Feedback

সাহিত্য, গল্পসল্প

নুশাইবার আগামী

নুশাইবার আগামী
October 14
04:37pm
2020
Fahmida Reea
Boalia, Rajshahi:
Eye News BD App PlayStore

---- নুশাইবার ব্যাপারে কি ঠিক করলি মেজো?

বাবার কথায় পেপার থেকে চোখ তুলে তাকালো তুষার।

----- কোন ব্যাপার বাবা?

----- নতুন বছর আসতেতো দেরি নেই আর, কোথায় ভর্তি করবি?

----- বাড়ি থেকে যেটা কাছে সেটাতেই।

পাশে বসে টিভির রিমোট ঘুরাতে ঘুরাতে বললেন মা,

----- শোনো ছেলের কথা। দূরত্ব দেখে কেউ স্কুল পছন্দ করে?  মান দেখবি না?

বড় খোকা শাবাব নুশাইবাকে নিয়ে রুমে ঢুকতে ঢুকতে বললো

------ কিসের মান নিয়ে কথা বলছো মা?

মেজো হাসতে হাসতে বললো, 

------ আর কার? বাড়ির একমাত্র সম্রাজ্ঞী নুশাইবার  মুল্যবান ভবিষ্যত নিয়ে ওর দাদা দাদীর স্কুল নির্ধারনি আলোচনা সভা আর কি। হা হা হা....

শাবাব নুশাইবাকে সোফায় বসিয়ে বললো,

----- হুম। তুমিই বলোতো নুশাইবা, কোন স্কুলে যাবে? 


সান্ধ্যকালিন এই চায়ের আসরটি এ বাড়িতে বরাবর ড্রয়িং রুমেই বসে টিভি দেখতে দেখতে। অফিস থেকে ছেলেরা আর ছেলে বৌরা ফিরে আসতে আসতে সন্ধ্যে প্রায়। ফ্রেশ হয়ে সবাই ড্রয়িং রুমে জড়ো হয়। পারিবারিক দেখা সাক্ষাৎ আর টুকটাক কথাবার্তার একটা গন্ডি মেইনটেইন করা যাকে বলে। তারপর যে যার মত আপন কাজে। দিনমান ব্যস্ততার ফাঁক এই এটুকুই। শাশুড়ির নির্দেশনায় দুই বৌ মিলে রান্না আর খাবার দাবারের পরিচালনাটা সময় বুঝে ঠিকঠাকই ম্যানেজ করে নেয় দীর্ঘ দিনের সাহায্যকারী অভিজ্ঞ নুরেশার সহযোগীতায়।

শাশুড়ি মাও আজকাল  আগের মত কুলিয়ে ওঠতে পারেন না শারিরীক দুর্বলতায়। সাংসারিক ঝামেলাগুলো যতটা পারেন এড়িয়ে চলতে চান। চলেনও।

বৌমারাও নির্ঝঞ্ঝাট তেমনি। শাশুড়ির মতের উপর  চলতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। সারাদিনমান তারা দুজনই দুই কর্মস্থলে নিশ্চিন্ত থাকার বড় ওষুধ হচ্ছে বাচ্চাগুলোকে আদরে মুড়িয়ে নির্ভাবনায় রাখেনতো এই মমতাময়ী শাশুড়ি মাই। বড় ছেলে আর মেজো ছেলেরও কথা একটাই। চাকুরী একটা কেন? দশটা করো, তবে বাচ্চাদের অনিরাপত্তায় রেখে নয়। সত্যি কথা বলতে কি, এই সুযোগটার কারণেই ওদের কখনই যৌথ পরিবার ছেড়ে একক পরিবারে থাকার কথাটা কল্পনাতেও আসে না।

অফিস যাবার আগে ব্যস্ততা থাকলেও, অফিস থেকে ফিরে শাশুড়ি মাকে বেশ কিছুটা সময় দিতে কখনই কার্পণ্য করে না দুজনার কেউ। আর এ কারণেই ওদের ফিরবার অপেক্ষাটা শাশুড়ি মা'র প্রহর গুনার মত। 

প্রতিদিনের মত টিভিটা অন থাকলেও দর্শকদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে ব্যর্থ হয়ে আপন মনেই চলতে থাকে ওটা।

পুডিং আর ছোলা ভুনা অথবা চিকেন নাগেটস এর সাথে ক্রিম কাস্টার্ড নয়তো সাবুর পায়েশের সাথে চিকেন ফ্রাই বা কখানা অন্থন এক একদিন এক এক রকম পসরা সাজিয়ে সেন্টার টেবিলের চারপাশে গোল হয়ে বসেন বাড়ির সদস্যরা।

বড় খোকার যমজ ছেলে যাবের আর যাহের প্রাইমারী পেরিয়ে হাইস্কুলে ওঠেছে সবে। সামনের এক চিলতে লনটায় সারা বিকেল ব্যাট পিটিয়ে ফ্রেশ হয়ে এসে নিত্য অভ্যেসমত দাদার দুপাশে বসে আর দাদার ভাগের দুটো চারটেতে ভাগ বসায়। 

আর মেজো খোকার মেয়ে নুশাইবা দাদীর পুরো কোল জুড়ে বসে রাজ্যের চমকপ্রদ অভিনব উদ্ভাবনী কথার যাদুতে দৃষ্টি কাড়ে সবারই আনন্দের খোরাক হয়ে। 

নুরেশার চা এর ট্রে আসতেই ওরা তিন জনই এই আসর থেকে আড়াল হয়ে যার যার পড়ার টেবিলে হোম ওয়ার্ক নিয়ে বসে। হাতে হাতে চায়ের কাপ নিয়ে বড় আর মেজো খোকা বাবার পাশ ঘেঁষা সোফা দুটোয় বসে রাজনীতির বুলি কপচায়। বাবাও পুরনো দিনের আপন মতানুসারীর লম্বা বক্তৃতা ঝেড়ে দেন ছেলেদের কথার পিঠে। রিমোট ঘুরিয়ে চ্যানেল পাল্টান। টিভি দেখেন কথার ফাঁকে ফাঁকে। প্রবাসে পড়তে যাওয়া ছোটো খোকাও ফ্রি থাকলে কল দেয়, একসাথে সবাইকে পেতে।

বড় বৌমা আর মেজো বৌমা শাশুড়ির কানের কাছে গলা নামিয়ে বলে, 

-----মা আজ খবর দেখেছেন? কি ভয়ানক। 

মাথা নাড়লেন শাশুড়ি মা।

----- হুম, দেখেছি। দুপুরে তোমাদের ম্যাসেঞ্জারে ঢুও দিয়েছি কিন্তু অনেকগুলো কালো প্রোফাইলের ভীড়ে আমার আনাড়ি চেষ্টা ব্যর্থ হলো। একই প্রোফাইলের চিহ্নে তোমাদের খুঁজে পেলাম না। কি বর্বরতা। একের পর এক এসব কি শুরু হলো বলোতো? আজকের খবরটা জানবার পর থেকে কতবার যে টেনশনে সামনের ব্যালকনিতে গিয়ে দাঁড়িয়েছি, তোমাদের অপেক্ষায়।

মেজো বৌ তেমনি নীচু স্বরেই বললো আবার,

----- বাড়িতে পৌঁছুলেই কি আর টেনশন ফুরোয় মা?

ঘরেও যে মেয়েরা কতটুকু নিরাপদ তাতো শুনতেই পাচ্ছি একাধিক ঘটনায়।

মাথা নাড়লেন শাশুড়ি মা।

-----এই  এখনকার মেয়েগুলোর মা, সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত স্কুল, কোচিং প্রাইভেট, আর্ট, গান, নাচ ,আবৃত্তি, এ কোর্স, ও কোর্স কত কিছুর জন্যে সারাটা দিন আগলে নিয়ে বেড়ান, কাড়ি কাড়ি টাকা ঢালেন। মেয়েকে সুপ্রতিষ্ঠিত করবেন, সুপাত্রের হাতে তুলে দিয়ে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবেন বলে। 

এই কি তার নমুনা?

কদিন পরে আমাদের নুশাইবা.......

কেঁপে ওঠে শাশুড়িমার গলা।

ওপাশে টিভির সামনে তখন বাবা আর ছেলেদের আড্ডা জমে ওঠেছে খেলা নিয়ে। যাবের যাহেরের প্রশংসনীয় ব্যাটতো বটেই ছোট্ট নুশাইবাও কম যায় না চমৎকার ব্যাটিং থেকে।

বড় খোকাতো উত্তেজনায় বলেই বসলো,

----- আমিতো রিতীমত অবাক নুশাইবার মেধা দেখে। শুদু কি খেলা? জীবনানন্দ হুবহু মুখস্হ করে শোনালো আমাকে প্রায় দশ/ বারো লাইন। ও আবৃত্তিতে  নাম করবে বড় হলে।

নুশাইবার দাদাও কম যান না। হাসতে হাসতে বললেন,

----- তোরা আর কতটুকু সময় পাস  ওকে দেখার। সারাটা দিনতো ওর কারিশমা দেখি আমি আর তোর মা। আরে, টিভিতে শুনে শুনে কত গানই যে গলাধঃকরণ করেছে একরত্তি মেয়েটা। ওকে বরং পড়ালেখার পাশাপাশি একটা গানের স্কুলেই দিয়ে দে। গলায় সুর আছে, ভালো করবে।

শাশুড়ি মা হঠাৎ করেই নিজেদের গল্পের মাঝ থেকে ওপাশের কথার জের টেনে বললেন,

----- সব কিছুর আগে নুশাইবা ভর্তি হবে মার্শাল আর্ট স্কুলে। আর তা কালই। আমি নিয়ে যাব নুশাইবাকে। বড় বৌমা মেজো বৌমা তোমরা দুজনও আমার সাথে যাবে। নিজেদের সম্মান রক্ষা করতে চাইলে অফিসের ফাঁকে ফাঁকে একটু সময় তোমাদেরও দিতে হবে ওখানে। দিন বদলেছে, বড় খোকা, মেজো খোকার দায় থাকলেও  কখনও কখনও নিজের আত্মরক্ষার দায় নিজেকেই নিতে হবে। নুশাইবাও বড় হবে নিজ সাহসেই, যাবের যাহেরের আগলে রাখা বোন হিসেবে শুধু নয়।

**************


All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

ফ্রান্সে আরও ৩৫টি ওয়েবসাইট হ্যাক করল Royal Battler BD এবং Bangladesh Civilian Force

ফ্রান্সে আরও ৩৫টি ওয়েবসাইট হ্যাক করল Royal Battler BD এবং Bangladesh Civilian Force

কিশোরগঞ্জে জুয়ার আসরে র‌্যাবের হানা, আটক ১০

কিশোরগঞ্জে জুয়ার আসরে র‌্যাবের হানা, আটক ১০

মাত্রাতিরিক্ত ক্রেডিট ফির যাঁতাকলে পিষ্ট হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা"

মাত্রাতিরিক্ত ক্রেডিট ফির যাঁতাকলে পিষ্ট হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা"

ধর্ষণের কারন ও উৎস্য মোবাইলে পর্ণো ছবি ও যৌন উত্তেজক ঔষধ

ধর্ষণের কারন ও উৎস্য মোবাইলে পর্ণো ছবি ও যৌন উত্তেজক ঔষধ

‘হু আর ইউ ' অ্যাম আই এ ক্রিমিনাল? র‍্যাবকে মদ্যপ হাজীপুত্র

‘হু আর ইউ ' অ্যাম আই এ ক্রিমিনাল? র‍্যাবকে মদ্যপ হাজীপুত্র

সুদের টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় স্ত্রীকে ঋণদাতার হাতে তুলে দিলেন স্বামী

সুদের টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় স্ত্রীকে ঋণদাতার হাতে তুলে দিলেন স্বামী

আবারো দুঃসংবাদ দিলো আবহওয়া অধিদপ্তর

আবারো দুঃসংবাদ দিলো আবহওয়া অধিদপ্তর

দুই বিদেশি কুকুর ও ১০ দেহরক্ষী নিয়ে এলাকায় চক্কর দিতেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান!

দুই বিদেশি কুকুর ও ১০ দেহরক্ষী নিয়ে এলাকায় চক্কর দিতেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান!

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

পাকুন্দিয়া পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনে ঋন জালিয়াতি ও দুর্নীতি

পাকুন্দিয়া পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনে ঋন জালিয়াতি ও দুর্নীতি

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

Royal Battler BD এবং Bangladesh Civilian Force এর একত্র আক্রমণ এ ফ্রান্সের আরো ৩০ ওয়েব সাইট দখল

Royal Battler BD এবং Bangladesh Civilian Force এর একত্র আক্রমণ এ ফ্রান্সের আরো ৩০ ওয়েব সাইট দখল

রিফাত হত্যা: অপ্রাপ্তবয়স্ক ৬ আসামিকে আদালতে হাজির করেছে পুলিশ

রিফাত হত্যা: অপ্রাপ্তবয়স্ক ৬ আসামিকে আদালতে হাজির করেছে পুলিশ

সর্বশেষ

ভিয়েতনামে শক্তিশালী টাইফুন, নিখোঁজ ২৬ জেলে

ভিয়েতনামে শক্তিশালী টাইফুন, নিখোঁজ ২৬ জেলে

সিনহা হত্যা: আবারো ৫ দিনের রিমান্ডে কনস্টেবল রুবেল শর্মা

সিনহা হত্যা: আবারো ৫ দিনের রিমান্ডে কনস্টেবল রুবেল শর্মা

রাজীবপুরে হাত ধোয়া দিবস উদযাপন

রাজীবপুরে হাত ধোয়া দিবস উদযাপন

ঢাবির লাইব্রেরির পেছনে পাওয়া গেল নবজাতকের লাশ

ঢাবির লাইব্রেরির পেছনে পাওয়া গেল নবজাতকের লাশ

মহানবী( সঃ ) কে অবমাননা করায় কলাপাড়ায় বিক্ষোপ সমাবেশ

মহানবী( সঃ ) কে অবমাননা করায় কলাপাড়ায় বিক্ষোপ সমাবেশ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

আকবরের পলায়ন: কী আছে পুলিশ সদর দফতরের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে?

আকবরের পলায়ন: কী আছে পুলিশ সদর দফতরের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে?

অস্ট্রেলিয়ায় সম্মাননা পেলেন সিলেটের চমন

অস্ট্রেলিয়ায় সম্মাননা পেলেন সিলেটের চমন

কবিতা- অনুশোচনা

কবিতা- অনুশোচনা

সিলেটে হবে বিদেশগামীদের জন্য আলাদা করোনা পরীক্ষাগার

সিলেটে হবে বিদেশগামীদের জন্য আলাদা করোনা পরীক্ষাগার

চুনারুঘাটে  ৪জন বালু খেকোকে কারাদন্ড প্রদান

চুনারুঘাটে ৪জন বালু খেকোকে কারাদন্ড প্রদান

রায়হান হত্যা : দায় স্বীকার করেননি টিটু, কারাগারে প্রেরণ

রায়হান হত্যা : দায় স্বীকার করেননি টিটু, কারাগারে প্রেরণ

সবার জন্য নিরাপদ আবাসন নিশ্চিতে সিসিক কাজ করছে: মেয়র  আরিফ

সবার জন্য নিরাপদ আবাসন নিশ্চিতে সিসিক কাজ করছে: মেয়র আরিফ

শিবগঞ্জ থানায় জব্দকৃত চাল হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণ

শিবগঞ্জ থানায় জব্দকৃত চাল হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণ

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে