Feedback

সম্পাদকীয়

ধর্ষনই কি আমাদের একমাত্র নৈতিক অধ:পতন?

ধর্ষনই কি আমাদের একমাত্র নৈতিক অধ:পতন?
October 15
11:34am
2020
Rashedul islam
Tongi, Gazipur:
Eye News BD App PlayStore

দেশ এখন ধর্ষনের বিচার নিয়ে আন্দোলনে উত্তাল।খবরের কাগজ, টিভি, অনলাইনে, চায়ের আড্ডায় মূল আলোচনা এখন এই ধর্ষনকে ঘিরে। কেনো এতো ধর্ষন? নারীর পোশাক? পূরুষের দৃষ্টিভঙ্গি? কে নেবে এই ধর্ষের দায়? আমরা আছি সেই আলোচনায় মত্ত।সরকার ধর্ষনের সর্বোচ্চ শাস্থি মৃত্যুদন্ডের বিধান এনে আইন পাসের দ্বারপ্রান্ত। এখন কথা হলো এতেই কি থেমে যাবে ধর্ষন?  হায়রে জাতি, হায়রে মানবতা, হায়রে উন্নয়ন।দেশে কি শুধু ধর্ষনই একমাত্র অন্যায় যা মাত্রা ছাড়িয়েছে? যা বন্ধ করলেই দেশে আর কোনো সমস্যাই রইবেনা। আমাদের চারপাশে কি আর কোনো অনিয়ম, অনাচার সংঘটিত হচ্ছেনা? যা আমাদের সার্বক্ষণিক আতংকিত করে রাখে। সামান্য সুযোগ পেলেই যে দেশের জনগন অন্যের সম্পদ গ্রাস করে নিতে অপেক্ষা করেনা। সামান্য বিশ্বাস করলেই যে জনগন স্বাস্থ, আইন, বিচার নিয়ে লাভজনক ব্যাবসার দোকান খুলে অন্যকে সর্বশান্ত করে দিচ্ছে। সামান্য সুযোগ পেলেই যে জনগন ধর্মের নামে নির্লজ্জ ভাবে ব্যাবসায় নামে। সামান্য সুযোগ পেলেই যে জনগন পশু হতেও দ্বিধা বোধ করেনা তাদের কাছে তো ধর্ষন কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। এটা স্বাভাবিক ও অবধারিত ঘটনা। অশিক্ষিত মূর্খ বর্বর জাতিকে সভ্য করে তুলতে কালের খেয়ায় বিভিন্ন সময় পৃথিবীতে শ্রী কৃষ্ণ, গৈতম বুদ্ধ, মুসা (আঃ),ঈসা (আঃ), মুহাম্মদ (সঃ) ধর্মের বানী প্রচার করেছেন। পৃথিবীতে শান্তি আনার চেষ্টায় যার যার সময়ে তারা ঈশ্বরের প্রতিনিধি হিসাবে শতভাগ সফলকামও হয়েছেন। নিপিড়ীত মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে, দুর্বল নারী জাতির রক্ষা করতে,  ধনাঢ্য ও শক্তিশালিকে নিয়ন্ত্রনের প্রক্রিয়া আজো অব্যার্থ ভাবে অবদান রাখতে সক্ষম।   

আজো সেই সব মহামানবের আদর্শ, নীতি সংরক্ষিত রয়েছে যথাযথভাবে। তার পরও কেনো এতো অন্যায়, হানাহানী, দুর্বলের উপর শক্তিশালীর শাসন?  কারন, আমরা আজ মাহামনবদের প্রতিষ্ঠিত ধর্মের নীতি আদর্শ থেকে সরে গিয়ে আবার অতীতের ন্যায় বর্বর যুগে ফিরে যাচ্ছি। আমাদের মানুষ রুপি দেহটায় ভিতরে আত্মা মুমূর্ষু অবস্থায় কাতরাচ্ছে। আমরা ন্যায় বাদ দিয়ে অন্যায়কে সময়ের চাহিদা হিসাবে মেনে নিয়েছি। আমরা নীতিবাক্য,সদাচার,নৈতিকতাকে দুর্বলের হাতিয়ার আর অন্যায় করার ছদ্দবেশে পরিনত করছি। ফলে,আমাদের চারপাশে এতো অন্যায় নিয়মে পরিনত হয়েছে। আমরা আজ ঘরে বাইরে আপনজন,পাশেরজন ও অন্যের কাছে সর্বত্রই শংকিত মানষিকতা নিয়ে বাচার চেষ্টা করছি। আমাদের আজ সবসময় আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে,আমাদের অর্জিত সম্পদ নিয়ে,নিজের ও নিজ পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। প্রবল বানে ভেসে যাওয়া বাধের ওপাশের মানুষের মতো আমরা প্রহর গুনছি ধ্বংসের। বাঁচার জন্য কতক্ষন লড়তে পারবো জানিনা তবে মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও বাচার ব্যার্থ চেস্টা করছি!   কিন্তু কেনো আমরা সবাই  এই প্রলয়ের দ্বারপ্রান্তে?   

আমরা আজ প্রতিনিয়ত কোনো এক অন্ধকার কালো জাদুর মোহে আচ্ছন্ন হয়ে যাচ্ছি। এখানে যে যা পারো তাই করো যদি টিকে থাকো কাল আরো বিশাল কিছু করো।এখানে নেই কোনো ভালো মন্দের বিচার।নেই কোনো নৈতিকতার অবস্থান বা নৈতিকতার চর্চা।এ যেনো এক অধুনিক বর্বরতা শুরু হয়েছে!  এখনো সময় আছে,  এই সামাজিক অধঃপতন রোধে আজই ধর্মীয় শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিন। নিজের জীবনে নীতি,নৈতিকতাকে ফিরিয়ে আনুন যার যার ধর্মীয় অনুশাসনের ভিত্তিতে। 

অন্যায় ও অন্যায়কারীকে নির্বাসনে দিন। সবচাইতে ভালো হয় ধ্বংস করে দিন চিরতরে। তা নাহলে আমাদের মাহাপ্রলয়ের তান্ডবে বিলিন হয়ে যাওয়ার অপেক্ষা করা ছাড়া আর কিছুই করার থাকবেনা। আর এই কাজে আপনাকে, আমাকে আমাদের সরকারকে এক যোগে এগিয়ে আসতে হবে। জয় হোক মানবতার। জয় হোক ঈশ্বরের।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

গভীর নিম্নচাপ,  জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা

গভীর নিম্নচাপ, জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা

ইসলাম ধর্ম নিয়ে জবি শিক্ষার্থীর কটূক্তি: বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবী

ইসলাম ধর্ম নিয়ে জবি শিক্ষার্থীর কটূক্তি: বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবী

স্বামীর লাশ নিয়ে ফেরার পথে মারা গেলেন স্ত্রী

স্বামীর লাশ নিয়ে ফেরার পথে মারা গেলেন স্ত্রী

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

রেমডিসিভির ব্যবহারে পূর্ণ অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র

রেমডিসিভির ব্যবহারে পূর্ণ অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র

নামাজ পড়তে অসুবিধা হওয়ায় অভিনয় ছেড়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী মুক্তি

নামাজ পড়তে অসুবিধা হওয়ায় অভিনয় ছেড়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী মুক্তি

ভিজিট ভিসায় সংযুক্ত আরব আমিরাত এসে "ওয়ার্ক ভিসায়” এ পরিবর্তনের সুযােগ নেই

ভিজিট ভিসায় সংযুক্ত আরব আমিরাত এসে "ওয়ার্ক ভিসায়” এ পরিবর্তনের সুযােগ নেই

কাতারের মন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

কাতারের মন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

বাংলাদেশকে ১০০ ভেন্টিলেটর দিল যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাদেশকে ১০০ ভেন্টিলেটর দিল যুক্তরাষ্ট্র

কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার

কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার

বরুড়ায় পিতৃহীন অসুস্থ সন্তানকে বাঁচাতে এক মায়ের আকুতি

বরুড়ায় পিতৃহীন অসুস্থ সন্তানকে বাঁচাতে এক মায়ের আকুতি

সিলেটের দোয়ারাবাজারে গণধর্ষণের পর বিবস্ত্র করে ছেড়ে দেয়া হয় তরুণীকে

সিলেটের দোয়ারাবাজারে গণধর্ষণের পর বিবস্ত্র করে ছেড়ে দেয়া হয় তরুণীকে

কুলাউড়ায় স্ত্রীর উপর অভিমান করে এক যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

কুলাউড়ায় স্ত্রীর উপর অভিমান করে এক যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

সুখবর দিলেন মিথিলা!

সুখবর দিলেন মিথিলা!

শিল্পী আকবরের কিডনি দ্রুত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, আর তাই দোয়া চাইল তার পরিবার

শিল্পী আকবরের কিডনি দ্রুত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, আর তাই দোয়া চাইল তার পরিবার

সর্বশেষ

আপনি কি ধূমপানের অনুভূতি পছন্দ করেন?

আপনি কি ধূমপানের অনুভূতি পছন্দ করেন?

নাইজেরিয়ায় বিক্ষোভে গুলি, আগুন, লুট, ৫৬ জনের মৃত্যু

নাইজেরিয়ায় বিক্ষোভে গুলি, আগুন, লুট, ৫৬ জনের মৃত্যু

তৃণমূলের রাজনীতি, একটি পর্যালোচনা

তৃণমূলের রাজনীতি, একটি পর্যালোচনা

আশাশুনির চন্দ্রশেখর হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত মোবাশ্বরের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

আশাশুনির চন্দ্রশেখর হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত মোবাশ্বরের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

দেবহাটায় ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা

দেবহাটায় ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা

বিত্ত সুখ

বিত্ত সুখ

কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার

কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার

৬ মাস প্রেমের পর ‘বিয়ে করবো’ বলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ

৬ মাস প্রেমের পর ‘বিয়ে করবো’ বলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ

হোমনার পাবলিকিয়ানদের সংগঠন পুসা'র নেতৃত্বে মেহেদী - আশিক

হোমনার পাবলিকিয়ানদের সংগঠন পুসা'র নেতৃত্বে মেহেদী - আশিক

বাংলাদেশকে ১০০ ভেন্টিলেটর দিল যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাদেশকে ১০০ ভেন্টিলেটর দিল যুক্তরাষ্ট্র

ভিজিট ভিসায় সংযুক্ত আরব আমিরাত এসে "ওয়ার্ক ভিসায়” এ পরিবর্তনের সুযােগ নেই

ভিজিট ভিসায় সংযুক্ত আরব আমিরাত এসে "ওয়ার্ক ভিসায়” এ পরিবর্তনের সুযােগ নেই

মিঠাপুকুরে শারদীয় দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা পরিষদ সদস্য ইয়াকুব মিয়া

মিঠাপুকুরে শারদীয় দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা পরিষদ সদস্য ইয়াকুব মিয়া

পাইকগাছায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

পাইকগাছায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

বীমা লাগবে না মোটরসাইকেলে, বিপাকে বীমা কোম্পানিগুলো

বীমা লাগবে না মোটরসাইকেলে, বিপাকে বীমা কোম্পানিগুলো

ভোলা-চরফ্যাশনে বরাদ্দকৃত সরকারি চাল নিয়ে নয়ছয়, ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার

ভোলা-চরফ্যাশনে বরাদ্দকৃত সরকারি চাল নিয়ে নয়ছয়, ৪০ বস্তা চাল উদ্ধার