Feedback

সারাবিশ্ব

নির্বাচনে ৫ কারণে এবারও জিততে পারেন ট্রাম্প

নির্বাচনে ৫ কারণে এবারও জিততে পারেন ট্রাম্প
October 16
05:40pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ৩ নভেম্বর। আগাম নির্বাচনী জরিপগুলোতে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের এগিয়ে থাকার আভাস মিলেছে। করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থতা ও নানা কারণে রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এবার পরাজয়ের কথা বলছেন মার্কিন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। 

মার্কিন নির্বাচন নিয়ে ন্যাট সিলভার ফাইভ থার্টিএইট ডটকমের ব্লগ সম্প্রতি এক জরিপের ফল প্রকাশ করেছে। তাতে বাইডেনের জয়ের সম্ভাবনা ৮৭ শতাংশ। আর ডিসিশন ডেস্ক এইচকিউ জরিপে বর্ষীয়ান এই রাজনীতিকের জয়ের সম্ভাবনা ৮৩.৫ শতাংশ।  জরিপের ফলগুলো সত্যি হলে বাইডেন হবেন বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। একই সঙ্গে জরিপের ফলগুলো মনে করিয়ে দিচ্ছে গত নির্বাচনের ঘটনাগুলো। তখন এমন কোনো জরিপ ছিল না যে, যেখানে পিছিয়ে ছিলেন তখনকার ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। কিন্তু সব কিছু পাল্টে যায় ভোটে। হিলারির বিপক্ষে ভূমিধস জয় পেয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হন ট্রাম্প। এবারও কি আগের নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি করবেন ট্রাম্প? হ্যাঁ, জানুয়ারিতে যদি রিপাবলিকান এই নেতাকে আবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিতে দেখা যায়, তা হলে এই জয়ের পেছনে থাকতে পারে পাঁচটি কারণ। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এসব তথ্য জানিয়েছে। 

নতুন কোনো অক্টোবর চমক  চার বছর আগে গত নির্বাচনের ১১ দিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) পরিচালক জেমস কোনি ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগের কথা জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারি ব্যক্তিগত ইমেইল সার্ভার ব্যবহার করেছিলেন, এমন অভিযোগে তদন্ত শুরু করে এফবিআই। 

এমন কোনো ঘটনা ট্রাম্পকে এবার নির্বাচনে হার থেকে বাঁচাতে পারে বলে বিবিসির খবরে বলা হয়। তবে তেমন কিছু ঘটেনি এখন পর্যন্ত। উল্টো ট্যাক্স না দেয়ার খবরে বিড়ম্বনায় পড়েছেন ট্রাম্প।  চূড়ান্ত বিতর্কে ভালো করতে পারলে  প্রথম বিতর্কে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভালো করতে পারেননি, সেটি সবাই বলছে। এবার বলা হচ্ছে– যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে উপশহরীয় এলাকায় বসবাসকারী নারীরা এবারের ভোটে বড় ভূমিকা রাখবে। সে ক্ষেত্রে বিতর্কে ট্রাম্পের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ ওই নারীদের কাছে ভালো লাগার কথা নয়।  এর পরও ২২ অক্টোবর তৃতীয় ও চূড়ান্ত বিতর্কে যদি ট্রাম্প অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখাতে পারেন, তা হলে মোড় ঘুরে যেতে পারে। এদিকে দ্বিতীয় বিতর্ক বাতিল হয়েছে। 

জরিপগুলো ভুল হলে  বাইডেনের ডেমোক্র্যাট দলের হয়ে প্রার্থিতা নিশ্চিতের পর থেকেই দেখা যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় জরিপ গোষ্ঠীগুলো ট্রাম্পের চেয়ে তাকে এগিয়ে রাখছে। এমনকি যেসব জায়গায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়ে থাকে, সেসব অঙ্গরাজ্যেও বাইডেনকে এগিয়ে রাখা হচ্ছে। জনমত বিবেচনায় এসব জরিপের ফল দেয়া হচ্ছে যদিও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটারদের ভোটই সব নির্ধারণ করে না। ইলেক্টোরালদের ভোটে গিয়ে এসব জরিপ ভুলও প্রমাণিত হতে পারে।   

দোদুল্যমান অঙ্গরাজ্যের ভোটের ফল  আগাম জরিপগুলোতে পিছিয়ে থাকলেও ট্রাম্প প্রতিযোগিতাপূর্ণ অঙ্গরাজ্যগুলোতে যদি কিছুটা ভালো করতে পারেন, ফল ঘুরে যেতে পারে। গতবার মিশিগান ও উইসকনসিনে অল্প ব্যবধানে জয় পান ট্রাম্প। এবার এ দুটি অঙ্গরাজ্যে ট্রাম্পের অবস্থান ভালো নয় বলে জরিপ বলছে। পেনসিলভানিয়া ও ফ্লোরিডার মতো অঙ্গরাজ্যে ইলেক্টোরাল ভোটে নিজেকে এগিয়ে নিয়ে ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার চেষ্টা করতে পারেন ট্রাম্প। জনগণের ভোটের চেয়ে ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটে ট্রাম্পের অবস্থান কিছুটা ভালো বলে ধরা হচ্ছে। 

হোয়াইট হাউসের দখল নিতে হলে ৫৩৮ ইলেক্টোরাল ভোটের ২৭০টি পেতে হয়। তবে দুজনই যদি ২৬৯টি করে ইলেক্টোরাল ভোট পান, সে ক্ষেত্রে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের কাঁধে সিদ্ধান্ত নেয়ার দায় বর্তায়। স্বভাবতই ট্রাম্প সেখানে সুবিধা পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।  বাইডেন প্রচারে তালগোল পাকালে  এখন পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচার ভালোভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন জো বাইডেন। কিন্তু করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব বা অন্য কোনো কারণে শেষ মুহূর্তে যদি ডেমোক্র্যাটিক এই প্রার্থী তালগোল পাকিয়ে বসেন, তা হলে পোয়াবারো হতে পারে ট্রাম্পের। 

বাইডেন এমনিতেই অনেকটা প্রচারবিমুখ। হঠাৎ বড় ভুল সিদ্ধান্ত নেয়ার প্রবণতা দেখা যায়, সমস্যায় পড়তে পারেন সেসব জায়গা এড়িয়ে চলা লোক। বাইডেন শেষ দিকে না এমন কোনো কাণ্ড করে বসেন, যা তাকে পিছিয়ে দেয়! যদিও বাইডেন এখন পর্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে প্রচার চালাচ্ছেন। অবশ্য শেষ সময়টায় সময়ের বিপরীতে দৌড়াতে হবে তাদের। তবে টানা নির্বাচনী প্রচারের ফলে বয়সের কারণে ইদানীং অনেকটাই ক্লান্ত দেখাচ্ছে বাইডেনকে। বয়সের কারণে এরই মধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার শারীরিক সক্ষমতা আছে কিনা। 

অন্যদিকে এই সম্ভাবনা নেই ট্রাম্প শিবিরে। এ ছাড়া ক্ষমতাসীন থাকায় হোয়াইট হাউসের পুরো সুবিধা নিয়েই পুরোদমে প্রচার চালাচ্ছেন তারা। শেষ সময়টায় বাইডেন শিবিরে কোনো সমস্যা হলে তা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে ট্রাম্পদের।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বিদেশ গমনে ইচ্ছুক সবাইকে নিতে হবে ই-পাসপোর্টঃ বন্ধ হচ্ছে এমআরপি (MRP) কার্যক্রম

বিদেশ গমনে ইচ্ছুক সবাইকে নিতে হবে ই-পাসপোর্টঃ বন্ধ হচ্ছে এমআরপি (MRP) কার্যক্রম

শিক্ষামন্ত্রী বরাবর খোলা চিঠি

শিক্ষামন্ত্রী বরাবর খোলা চিঠি

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: ভিডিও ভাইরাল সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: ভিডিও ভাইরাল সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

ফ্রান্সে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

ফ্রান্সে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

প্রেমিকার লাশ ফেলে পালানোর সময় প্রেমিক আটক

প্রেমিকার লাশ ফেলে পালানোর সময় প্রেমিক আটক

ফ্রান্সে নবীকে নিয়ে কটুক্তি, যা বললেন আজহারী

ফ্রান্সে নবীকে নিয়ে কটুক্তি, যা বললেন আজহারী

হাজী সেলিমের ছেলে ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ইরফান সেলিমের এক বছরের কারাদণ্ড

হাজী সেলিমের ছেলে ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ইরফান সেলিমের এক বছরের কারাদণ্ড

জেনে নিন, দালাল ছাড়াই পাসপোর্ট করার সহজ উপায় !

জেনে নিন, দালাল ছাড়াই পাসপোর্ট করার সহজ উপায় !

শিক্ষক সংকট করোনা পরবর্তি সময়ে হাবিপ্রবিতে তীব্র সেশনজটের আশঙ্কা

শিক্ষক সংকট করোনা পরবর্তি সময়ে হাবিপ্রবিতে তীব্র সেশনজটের আশঙ্কা

হযরত মোহাম্মদ (সা.) অবমাননা: ফ্রান্সের ওয়েবসাইট হ্যাক করল বাংলাদেশি হ্যাকারর

হযরত মোহাম্মদ (সা.) অবমাননা: ফ্রান্সের ওয়েবসাইট হ্যাক করল বাংলাদেশি হ্যাকারর

মিটার ১০হাজার, খুঁটি ৩০হাজার: টাকা না দেওয়ায় গৃহবধূ লাঞ্ছিত

মিটার ১০হাজার, খুঁটি ৩০হাজার: টাকা না দেওয়ায় গৃহবধূ লাঞ্ছিত

কিশোরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে দগ্ধ ৭ জন বার্ন ইউনিটে ভর্তি

কিশোরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে দগ্ধ ৭ জন বার্ন ইউনিটে ভর্তি

৩ বছরে স্বর্ণের হরফে পবিত্র কুরআন লিখলেন ৩৩ বছরের এই নারী!

৩ বছরে স্বর্ণের হরফে পবিত্র কুরআন লিখলেন ৩৩ বছরের এই নারী!

ম্যাখোঁর মানসিক চিকিৎসা দরকার, পাল্টা জবাব ফ্রান্সের

ম্যাখোঁর মানসিক চিকিৎসা দরকার, পাল্টা জবাব ফ্রান্সের

এসআই আকবর কে পালাতে সহায়তাকারী কে কে  আজ জানা যাবে

এসআই আকবর কে পালাতে সহায়তাকারী কে কে আজ জানা যাবে

সর্বশেষ

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় আশাশুনির অতিদরিদ্র ১৭’শ পরিবারের মাঝে অর্থ সহায়তা

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় আশাশুনির অতিদরিদ্র ১৭’শ পরিবারের মাঝে অর্থ সহায়তা

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

ফুটবল টুর্নামেন্ট: হাজিরহাট চ্যাম্পিয়ন

ফুটবল টুর্নামেন্ট: হাজিরহাট চ্যাম্পিয়ন

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড

ঘাটাইলে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবের সমাপ্তি।

ঘাটাইলে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবের সমাপ্তি।

চুনারুঘাটে পাখি শিকারীকে  ১মাসের কারাদন্ড প্রদান।

চুনারুঘাটে পাখি শিকারীকে ১মাসের কারাদন্ড প্রদান।

আক্কেলপুর প্রেসক্লাবের সভাপতির উপর হামলা  আটক ১

আক্কেলপুর প্রেসক্লাবের সভাপতির উপর হামলা আটক ১

জুম অ্যাপের মাধ্যমে কোরআন শিক্ষা।

জুম অ্যাপের মাধ্যমে কোরআন শিক্ষা।

মোহাম্মদ ইয়াছিনকে সম্মাননা দিলেন কাতারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত

মোহাম্মদ ইয়াছিনকে সম্মাননা দিলেন কাতারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত

হাফিজিয়া  মাদ্রাসা থেকে দুই শিশু শিক্ষার্থী নিখোঁজ

হাফিজিয়া মাদ্রাসা থেকে দুই শিশু শিক্ষার্থী নিখোঁজ

গাইবান্ধায় নিম্নচাপে পানিতে ভাসছে আমন ধান

গাইবান্ধায় নিম্নচাপে পানিতে ভাসছে আমন ধান

বীমা শিল্পে নারী জাগরণের পথিকৃৎ রাবেয়া বেগম রুনা

বীমা শিল্পে নারী জাগরণের পথিকৃৎ রাবেয়া বেগম রুনা

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩৩ দিন ধরে কলেজ ছাত্রীর অনশন

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩৩ দিন ধরে কলেজ ছাত্রীর অনশন

কোনভাবে ডিম খেলে ওজন কমবে : হাফ নাকি পুরো সিদ্ধ

কোনভাবে ডিম খেলে ওজন কমবে : হাফ নাকি পুরো সিদ্ধ

গাইবান্ধায় ৫৮২টি পুজা মন্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিমা বির্সজন

গাইবান্ধায় ৫৮২টি পুজা মন্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিমা বির্সজন