Feedback

জাতীয়, আইন-আদালত

আবরারকে মৃত ঘোষণাকারী বুয়েট চিকিৎসকের সাক্ষ্য গ্রহণ

আবরারকে মৃত ঘোষণাকারী বুয়েট চিকিৎসকের সাক্ষ্য গ্রহণ
October 11
05:21pm
2020
Masud Rana
Kotwali, Dhaka:
Eye News BD App PlayStore

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ রাব্বীকে মৃত ঘোষণাকারী বুয়েট চিকিৎসক ডা. মো. মাসুক এলাহীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল। 

রোববার ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান এ সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ বেলা সাড়ে ১১টা থেকে শুরু করেন। প্রথমে এ সাক্ষী বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ট্রাইব্যুনালে জবানবন্দি প্রদান করেন। এরপর আইনজীবীরা তাকে জেরা শুরু করেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জেরা চলমান রয়েছে। জবানবন্দিতে ডা. মো. মাসুক এলাহী বলেন, ২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর ভোর ৮টা থেকে ৭ অক্টোবর ভোর ৮টা পর্যন্ত বুয়েট মেডিকেল সেন্টারের ইমারজেন্সিতে কর্মরত ছিলাম। ৭ অক্টোবর রাত ২টা ৪৭ মিনিটে আমার কাছে একজন ছাত্র পরিচয়ে ফোন করে বলে যে, একজন ছাত্র অসুস্থ, স্বাসকষ্ট হচ্ছে, দ্রুত শেরেবাংলা হলে আসতে। আমি এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার কালামকে সাথে নিয়ে ফোনের ১০ মিনিটের মধ্যে ওই হলের সামনে যাই। সেখানে যাওয়ার পর ১০/১৫ জন ছাত্র এ্যাম্বুলেন্স ঘিরে ধরে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও স্ট্রেজার আনতে বলে। আমি বলি আগে রোগী দেখি, এরপর প্রয়োজন হলে যা করণীয় করব। ছাত্ররা আমাকে উত্তর ব্লকের সিঁড়ির নিকট নিয়ে যায়। একতলা ও দোতলার মাঝামাঝি সিঁড়িতে ট্রাউজার ও ফুলহাতা শার্ট পরিধানরত তোষকের উপর শোয়ানো অবস্থায় ছাত্র আবরারকে দেখতে পাই। তোষক ও ট্রাউজার ভেজা ছিল। আমি পরীক্ষা থেকে তাকে মৃত ঘোষণা করি। এর মধ্যে আমার পাশে দাঁড়ানো ১০/১৫ জন ছাত্ররা দ্রুত চলে যায়। কিছুক্ষণ পর একজন ছাত্র আসে। সে নিজের নাম রাসেল ও বুয়েট শাখার ছাত্র লীগের সেক্রেটারী পরিচয় দেয়। সে বলে আবরার মারা যায়নি। সে ঘুমাচ্ছে। কিছুক্ষণ আগেও আমরা তার (আবরার) সাথে কথা বলেছি। বলে, আপিন ওকে বুয়েট মেডিকেলে বা ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যান। আমি বলি নিয়ে লাভ নেই, সে মারা গেছে। এরপর আমি বুয়েটের প্রভোষ্ট ড. জাফর ইকবাল স্যারকে ফোন দিয়ে ঘটনা জানাই। তিনিসহ ডিএসডব্লুউ স্যার ও সহকারী প্রভোষ্ট স্যার আসেন। 

এরপর বুয়েটের সিকিউরিটি অফিসার আজাদ এসে পুলিশকে ফোন দিলে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মধ্যে পুলিশ এসে সুরতাল রিপোর্ট তৈরি করে আমার স্বাক্ষর নেয়। পরবর্তীতে বুয়েটের যে এ্যাম্বুলেন্স ও ও স্ট্রেচারে আবরারের লাশ ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয় সেই এ্যাস্বুলেন্স ও স্ট্রেচার পুলিশ জব্দ করে সেই জব্দ তালিকায় আমি স্বাক্ষর করি। 

মামলার রাষ্ট্র ও বুয়েট কর্তৃক নিয়োগকৃত প্রসিকিউটর এহসানুল হক সমাজী ও রাষ্ট্রপক্ষে প্রসিকিউটর মো. আবু আব্দুল্লাহ ভূঁইয়া সাক্ষ্য গ্রহণে ট্রাইব্যুনালকে সহায়তা করেন।  মামলায় ২২ জন আসামি কারাগারে রয়েছেন। যাদের সাক্ষ্য গ্রহণকালে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়েছে। অপর ৩ জন আসামি পলাতক আছেন।  এর আগে মামলাটিতে নিহত আবরারের বাবা বরকত উল্ল্যাহসহ ৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ করেছেন ট্রাইব্যুনাল।   

আবরার বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) ছাত্র ছিলেন। তিনি থাকতেন বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলার ১০১১ নম্বর কক্ষে। গত বছর ৬ অক্টোবর একই হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে তাঁকে নির্যাতন করে তাকে হত্যা করা হয়। রাত ৩টার দিকে হল থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাক-ের পর তার বাবা বরকত উল্লাহ ১৯ জনকে আসামি করে ওই বছর ৭ অক্টোবর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।  মামলার পর ওই বছর ১৩ নভেম্বর ডিবি পুলিশের পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. ওয়াহিদুজ্জামান ২৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এরপর গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিচারক আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জগঠন করেন।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

আজ মিন্নিকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর কারাগারে নেওয়া হল

আজ মিন্নিকে বরগুনা থেকে কাশিমপুর কারাগারে নেওয়া হল

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ঠাকুরগাঁওয়ে বন্ধুকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদন্ডাদেশ

ঠাকুরগাঁওয়ে বন্ধুকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ৩ জনের মৃত্যুদন্ডাদেশ

রায়হানকে পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে যাওয়া সেই এসআই গ্রেপ্তার

রায়হানকে পুলিশ ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে যাওয়া সেই এসআই গ্রেপ্তার

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি  বাড়ল১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

ছাত্রজীবনে মাসিক আয় ১ লাখ!

ছাত্রজীবনে মাসিক আয় ১ লাখ!

শিশু গৃহকর্মীর মরদেহ রেখে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রী আটক

শিশু গৃহকর্মীর মরদেহ রেখে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রী আটক

অফিস নিচ্ছে গণ অধিকার পরিষদ

অফিস নিচ্ছে গণ অধিকার পরিষদ

অক্ষয় কুমার পাহাড় কিনে নিলেন কানাডায়

অক্ষয় কুমার পাহাড় কিনে নিলেন কানাডায়

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

ফুঁসলিয়ে ঝোপে নিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আটক

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

সর্বশেষ

সিলেটে শনাক্ত অর্ধশতাধিক, সুস্থ ৩৮

সিলেটে শনাক্ত অর্ধশতাধিক, সুস্থ ৩৮

পন্য বয়কট এর শাস্তি যথেষ্ট নয়-মাহাথির মুহাম্মদ

পন্য বয়কট এর শাস্তি যথেষ্ট নয়-মাহাথির মুহাম্মদ

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা  বরিশাল বিভাগীয়  কারাগারে

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে

ঘর পাচ্ছেন একশত পরিবার

ঘর পাচ্ছেন একশত পরিবার

মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ার আল্লারদর্গায় বিক্ষোভ

মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ার আল্লারদর্গায় বিক্ষোভ

আমতলীতে সরকারী নির্দেশনা উপেক্ষা করে মাছ শিকার, চার জেলের সাত দিনের কারাদন্ড

আমতলীতে সরকারী নির্দেশনা উপেক্ষা করে মাছ শিকার, চার জেলের সাত দিনের কারাদন্ড

সিলেটে লাইন ভুল করে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ, ট্রেন চলাচল বিঘ্ন

সিলেটে লাইন ভুল করে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ, ট্রেন চলাচল বিঘ্ন

সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেঃ ফখরুল

সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেঃ ফখরুল

ফানি ভিডিওর আড়ালে অশ্লীলতার ছড়াছড়ি

ফানি ভিডিওর আড়ালে অশ্লীলতার ছড়াছড়ি

স্বাধীনতার ৫০ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি রৌমারী’র চর লাঠিয়াল ডাঙ্গায়

স্বাধীনতার ৫০ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি রৌমারী’র চর লাঠিয়াল ডাঙ্গায়

এএসআই শাহ জামালের বাবা-মায়ের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিলেন সাতক্ষীরার এসপি

এএসআই শাহ জামালের বাবা-মায়ের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিলেন সাতক্ষীরার এসপি

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

সরিষাবাড়ীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তথ্য প্রতিমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া ও মিলাদ

মুসলিম স্থাপত্যের অনন্য নিদর্শন ‘সুরা মসজিদ’

মুসলিম স্থাপত্যের অনন্য নিদর্শন ‘সুরা মসজিদ’

ডানডকের বিপক্ষে আর্সেনালের জয়

ডানডকের বিপক্ষে আর্সেনালের জয়

মাধ্যমিকের ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

মাধ্যমিকের ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ