Feedback

অপরাধ, খোলা কলাম

ধর্ষণ ও বিট পুলিশিং

ধর্ষণ ও বিট পুলিশিং
October 14
11:28pm
2020
Shaymol Chandra Roy
Shabag, Dhaka:
Eye News BD App PlayStore

ধর্ষণ শব্দটি পত্রিকা, টেলিভিশন,  বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বহুল প্রচারিত হচ্ছে। যদিও ঘটনাগুলি বিচ্ছিন্ন কিন্তু এখন সামাজিক সমস্যায় পরিণত হয়েছে। পিতৃতন্ত্রের নিগড় থেকে মুক্ত হতে না পারা পুরুষসমাজ এই ধর্ষণের জন্য দায়ী। আইন ও শালিস কেন্দ্রের তথ্যানুসারে, গত জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে দেশে ধর্ষণ, ধর্ষণের প্রচেষ্টা ও ধর্ষণজনিত মৃত্যুসহ সর্বমোট ১২৩৪ টি ঘটেছে। এর মধ্যে ৪৩ জনকে ধর্ষণের পর হত্যা এবং ১২ জন ধর্ষণের শিকার হয়ে আত্মহত্যা করেছে। গত বছরে জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বরে এই সংখ্যাটি ছিলো ১৭২৩। ধর্ষণের হার যেমনই হোক, একটি ধর্ষণও আমাদের কাছে কাম্য নয়।       

যে তুলনায় ধর্ষনজনিত অপরাধ ঘটে থাকে সে তুলনায় বিচারের হার খুবই কম। আইন অনুযায়ী ধর্ষণের বিচার প্রক্রিয়া তিনমাসের মধ্যে শেষ করতে বলা হলেও লেগে যায় বহু সময়। এই দীর্ঘ সময়ে ভিক্টিমকেও নানা বিরম্বনার সম্মুখীন হতে হয়। ভিক্টিম ও তার পরিবার জুটিশিয়াল ট্রায়ালের বিষয়টিকে ঝামেলাপূর্ণ মনে করে। যার ফলে, তারা মামলা করা থেকে বিরত হয় এবং বিচার চাইতে ভয় পায়। শুধু বিচার প্রক্রিয়ার দীর্ঘসূত্রিতা ও নিয়মকানুনই নয় অপরাধকারী প্রভাবশালী হলে এবং বিভিন্ন উপায়ে ভিক্টিম ও তার পরিবারকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করলে ভিক্টিম মামলা করা থেকে বিরত থাকে।     

বাংলাদেশি আইনি প্রক্রিয়ায় ভিক্টিম ও তার পরিবারকে নিরাপত্তা প্রদানের কোন ব্যবস্থা নেই এমনি মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রদান সহায়তারও ব্যবস্থা নেই। যার ফলে, ভিক্টিমকে অপরাধের শিকার হবার পরেও নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। মানুষের মধ্যে এক ধরণের ধারণা প্রোথিত হয়েছে যে, অপরাধ করলে বিচার হবে না। কারণ দীর্ঘদিনের যে কথিত বিচারহীনতার সংস্কৃতি তা মানুষের মনে নির্ভয়তার জন্ম দিয়েছে। আবার ক্ষমতার দ্বারা প্রভাবিত হয়ে অনেকে নিজে থেকেই অপরাধ করতে উৎসাহী হয়ে পড়েন। সেজন্য অপরাধকে রাজনৈতিক রুপদানের চেষ্টা করা হয় কিন্তু বিষয়গুলি যতটা না রাজনৈতিক তার চেয়েও অধিক দায়ী পুরুষতান্ত্রিক সমাজের পুরুষদের মনোভাব। দীর্ঘদিনের মননে নারীদের নিচু স্তরের ভেবে চলার বহিঃপ্রকাশ। বাংলাদেশর প্রতিবছর প্রায় ১৫ লক্ষ মামলা হয়ে থাকে। এই যে বিপুল পরিমাণ মামলা তা সামলানোর মত পর্যাপ্ত জনবল আমাদের নেই। এটির ফলেও মামলা বছরের পর বছর ঝুলে থাকে এবং অপরাধীরা নির্ভয়ে থাকে--নতুন অপরাধ ঘটাবার জন্য উৎসাহী হয়।         

২.  ইদানিং ধর্ষণের সাথে ক্রসফায়ার শব্দটি বহুল আলোচিত হচ্ছে। সাথে ধর্ষণকারীর শিশ্নকর্তনের দাবিটিও অনেকে করছেন। কিন্তু দুটি দাবিই বিচারবহির্ভুত ও মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।  অপরাধীরও যে ন্যায়বিচার পাবার অধিকার রয়েছে সেটিই মানবাধিকার। উল্লিখিত ক্রসফায়ারের ফলে নিরপরাধ ব্যক্তিও সাজা পেতে পারে সেটি আমাদের মনে রাখা প্রয়োজন। এর ফলে নতুন অপরাধী গড়ে উঠতে পারে। কারণ, যদি ক্রসফায়ারের শিকার ব্যক্তি কোন পরিবারের প্রধান উপার্জনক্ষমকারী হন তাহলে সে পরিবারটি বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়। সামাজিকভাবে বিচ্ছিন্ন হয়, পরিবারের শিশুরা সবার সাথে মেশার সুযোগ পায়না, দারিদ্রতায় নিপতিত হওয়া সহ নানা সমস্যায় পড়ে। যা নতুন অপরাধী গড়ে উঠতে সাহায্য করে। সুতরাং যদি বিচারহির্ভুত ক্রসফায়ার করা হয় তাহলে তা হীতে বিপরীত হবে।   

অপরাধীরা অবিবেচনা প্রসূত কাজ করতে পারে কিন্তু আইনি প্রক্রিয়া তো আর সেটি করতে পারে না--তাদের ন্যায়বিচার পাবার অধিকার রয়েছে। বিচারব্যবস্থা শুধুমাত্র অপরাধের মাত্রানুযায়িই শাস্তি প্রদান করতে পারে। কারণ সংবিধানে সকলের বেঁচে থাকার ও ন্যায়বিচার পাবার অধিকারটি নিশ্চিত করা হয়েছে।       

৩.  অপরাধ কিংবা ধর্ষণ দমনে সমাজের শেকড় থেকে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। এক্ষেত্রে বিট পুলিশিং ব্যবস্থা একটি কার্যকরী উপায় হতে পারে।  বাংলাদেশের পুলিশ প্রবিধানের ১০৮৭ তে বিট পুলিশিংয়ের কথা বলা হয়েছে। যদি সেখানে শহরকেন্দ্রিক বিট পুলিশিং ব্যবস্থার কথা বলা হয়েছে কিন্তু এ পদ্ধতিটি গ্রাম এলাকাতেও কাজে লাগানো যেতে পারে। মূলত এটি পুলিশিং ব্যবস্থাকে জনবান্ধব করার কার্যক্রম। বিট পুলিশিং ব্যবস্থা সর্বপ্রথম লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশে ব্যবহার করা হয়। ২০১০ সালে ঢাকা মহানগর পুশিলে বিট পুলিশিং পদ্ধতিটি ব্যবহৃত হয়। বিট পুলিশিং হলো কমিউনিটি পুলিশিং ব্যবস্থার আগের ধাপ।     

বিট হলো একটি নির্দিষ্ট ভৌগোলিক এলাকা। এটি হতে পারে নির্দিষ্ট থানার অধীনে মহল্লা, ওয়ার্ড, ইউনিয়ন পরিষদ কিংবা গ্রাম। এই নির্দিষ্ট এলাকাগুলির দায়িত্বে থাকবেন একজন করে এসআই। জনবলের অভাবে এএসআইও দায়িত্বে থাকতে পারেন। নির্দিষ্ট বিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারগণ নিজে থেকেই জনগণের কাছে যাবেন। 

তাদের সমস্যা শুনবেন, প্রয়োজনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাো নিবেন।      বাংলাদেশে পুলিশি সাহায্য চাইতে গিয়ে হয়রানির কথা প্রায়ই শোনা যায়। দূরবর্তী স্থানে থানার অবস্থানের কারণে আশু বিপদে সাহায্য করার সুযোগ থাকে না পুলিশের এবং এলাকা তদকরকিও করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এইসময়ে বিট পুলিশিং ব্যবস্থা হয়ে উঠতে পারে সহায়ক। কারণ এই ব্যবস্থায় দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারগণ নিয়মিত তদারকি করবেন। 

শহরাঞ্চলে তৎক্ষনাৎ সাহায্য পাওয়ার জন্য যেমন পুলিশ ফাঁড়ি রয়েছে তেমনি গ্রামাঞ্চলে তাৎক্ষণিক সাহায্য প্রদানের জন্য অন্তত প্রতিটি ইউনিয়নে স্থায়ীভাবে বিট পুলিশিং সেবা নিশ্চিত করনের জন্য পুলিশি দপ্তর থাকবে। যেখান থেকে প্রতিটি বিটের কার্যক্রম পরিচালিত হবে।     

বিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারগণ বিটের জনগণের তথ্য সংগ্রহ করবে, এলাকায় বিপজ্জনক স্থানসমূহ চিহ্নিত করবে, এলাকায় আগমণকৃত অজ্ঞাত পরিচিত ব্যক্তি ও সন্দেহজনক ব্যক্তিকে তদারকি করবে, প্রয়োজনে জিজ্ঞাসাবাদও করবে। এলাকার সন্ত্রাসী, মাস্তান, চাঁদাবাজ, ছিনতাইকারীদের ক্ষেত্র দ্রুত পদক্ষেপ নিতে পারবে। বিভিন্ন ছোটখাঠ সমস্যাও সমাধান করবে এই বিট পুশিলিং।     

শেষকথা, আমাদের মনে রাখতে হবে, মানুষ অপরাধী হিসেবে জন্মগ্রহণ করে না। সমাজ ও পারিপ্বার্শিক পরিবেশ অপরাধীকে লালন করে। তারই ছত্রছায়ায় বেড়ে ওঠে। সুস্থ সংস্কৃতি চর্চার অভাব, শিশুকে মূল্যবোধ না শেখানোর কারণেও অপরাধাী গড়ে ওঠে। তাই আমাদের অপরাধী গ্রেফতারের আগে সামাজিক সমস্যাগুলো নিরসনে গুরুত্ব দিতে হবে। এমন পরিবেশ নিশ্চিত ও শিক্ষা প্রণয়ন করতে হবে যে নতুন অপরাধীর যেন সৃষ্টি না হয়।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

কুলাউড়ার রবিরবাজারে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারালো শিশু

কুলাউড়ার রবিরবাজারে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারালো শিশু

কবরস্থানে নড়ে  ওঠা সেই শিশু মারা গেছে

কবরস্থানে নড়ে ওঠা সেই শিশু মারা গেছে

প্রেম করে  বিয়ে,পরকীয়া করে সন্তানসহ টাকা নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী

প্রেম করে বিয়ে,পরকীয়া করে সন্তানসহ টাকা নিয়ে উধাও প্রবাসীর স্ত্রী

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

বরিশালে অচেতন অবস্থায় নারী কর্মকর্তাকে নদী থেকে উদ্ধার

বরিশালে অচেতন অবস্থায় নারী কর্মকর্তাকে নদী থেকে উদ্ধার

স্ত্রীর কাছ থেকে তালাকের নোটিশ পেয়ে  দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী

স্ত্রীর কাছ থেকে তালাকের নোটিশ পেয়ে দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

নবাবগঞ্জে প্রেমিকের বাড়িতে টিভি দেখতে গিয়ে একাধিক বার ধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী

নবাবগঞ্জে প্রেমিকের বাড়িতে টিভি দেখতে গিয়ে একাধিক বার ধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী

ভোতা অস্ত্রের আঘাতে রায়হানের  মৃত্যু হয়েছে

ভোতা অস্ত্রের আঘাতে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে

যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানকে ডিবি পরিচয়ে  তুলে নেওয়ার অভিযোগ

যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

আমতলীতে অতিবর্ষনে জনজীবন বিপর্যস্থ, জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেলে আমন ধানের ক্ষেত

আমতলীতে অতিবর্ষনে জনজীবন বিপর্যস্থ, জলাবদ্ধতায় তলিয়ে গেলে আমন ধানের ক্ষেত

নোয়াখালীতে অস্ত্রেরমুখে প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণ, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

নোয়াখালীতে অস্ত্রেরমুখে প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণ, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ আরও ঘণীভূত নিম্নচাপে রূপ নেওয়ার আশঙ্কা

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ আরও ঘণীভূত নিম্নচাপে রূপ নেওয়ার আশঙ্কা

বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য অধ্যাপক জিয়া রহমানকে আইনী নোটিশ

বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য অধ্যাপক জিয়া রহমানকে আইনী নোটিশ

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

সর্বশেষ

সুখবর দিলেন মিথিলা!

সুখবর দিলেন মিথিলা!

রাজস্থানকে ৮ উইকেটে হারিয়ে প্লে-অফের আশা জিইয়ে রাখল হায়দরাবাদ

রাজস্থানকে ৮ উইকেটে হারিয়ে প্লে-অফের আশা জিইয়ে রাখল হায়দরাবাদ

মন্দিরে নগদ অর্থ ও মাস্ক বিতরণ করেছেন পৌর প্রশাসক বকর প্রধান

মন্দিরে নগদ অর্থ ও মাস্ক বিতরণ করেছেন পৌর প্রশাসক বকর প্রধান

ময়মনসিংহের নান্দাইলে মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে সাইকেল বিতরণ

ময়মনসিংহের নান্দাইলে মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে সাইকেল বিতরণ

শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যান শহীদ ইকবাল

শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যান শহীদ ইকবাল

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

মিঠাপুকুরে স্বাক্ষর জালিয়াতির মাধ্যমে ৩লক্ষাধিক টাকার বিল উত্তোলনের অভিযোগ

বরুড়ায় পিতৃহীন অসুস্থ সন্তানকে বাঁচাতে এক মায়ের আকুতি

বরুড়ায় পিতৃহীন অসুস্থ সন্তানকে বাঁচাতে এক মায়ের আকুতি

কলারোয়ায় গ্রীস্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শনে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

কলারোয়ায় গ্রীস্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শনে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি সভা

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি সভা

আশাশুনিতে মিথ্যে মামলা থেকে স্কুল শিক্ষক পিতার অব্যহতির দাবিতে সন্তানদের সংবাদ সম্মেলন

আশাশুনিতে মিথ্যে মামলা থেকে স্কুল শিক্ষক পিতার অব্যহতির দাবিতে সন্তানদের সংবাদ সম্মেলন

আফগানিস্তানে মাদ্রাসায় বিমান হামলায় নিহত ১২ জন

আফগানিস্তানে মাদ্রাসায় বিমান হামলায় নিহত ১২ জন

সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের মতবিনিময় সভা

সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের মতবিনিময় সভা

পরিবহন খাতকে মাদকাসক্ত মুক্ত করতে সাতক্ষীরা পুলিশের উদ্যোগে চালকদের ডোপ টেস্ট, ৫ জন পজিটিভ

পরিবহন খাতকে মাদকাসক্ত মুক্ত করতে সাতক্ষীরা পুলিশের উদ্যোগে চালকদের ডোপ টেস্ট, ৫ জন পজিটিভ

বাহুবলে সেনাবাহিনীর গাড়ির সাথে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ" আহত ২০

বাহুবলে সেনাবাহিনীর গাড়ির সাথে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ" আহত ২০

শায়েস্তাগঞ্জে বিদুৎপৃষ্টে দুই পা হারানো নদীর পাশে দাড়ালেন অশোক মাধব রায়

শায়েস্তাগঞ্জে বিদুৎপৃষ্টে দুই পা হারানো নদীর পাশে দাড়ালেন অশোক মাধব রায়