Feedback

ঠাকুরগাঁও, জেলার খবর

জামালপুর জমিদারবাড়ি জামে মসজিদ

জামালপুর জমিদারবাড়ি জামে মসজিদ
October 19
12:29am
2020
Md Nazeeb Alam
Mohammadpur, Dhaka:
Eye News BD App PlayStore

জামালপুর জামে মসজিদ বা জামালপুর জমিদারবাড়ি জামে মসজিদ নামেও পরিচিত। এটি ঠাকুরগাঁও জেলায় বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ দ্বারা তালিকাভুক্ত একটি প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। ঠাকুরগাঁওয়ের জামালপুর ইউনিয়নে ঐতিহাসিক জামালপুর জমিদার বাড়ি রয়েছে। তৎকালীণ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তাজপুর পরগণার রওশন আলীর বংশধর জামাল উদ্দিন এই অঞ্চলের জমিদারী অর্জন করেছিলেন এবং ১৮৬২ সালে জমিদার বাড়ির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন, তবে এর আগে ১৮৬৭ সালে জমিদার বাড়ী দিয়ে একটি মসজিদ নির্মাণ শুরু করেছিলেন। জমিদার বাড়িটি সম্পন্ন হয়েছিল। মসজিদটির নামকরণ করা হয়েছিল জামালপুর জমিদারবাড়ি জামে মসজিদ এবং এই ব্যয়বহুল মসজিদটি নির্মাণের কারণে জমিদার বাড়িটি অসম্পূর্ণ থেকে যায়।

এই মসজিদটির বয়স প্রায় ১৫৩ বছর । এই মসজিদটি বাংলাদেশের অন্যান্য সমস্ত মসজিদ থেকে একদম আলাদা। ভারতের উত্তর প্রদেশের রাজহংস নামে এক ব্যক্তি এই মসজিদটি নির্মাণে জড়িত ছিলেন। তিনটি গম্বুজ বিশিষ্ট এই অনন্য মসজিদটি মোগল আমলের চিহ্ন বহন করে। বর্তমানে জমিদার পরিবারের বংশধররা জমিদার বাড়ি এবং জামালপুর জামে মসজিদের দায়িত্বে রয়েছেন।

মসজিদটির বর্ণনা

বর্তমানে এই মসজিদ এবং জমিদার বাড়ির পাশেই একটি যাদুঘর রয়েছে। জমিদার রওশন আলী এই জমিদারির মালিক। তাঁর দশম বংশধর হলেন রুম্মান রশিদ চৌধুরী।  জমিদার রওশন আলী যখন এই অঞ্চলে আসেন, এখানে  মাটি দিয়ে তৈরী করা একটি মসজিদ ছিল। একদিন ভারী ঝড় ও বৃষ্টির কারণে মসজিদটি ভেঙে যায়। ঠিক তখনই জমিদার বাড়ির নির্মাণ কাজ চলছিল। 

এই মসজিদটি ইট দিয়ে পরিপূর্ণ। এর নির্মাণ কৌশলটি যে কারও চোখকে শীতল করতে প্রস্তুত। জমিদার রওশন আলীর দশম বংশধর রুম্মান রশিদ চৌধুরী বলেছেন, মসজিদটি তৈরি করতে কমপক্ষে১০ থেকে ১২ বছর সময় লেগেছে। ভারতের এক প্রসিদ্ধ নকশাকার রাজহংস ছিলেন এই মসজিদের স্থপতি। বর্তমানে এই জমিদার বাড়ির বিভিন্ন কক্ষ তালাবদ্ধ রয়েছে। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হল একটি কূপ আছে। এটি প্রায় ৩৫০ বছর বয়সের পুরাতন কূপ। জমিদারদের বংশধররা এখনও সেই কূপ থেকে জল পান করে। 

জমিদার বাড়ির পাশের এবং মসজিদের সামনের একটি বসার ঘর রয়েছে। এই একতলা খোলা বসার ঘরটি এখনও পরিপাটি। এটি এখন পরিবারের থাকার ঘর হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এই একতলা ঘরের অভ্যন্তর ২০০৮ সালে খুব সুন্দরভাবে নকশা করা হয়েছিল  যদিও দর্শকদের ঘরে প্রবেশের অনুমতি নেই।

এই মসজিদের প্রবেশপথে একটি বিশাল ও সুন্দর খিলান রয়েছে। মসজিদের উপরে তিনটি বড় গম্বুজ রয়েছে। গম্বুজের শীর্ষে কাঁচের পাথর দিয়ে খোদাই করা হয়েছে। এই মসজিদের মূল বৈশিষ্ট্যটি হল এর মিনারগুলি সম্পূর্ণ নকশা করা। মসজিদের ছাদে মোট ২৮ টি মিনার রয়েছে। প্রতিটি মিনার প্রায় ৩৫ ফুট উঁচুতে এবং প্রত্যেকের বিভিন্ন ধরণের খোদাই কার নকশা রয়েছে।

মসজিদটি চার ভাগে বিভক্ত।  মূল কক্ষ, মূল কক্ষ সহ ছাদ সহ বারান্দা, ছাদ ছাড়াই বারান্দা। ছাদবিহীন বারান্দাটি অর্ধ প্রাচীর দ্বারা বেষ্টিত এবং পূর্বদিকে মাঝখানে চারটি স্তম্ভের ছাদযুক্ত মূল দরজা রয়েছে। খোলা বারান্দার দেয়াল এবং মূল দরজার ছাদে রয়েছে বিভিন্ন নকশার ছোট ছোট মিনার।

মূল ঘরের বাইরের দিক থেকে পরিমাপটি প্রায় ২৯ × ৪৭ ফিট এবং ছাদবিহীন বারান্দা প্রায় ২১ × ৪৭ ফিট । মূল ঘরের কোণে তিনটি স্তম্ভ রয়েছে। এটিতে দুটি জানালা, তিনটি দরজা এবং দুটি কুলুঙ্গি রয়েছে। পুরো মসজিদের অভ্যন্তরীণ ও বাইরের দেয়ালে প্রচুর ভেষজ ও ফুলের নকশা রয়েছে।

কিভাবে সেখানে যাবেন

দেশের যে কোনও জায়গা থেকে বাস, ট্রেন বা নিজস্ব পরিবহণের মাধ্যমে ঠাকুরগাঁও যেতে পারেন। কর্ণফুলী পরিবহন, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, নাবিল পরিবহন, বাবলু এন্টারপ্রাইজ এবং কেয়া পরিবহনের বাসে চড়ে ঢাকা থেকে ঠাকুরগাঁও যেতে পারবেন। এ ছাড়া ঢাকার কমলাপুর বা বিমানবন্দর রেল স্টেশন থেকে লালমনিরহাট বা ঠাকুরগাঁও রুটে যে  ট্রেনগুলি চলাচল করে সেগুলিতে চড়েও আপনি ঠাকুরগাঁও যেতে পারবেন। বাসের ভাড়া ৫৫০-৬০০ টাকা এবং ট্রেনের ভাড়া ৪০০-৯০০ টাকা ।

ঠাকুরগাঁও জেলা সদর থেকে জামালপুর জমিদার বাড়ির দূরত্ব প্রায় ৮ কিলোমিটার। ঠাকুরগাঁও থেকে পীরগঞ্জ থানা যাওয়ার পথে আপনি শিবগঞ্জ হাটের তিন কিলোমিটার পশ্চিমে জামালপুর জমিদার বাড়ি পৌঁছবেন।

কোথায় থাকবেন

ঠাকুরগাঁওয়ের উত্তর সার্কুলার রোডে, হোটেল সালাম ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল প্রাইম ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল শাহ জালাল এবং হোটেল সাদেকের মতো কয়েকটি আবাসিক হোটেল রয়েছে। এছাড়াও সরকারী সার্কিট হাউস এবং জেলা কাউন্সিলের রেস্ট হাউসগুলি উল্লেখযোগ্য।

কখন যাবেন

যেহেতু  মসজিদটি একটি প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন তাই আবহাওয়া ভাল থাকলে  প্রায় সারা বছর জুড়ে সময়-সুযোগ বেছে নিয়ে দেখতে যেতে পারেন।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা  বরিশাল বিভাগীয়  কারাগারে

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে

বাংলাদেশীদের ইতালিতে চাকুরি (সিজনাল ও অন্যান্য) খোজার জন্য কিছু অনলাইন পোর্টালঃ পর্ব-০৬

বাংলাদেশীদের ইতালিতে চাকুরি (সিজনাল ও অন্যান্য) খোজার জন্য কিছু অনলাইন পোর্টালঃ পর্ব-০৬

হযরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক হিন্দু যুবক গ্রেফতার

হযরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক হিন্দু যুবক গ্রেফতার

সেনেগাল উপকূলে ইউরোপগামী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ১৪০ অভিবাসীর মৃত্যু

সেনেগাল উপকূলে ইউরোপগামী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ১৪০ অভিবাসীর মৃত্যু

সৌদি আরবের ক্লিনিং সেক্টরে বড় ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশীরা

সৌদি আরবের ক্লিনিং সেক্টরে বড় ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশীরা

রায়হানের পরিবারকে উপহার পাঠালেন সিলেটের পুলিশ কমিশনার

রায়হানের পরিবারকে উপহার পাঠালেন সিলেটের পুলিশ কমিশনার

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

কটিয়াদীতে ট্রিপল মার্ডার: নৈপথ্যে সম্পত্তির দ্বন্দ্ব

কটিয়াদীতে ট্রিপল মার্ডার: নৈপথ্যে সম্পত্তির দ্বন্দ্ব

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অযৌক্তিক ফি আদায় বন্ধের নির্দেশনা আসছে

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অযৌক্তিক ফি আদায় বন্ধের নির্দেশনা আসছে

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) মানবতার মুক্তিদাতা ও ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হনঃ প্রধানমন্ত্রী

বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) মানবতার মুক্তিদাতা ও ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হনঃ প্রধানমন্ত্রী

বিএনপি নেতার বসত বাড়িতে হামলা ভাংচুর, কুপিয়ে মারাত্মক জখম

বিএনপি নেতার বসত বাড়িতে হামলা ভাংচুর, কুপিয়ে মারাত্মক জখম

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

সর্বশেষ

আগামী তিন বছরে ১২ লাখ ৩৩ হাজার অভিবাসী নেবে কানাডা

আগামী তিন বছরে ১২ লাখ ৩৩ হাজার অভিবাসী নেবে কানাডা

ইতিহাসের আজকের দিনেঃ ৩১ অক্টোবর

ইতিহাসের আজকের দিনেঃ ৩১ অক্টোবর

তুরস্কে সাত মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প

তুরস্কে সাত মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প

ফ্রান্সের যেসব পণ্য বাংলাদেশে পাওয়া যায়

ফ্রান্সের যেসব পণ্য বাংলাদেশে পাওয়া যায়

পদ্মা সেতুর ৩৫তম স্প্যান বসছে আজ, দৃশ্যমান হবে ৫২৫০ মিটার

পদ্মা সেতুর ৩৫তম স্প্যান বসছে আজ, দৃশ্যমান হবে ৫২৫০ মিটার

এবার কয়েদির পোশাকে মিন্নির ছবি ভাইরাল

এবার কয়েদির পোশাকে মিন্নির ছবি ভাইরাল

কলির কৃষ্ণ সাংবাদিক

কলির কৃষ্ণ সাংবাদিক

মানবিক সাহায্যে এগিয়ে আসুন

মানবিক সাহায্যে এগিয়ে আসুন

জীবনে সফলতার পিছনে অভিনয়ের গুরুত্ব

জীবনে সফলতার পিছনে অভিনয়ের গুরুত্ব

আগামীর বঙ্গবন্ধু  পর্ব- ১

আগামীর বঙ্গবন্ধু পর্ব- ১

মহানবি হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র তৈরির প্রতিবাদে নাগেশ্বরীতে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন।

মহানবি হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র তৈরির প্রতিবাদে নাগেশ্বরীতে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন।

সেন্ট মার্টিনের ছেঁড়া দ্বীপে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা

সেন্ট মার্টিনের ছেঁড়া দ্বীপে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা

কুলাউড়া থানায় এসে  অপরাধ জগত ছেড়ে আত্মসমর্পণ করেছেন এক ডাকাত

কুলাউড়া থানায় এসে অপরাধ জগত ছেড়ে আত্মসমর্পণ করেছেন এক ডাকাত

পলাশবাড়ীতে ৮০ পিস ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার

পলাশবাড়ীতে ৮০ পিস ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা