Feedback

জাতীয়

এস আই আকবরের যত দুর্নীতি - চাঁদা না দিলেই মামলা

এস আই আকবরের যত দুর্নীতি - চাঁদা না দিলেই মামলা
October 17
01:42pm
2020
Nurul hasan Anowar
Chatok, Sunamganj:
Eye News BD App PlayStore

১০ অক্টোবর মধ্যরাতে রায়হান আহমেদ (৩৪) নামের এক যুবককে তুলে নিয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানাধীন বন্দরবাজার ফাঁড়িতে আটকে রাখা হয়। সেখানে নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ওই ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই আকবর হোসেন ভূইয়া। ঘটনার পরপরই পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ আকবরসহ ওই ফাঁড়ির চার সদস্যকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে। রায়হানের মৃত্যুর পর এসআই আকবরের আরও কিছু অপকর্ম সম্পর্কে ভুক্তভোগীরা মুখ খুলছেন। 

এজাজ আহমদ নামে একজন  বলেন, ‘আমাদের এলাকায় আকবরের কিছু বিশ্বস্ত সোর্স ছিলেন। এই সোর্সরাই মাদক বেচাকেনার সঙ্গে জড়িত। সোর্সরা প্রায়ই ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকাপয়সা আদায় করে আকবরসহ নিজেদের মধ্যে ভাগ-বাঁটোয়ারা করে নিতেন। একইভাবে তাঁরা আমার ভাইকেও (আলিম) আটক করে ৪০ হাজার টাকা দাবি করেন। মিথ্যা মামলায় জেলে পাঠানোর পর বর্তমানে আমার ভাই জামিনে আছেন।’   

আকবর হোসেন ভূইয়া ২০১৪ সালে পুলিশের কনস্টেবল পদে যোগ দেন। কনস্টেবল থেকে সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ও পরে উপপরিদর্শক (এসআই) পদে পদোন্নতি পান। কোতোয়ালি থানা থেকে ২০১৯ সালের ৬ নভেম্বর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ইনচার্জ) হিসেবে যোগ দেন। ওই সময় থেকে আকবর তাঁর ফাঁড়ি এলাকায় তৈরি করেন আলাদা এক জগ। অভিযোগ আছে, তাঁকে দৈনিক ভিত্তিতে নির্দিষ্ট অঙ্কের টাকা চাঁদা দিয়ে ফাঁড়ির আওতাভুক্ত বন্দরবাজার এবং আশপাশের এলাকার ফুটপাত ও প্রধান সড়ক অবৈধভাবে দখল করে ভ্রাম্যমাণ হকারেরা ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করতেন।

ফাঁড়ির অন্তর্ভুক্ত এলাকায় দুই হাজার ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী রয়েছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন হকার আকবরকে ‘চাঁদা’ দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এতে প্রতিদিন গড়ে অন্তত এক লাখ টাকা আকবর ‘চাঁদা’ আদায় করতেন বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গোপন প্রতিবেদনেও ওঠে এসেছে এসব তথ্য। 

বন্দরবাজার এলাকার কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, আকবর প্রায়ই নিরীহ পথচারীদের আটকে টাকা দাবি করতেন বলে অভিযোগ রয়েছে। টাকা না দিলে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখালে ভুক্তভোগীরা টাকা দিয়ে ছাড়া পেতেন। 

রায়হান হত্যার  আগেও আকবরের বিরুদ্ধে প্রকৃত ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ ছিল। আকবর তখন সিলেট কোতোয়ালি থানায় কর্মরত। গত বছরের ১৪ জানুয়ারি নগরের কাজলশাহ এলাকার ভাড়া বাসা থেকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) মেধাবী শিক্ষার্থী তাইফুর রহমানের (প্রতীক) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। তাইফুরের পরিবার তখন অভিযোগ করেছিল, তদন্ত কর্মকর্তা আকবর হত্যার ঘটনাকে ‘আত্মহত্যা’ বলে ধামাচাপা দিয়েছেন। এ হত্যাকে সুকৌশলে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছিলেন এসআই আকবর। সুরতহাল প্রতিবেদনে আকবর মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য লিখেছিলেন। আকবরকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাইফুর হত্যার রহস্য উদ্‌ঘাটিত হবে। 

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

আজ মিন্নিকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর কারাগারে নেওয়া হল

আজ মিন্নিকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর কারাগারে নেওয়া হল

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ঠাকুরগাঁওয়ে বন্ধুকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদন্ডাদেশ

ঠাকুরগাঁওয়ে বন্ধুকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদন্ডাদেশ

রায়হানকে পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে যাওয়া সেই এসআই গ্রেপ্তার

রায়হানকে পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে যাওয়া সেই এসআই গ্রেপ্তার

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি  বাড়ল১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

ছাত্রজীবনে মাসিক আয় ১ লাখ!

ছাত্রজীবনে মাসিক আয় ১ লাখ!

অফিস নিচ্ছে গণ অধিকার পরিষদ

অফিস নিচ্ছে গণ অধিকার পরিষদ

শিশু গৃহকর্মীর মরদেহ রেখে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রী আটক

শিশু গৃহকর্মীর মরদেহ রেখে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রী আটক

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

অক্ষয় কুমার পাহাড় কিনে নিলেন কানাডায়

অক্ষয় কুমার পাহাড় কিনে নিলেন কানাডায়

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

সর্বশেষ

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা  বরিশাল বিভাগীয়  কারাগারে

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে

ঘর পাচ্ছেন একশত পরিবার

ঘর পাচ্ছেন একশত পরিবার

মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ার আল্লারদর্গায় বিক্ষোভ

মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ার আল্লারদর্গায় বিক্ষোভ

আমতলীতে সরকারী নির্দেশনা উপেক্ষা করে মাছ শিকার, চার জেলের সাত দিনের কারাদন্ড

আমতলীতে সরকারী নির্দেশনা উপেক্ষা করে মাছ শিকার, চার জেলের সাত দিনের কারাদন্ড

সিলেটে লাইন ভুল করে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ, ট্রেন চলাচল বিঘ্ন

সিলেটে লাইন ভুল করে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ, ট্রেন চলাচল বিঘ্ন

সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেঃ ফখরুল

সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেঃ ফখরুল

ফানি ভিডিওর আড়ালে অশ্লীলতার ছড়াছড়ি

ফানি ভিডিওর আড়ালে অশ্লীলতার ছড়াছড়ি

স্বাধীনতার ৫০ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি রৌমারী’র চর লাঠিয়াল ডাঙ্গায়

স্বাধীনতার ৫০ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি রৌমারী’র চর লাঠিয়াল ডাঙ্গায়

এএসআই শাহ জামালের বাবা-মায়ের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিলেন সাতক্ষীরার এসপি

এএসআই শাহ জামালের বাবা-মায়ের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিলেন সাতক্ষীরার এসপি

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

মুসলিম স্থাপত্যের অনন্য নিদর্শন ‘সুরা মসজিদ’

মুসলিম স্থাপত্যের অনন্য নিদর্শন ‘সুরা মসজিদ’

ডানডকের বিপক্ষে আর্সেনালের জয়

ডানডকের বিপক্ষে আর্সেনালের জয়

মাধ্যমিকের ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

মাধ্যমিকের ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

লাইভে ভক্ত-সমর্থকদের ১০টি প্রশ্নের উত্তর দেবেন সাকিব

লাইভে ভক্ত-সমর্থকদের ১০টি প্রশ্নের উত্তর দেবেন সাকিব

বেতাগী উপজেলায় শ্রমিক লীগের ৫১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত

বেতাগী উপজেলায় শ্রমিক লীগের ৫১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত