ফির যাঁতাকলে পিষ্ট হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা"
October 27
09:54pm
2020
MD. MIRAZUL-AL- MISHKAT Verify Icon
sadar, Dinajpur:
Eye News BD App PlayStore

এনরোলমেন্ট ফি জমা দেয়ার সময় এলেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পরে যায় আকাশের ( কাল্পনিক নাম)। কারণ মেস ভাড়া, খাওয়ার টাকা সহ অন্যান্য খরচ মেটাতেই হিমসিম খেতে হয় তাকে। কখনো দারস্ত হতে হয় বিত্তশালী ব্যক্তির কিংবা চড়া সুদের উপর টাকা নিয়ে পরিশোধ করতে হয় এনরোলমেন্ট ফি। অত্যান্ত দুঃখের সাথেই তিনি জানান, হাবিপ্রবির ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগ থেকে বিগত দুই বছর আবেদন করেও বৃত্তির জন্য মনোনীত হতে পাইনি তিনি। এভাবেই আক্ষেপ করে এনরোলমেন্ট ফি সহ ভর্তি ফি কমানোর দাবি জানিয়েছেন দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ( হাবিপ্রবি) ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ১৭ ব্যাচের এই শিক্ষার্থী।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ক্রেডিট প্রতি ১২৫ টাকা দিলেও ১৭ ব্যাচের শিক্ষার্থীসহ পরবর্তি ব্যাচের শিক্ষার্থীরা প্রদান করেন ১৫০ টাকা। যা অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে ঢের বেশি! 

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমএস এর কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার ( বাকৃবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক) জানান, " বাকৃবিতে প্রতি সেমিস্টারে শিক্ষার্থীদের এনরোলমেন্ট ফি, পরীক্ষা ফি, হলফি ও অন্যান্য সব কিছু মিলিয়ে ১৭০০-১৮০০ টাকা দিতে হয় "।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ( জাবি) সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারুখ হাসান বলেন, " আমাদের হল ফি মাত্র ১০ টাকা । এছাড়া পুরো বছরে জুরে ভার্সিটির সকল ব্যায় বাবদ আমরা ২০০০ টাকার মতো ব্যাংকে জমা দেই "।

এদিকে শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি কবির ( শিক্ষার্থী, মার্কেটিং, শাবিপ্রবি) জানান," শাবিপ্রবিতে শিক্ষার্থীদের প্রতি ক্রেডিট বাবদ ব্যায় করতে হয় ১০৫ টাকা "।

আবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতি ক্রেডিট ফি বাবদ ব্যাংকে জমা দিতে হয় ১০০ টাকা। এ ছাড়া উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে যেসকল শিক্ষার্থী হলে অবস্থান করে না তাদেরকে কোনো হলফি প্রদান করতে হয় না বলে জানিয়েছেন উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মেজবা রহমান। যেখানে হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান না করলেও গুণতে হয় প্রায় ৫০০ টাকা।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে ( বুয়েট ) প্রতি ক্রেডিট ফি বাবদ দিতে হয় ১০০ টাকা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউআরপি বিভাগের এমএস এর শিক্ষার্থী অণুরীমা জাহাঙ্গীর।

এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সমিতির প্রচার সম্পাদক আহসান জোবায়ের জানিয়েছেন তার বিশ্ববিদ্যালয়ে মানবিক ও ব্যবসা শাখার বিভাগ গুলোর শিক্ষার্থীদের প্রতি সেমিস্টারে প্রদান করতে হয় প্রায় ২৮০০ টাকা এবং বিজ্ঞান শাখার বিভাগ গুলোর শিক্ষার্থীদের দিতে হয় প্রায় ৩০০০ টাকা।

হাবিপ্রবির কৃষি অনুষদের লেভেল ৩ সেমিস্টার ২ এর শিক্ষার্থী মোঃ হাবিবুর রহমান মুন্না বলেন, "একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মধ্য-মধ্যবিত্ত, নিম্ন-মধ্যবিত্ত এবং গরিব পরিবারের সন্তানরা পড়তে আসে। এইচএসসি শেষ করার পর প্রত্যেক অভিভাবকের ইচ্ছা থাকে তাঁদের সন্তান যেন একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পায়। প্রায় ষাট শতাংশ পরিবার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর কারণ হিসেবে প্রথমত কম খরচের কথা চিন্তা করেন। তারপরে চিন্তা করেন সুশিক্ষায় উচ্চ-শিক্ষিত হওয়ার কথা। আর সেজন্যেই আমাদের দেশে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষার লড়াই চলে। বেশিরভাগ পরিবার মনে করেন সন্তান বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে মানে অভিভাবকদের দায়িত্ব বোঝ কিছুটা হলেও কমল। কিন্ত না, প্রতি ছয় মাসে যখন একটি শিক্ষার্থীকে প্রশাসনিক কাজে পাঁচ থেকে ছয় হাজার টাকা ব্যয় করতে হয় তখন সেসব পরিবারের কি হবে? ক্রেডিট ফি বাদেও একজন শিক্ষার্থীকে অন্যান্য পড়াশোনা সামগ্রী ব্যয় বহন করতে হয়। সেগুলো আসবে কোথা থেকে? আফসোস যে, দেশের নামি-দামি কয়েকটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচ খানিকটা কম হলেও দেশের প্রান্তিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোরই অবস্থান নাজুক। আমার প্রশ্ন একই দেশে ক্রেডিট ফি ব্যবধান এত বেশি কিভাবে? হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা দেয় বলেও মনে হয়না। তাহলে শিক্ষার্থীরা কেন এই বাড়তি অর্থ প্রশাসনের জন্য ব্যয় করবে? যেখানে সরকার বাৎসরিক বাজেট রাখে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য। তবুও শিক্ষার্থীদের ওপর এই ভার চাপিয়ে দিয়ে বাড়তি অর্থ আদায় করার মানে কি বোঝায়? প্রত্যেক হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীর দাবি, ক্রেডিট ফি ১৫০ টাকা থেকে কমিয়ে ৫০ টাকা করা হোক "। 

এনরোলমেন্ট ফি কমানোর বিষয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি ছাত্রলীগ শাখার নেতা মোঃ রিয়াদ খান বলেন, "বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার পক্ষ হতে আবেদন অনেক পূর্বেই দেয়া হয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে। অনান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যায় এখানেও ক্রেডিট ফি কমানো উচিত বলে মনে করি। এতে করে হাবিপ্রবিতে অধ্যায়নরত অস্বচ্ছল পরিবারের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার খরচ চালিয়ে যাওয়া সহজ হবে"।

ক্রেডিট ফির বিষয়ে মতামত জানতে চাইলে হাবিপ্রবির শিক্ষকদের সংগঠন (প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম ও 

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ) থেকে জানানো হয় সিন্ডিকেট সভায় উক্ত বিষয়টি উঠলে শিক্ষার্থীবান্ধব ফি নির্ধারণ করার ব্যাপারে সুপারিশ করবেন বলে সংগঠন দুইটি থেকে জানানো হয়।

সার্বিক বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, " ক্রেডিট ফি পূর্বে থেকে অনেক বেশি ছিলো। এমনটা নয় যে আমি আসার পর বাড়ানো হয়েছে । তবে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে যদি কম হয়ে থাকে তবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ফি কেন বেশি তা খতিয়ে দেখা হবে। যদি কমানোর সুযোগ থাকে তবে এনরোলমেন্ট ফি কমানো যেতে পারে। তবে পুরো বিষয়টি নির্ভর করবে হিসাব শাখা ও সিন্ডিকেট সভার আলোচনার উপর "।

উল্লেখ্য যে, রাবি, শেকৃবি, খুবি,চবি সহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে হাবিপ্রবিতে ক্রেডিট ফি তুলনা মূলক অনেক বেশি বলা বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

প্রতিদিন ডিম খাওয়া কি ভাল? সাবধান করলেন গবেষকরা

প্রতিদিন ডিম খাওয়া কি ভাল? সাবধান করলেন গবেষকরা

রংপুরের মহাসড়কে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ১জন নিহত ১জন আহত

রংপুরের মহাসড়কে দুর্ধর্ষ ডাকাতি ১জন নিহত ১জন আহত

যেনো বারী সিদ্দিকীর প্রতিচ্ছবি "রাসেল" আরটিভি'র মঞ্চে

যেনো বারী সিদ্দিকীর প্রতিচ্ছবি "রাসেল" আরটিভি'র মঞ্চে

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম সাময়িক বরখাস্তের এক মাসের মাথায় স্বপদে বহাল

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম সাময়িক বরখাস্তের এক মাসের মাথায় স্বপদে বহাল

হাবিপ্রবির শিক্ষকের টু স্টেজ গ্রাইন ড্রায়ারের উপর চূড়ান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত

হাবিপ্রবির শিক্ষকের টু স্টেজ গ্রাইন ড্রায়ারের উপর চূড়ান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত

সরকারকে চাল না দেয়ার ঘোষণা চালকল মালিকদের

সরকারকে চাল না দেয়ার ঘোষণা চালকল মালিকদের

এবার চানাচুরের প্যাকেটে ইয়াবা, মিরসরাইয়ে নারী আটক

এবার চানাচুরের প্যাকেটে ইয়াবা, মিরসরাইয়ে নারী আটক

পাইকগাছায় ৩০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

পাইকগাছায় ৩০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আফরোজা

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আফরোজা

নেশার টাকা না পেয়ে নিজ সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা, ঘাতক পিতা আটক

নেশার টাকা না পেয়ে নিজ সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা, ঘাতক পিতা আটক

হিন্দু-মুসলিম বিয়ে ঠেকাতে ভারতের উত্তরপ্রদেশে অর্ডিন্যান্স

হিন্দু-মুসলিম বিয়ে ঠেকাতে ভারতের উত্তরপ্রদেশে অর্ডিন্যান্স

ফুটবলেরই আরেক নাম ম্যারাডোনা

ফুটবলেরই আরেক নাম ম্যারাডোনা

কোলেস্টেরল ও ব্লাড প্রেসার কমাতে সাহায্য করে এই পানীয়

কোলেস্টেরল ও ব্লাড প্রেসার কমাতে সাহায্য করে এই পানীয়

অপরাধীকে অপরাধী হিসেবেই দেখবেন: শেখ হাসিনা

অপরাধীকে অপরাধী হিসেবেই দেখবেন: শেখ হাসিনা

হাবিপ্রবি গ্রীন ভয়েস শাখার উদ্যোগে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ

হাবিপ্রবি গ্রীন ভয়েস শাখার উদ্যোগে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ

সর্বশেষ

‘নবাব এলএলবি’ ছবিটি নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি করেছেন পরিচালক অনন্য মামুন

‘নবাব এলএলবি’ ছবিটি নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি করেছেন পরিচালক অনন্য মামুন

বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ ভাবে নির্মিত চলচ্চিত্র উৎসবে ‘মায়ার জঞ্জাল’

বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ ভাবে নির্মিত চলচ্চিত্র উৎসবে ‘মায়ার জঞ্জাল’

শীর্ষ নায়িকাদের মধ্যে একজন মাহিয়া মাহির

শীর্ষ নায়িকাদের মধ্যে একজন মাহিয়া মাহির

বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে টেলিফিল্ম ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’

বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে টেলিফিল্ম ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’

শীর্ষ তারকা শাকিব খানের নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে ‘নবাব এল.এল.বি’

শীর্ষ তারকা শাকিব খানের নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে ‘নবাব এল.এল.বি’

জিয়াউল হক পলাশের পর, সহকারী নির্মাতা থেকে অভিনেতা শিমুল শর্মা

জিয়াউল হক পলাশের পর, সহকারী নির্মাতা থেকে অভিনেতা শিমুল শর্মা

বেতন বৈষম্য নিরসনে স্বাস্থ্য বিবাগের কর্মীদের কর্মবিরতি শুরু

বেতন বৈষম্য নিরসনে স্বাস্থ্য বিবাগের কর্মীদের কর্মবিরতি শুরু

উদ্বোধন হল আধুনগর ইউপি’র নামাজ ঘর

উদ্বোধন হল আধুনগর ইউপি’র নামাজ ঘর

'গেল গেল সব রসাতলে গেল'

'গেল গেল সব রসাতলে গেল'

যেসব কারণে শীতের সময় খেজুর খাবেন

যেসব কারণে শীতের সময় খেজুর খাবেন

পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সাত্তার সভাপতি, সুকান্ত সম্পাদক নির্বাচিত

পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সাত্তার সভাপতি, সুকান্ত সম্পাদক নির্বাচিত

পাইকগাছায় আলেয়া হত্যা মামলায় পিবিআই'র হাতে গ্রেফতার-১

পাইকগাছায় আলেয়া হত্যা মামলায় পিবিআই'র হাতে গ্রেফতার-১

হাবিপ্রবির শিক্ষকের টু স্টেজ গ্রাইন ড্রায়ারের উপর চূড়ান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত

হাবিপ্রবির শিক্ষকের টু স্টেজ গ্রাইন ড্রায়ারের উপর চূড়ান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত

নরসিংদীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি পালন

নরসিংদীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি পালন

শ্যামনগরে ট্রলির চাকা বিস্ফোরণে এক ব্যক্তি মারাত্নক আহত

শ্যামনগরে ট্রলির চাকা বিস্ফোরণে এক ব্যক্তি মারাত্নক আহত