Feedback

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স: যে স্বৈরাচারীর মৃত্যু নেই

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স: যে স্বৈরাচারীর মৃত্যু নেই
October 08
03:36pm
2020
M Nazmul Hossain
Nawabgonj, Dhaka:
Eye News BD App PlayStore

বিখ্যাত ইংরেজ গনিতবিদ অ্যালান টুরিং সর্বপ্রথম ১৯৪৭ সালে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা সম্পর্কে ধারণা দেন।১৯৫০ সালে computing machinery intelligence নামে একটি লেখা প্রকাশ করেন যেখানে তিনি যন্ত্রের মধ্যে মানুষের বুদ্ধিমত্তা ব্যবহারের সম্ভাব্যতা সম্পর্কে বলেন।তার মতে যন্ত্র যদি মানুষের মতোই চিন্তা করতে পারে বা কাজ করতে পারে তবে তাকে বুদ্ধিমান ই বলা উচিত।   

পরবর্তীতে ১৯৫৫ সালে জন ম্যাকার্থি প্রথম Artificial intelligence টার্মটি ব্যবহার করেন। ১৯৫৬ সালে তিনি নিউহ্যামশায়ারের হ্যানোভার শহরের ডার্টমাউট কলেজের এক কনফারেন্স এ এটি প্রকাশ করেন। এজন্য জন ম্যাকার্থিকে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার অন্যতম জনক বলা হয়।  মূলত কম্পিউটার প্রোগ্রাম তথা যন্ত্রের মধ্যে মানুষের সমান বুদ্ধিমত্তা ও চিন্তাশক্তি প্রদানের যে গবেষণা তাকেই আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বলে। অর্থাৎ যন্ত্র বা মেশিন যখন মানুষের মতো বুদ্ধিমান হয়, সেটিই এআই।যুক্তি প্রদান,সমস্যার সমাধান, ভাষা বোঝা,উপলব্ধি,আবেগ অনুভূতি,শিক্ষা,প্রশিক্ষন,পরিকল্পনা প্রণয়ণ,বস্তুর অবস্থানের পরিবর্তন ঘটানোর মতো সামর্থ্য সম্পন্ন যন্ত্রই হলো কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন যন্ত্র। 

আজকের যুগে এই ২০২০ সালে দাড়িয়ে এআই কে অস্বীকার করার কোনো সুযোগ নেই।এর একটা সাধারণ প্রমান আমি দেই।ধরা যাক কেউ ইউটিউবে একটা হিন্দি মুভি দেখলো।পরে আবার যখন সে ইউটিউব ওপেন করবে তখন সে সেখানে অসংখ্য হিন্দি মুভির সাজেশান দেখতে পাবে।যে ধরনের মুভি আপনি দেখেছেন ঠিক সে ধরণের মুভিই সে সাজেস্ট করবে।অর্থাৎ ইউটিউব বুঝতে পেরেছে আপনি হিন্দী মুভি দেখতে আগ্রহী তাই সে নিজে আপনার জন্য একটি সাজেশান তৈরী করেছে।এটাই এআইয়ের উদাহরণ। এর মানে হচ্ছে এআই এখন আর সাইন্স ফিকশনের পাতায় সীমাবদ্ধ নেই।সাইন্সফিকশনে আমরা যেমন বিভিন্ন বুদ্ধিভিত্তিক রোবটের কথা পড়ে থাকি,সেটা কিন্তু এখন বাস্তবেই দেখা যাচ্ছে। 

সর্বসাম্প্রতিক আলোচিত রোবট 'সোফিয়া'।যে বাংলাদেশ ঘুরে গেলো কিছুদিন আগে।যার জন্ম হংকং এ২০১৫ সালের ১৯ শে এপ্রিল।ডেভিড হ্যানসন কৃত্তিম বুদ্ধমত্তা সম্পন্ন এ রোবটটি  তৈরী করেন।যে আপনার সাথে কথা বলবে,প্রশ্নের উত্তর দেবে, এবং আপনাকে হাসানোর চেষ্টা পর্যন্ত করবে,কৌতুকের মাধ্যমে। এটি মানুষের কন্ঠস্বর চিনে রাখতে পারে,ঠোট বাকিয়ে,চোখের পাতা ফেলে,ঘাড় ঘুরিয়ে,মানুষের মতো আবেগ মিশিয়ে কথা বলতে পারে। ভেবে দেখুন!আপনার একজন সংগী প্রয়োজন আর সে যদি সর্বগুন সম্পন্ন  চলমান ডিকশনারী একই সাথে বিজ্ঞানি,কবি ও পথপ্রদর্শক হয় তাহলে কেমন উপভোগ্য হবে আপনার সময়টা! বিজ্ঞান এগোচ্ছে আর সেই এগুনোর ধাপকে সহায়তা করছে এআই।তাই বর্তমান প্রযুক্তির যুগে এআই একটি বিপ্লব। এবার দেখা যাক এআইয়ের ভবিষ্যত সম্ভাবনা। ভবিষ্যতের চিকিৎসা সেবার সম্পূর্ণটাই হয়ে উঠতে পারে এআই নির্ভর।সুক্ষ ও জটিল অপারেশন থেকে শুরু করে রোগ বিশ্লেষন ও রোগ নির্ণয় সহ সমুদয় ক্ষেত্রেই দেখা যাবে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার জয়জয়কার।   

অফিস- আদালত,শিল্প-কলকারখানা,বৈজ্ঞানিক গবেষনা সহ সেবাখাতের সব জয়াগায় এআই ব্যবহারের মাধ্যমে প্রযুক্তির বিপ্লব ঘটানো সম্ভব।এমনকি স্কুল কলেজে পর্যন্ত শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে এআই জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারে। রোবট দিয়ে করানো যায়না হেন কাজ পৃথিবীতে নেই।আর সেটি যদি হয় কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন  তাহলে তো কথাই নেই।গবেষকরা ধারণা করেন ২০৪৯ সালের মধ্যে হয়তো রোবট বেস্ট সেলার লিখতে সক্ষম হবে।এটি যে সত্যি হবে তার প্রমান পাওয়া যায় তখনই যখন শুনি যে, জাপানে বুদ্ধিমান যন্ত্ররচিত 'নভেলা' সাহিত্য পুরস্কারের জন্য মনোনিত হয়েছে। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির একদল বিজ্ঞানীর ধারণা,'আগামী ১২০ বছরের মধ্যে মানুষের সব কাজ বুদ্ধিমান মেশিনের মাধ্যমে সপন্ন হবে। সম্প্রতি একদল গবেষক দাবী করেছেন তারা এমন এআই আবিস্কার করেছেন যেটি সহজেই শরীরের বিভিন্ন অংগ প্রত্যংগ পরীক্ষা করে বলে দিতে পারবে যে কবে মানুষের মৃত্যু হবে। সবচে বড় কথা যুদ্ধ ক্ষেত্রেও এআই এর ব্যবহার বাড়ছে।কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন ড্রোন তৈরী করছে বিভিন্ন দেশ,যা লক্ষ্য ভেদে নির্ভূল। এভাবে মানুষের দৈনন্দিন জিবনে এআই হয়ে উঠছে ডান হাত। 

একজন মানুষের সমস্ত কাজ যদি যন্ত্রই করে দেয় তাহলে মানুষের হাতে করার মতো আর থাকলো কি?হ্যা,বলছিলাম কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার শংকার কথা।এআই যেমন মানব কল্যানের জন্য আশির্বাদ,তেমনি হুমকিও বটে। মানুষের সব কাজ এআই দ্বারা করা হলে মানুষ হয়ে পড়বে অদক্ষ এবং অলস। একবিংশ শতাব্দীর লিজেন্ড বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং এআই সম্পর্কে বলেন,'এরা এক সময় আমাদের অতিক্রম করে যাবে,এর ফলে মানব জাতির বিলুপ্তি ঘটতে পারে।' 'কিভাবে?'প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন,'আইএর উন্নয়ন কৌশল এমন একস্তরে পৌছুবে যাতে মানুষের সাহা্য্য ছাড়াই এরা নিজেদের উন্নয়ন ঘটাতে পারবে।' যদি তাই হয় তাহলে এআই এর সাথে মানুষের যুদ্ধ অবশ্যম্ভাবী।

এআইর কারনে বেকার হবে বিশ্বের এক তৃতীয়াংশ মানুষ যার বিরুপ প্রভাব পড়বে বাংলাদেশের মতো তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে। এআই সম্পন্ন যন্ত্রের ব্যবহার বাড়লে মানুষ হয়ে পড়বে যন্ত্র নির্ভর। হতে পারে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার অপব্যবহারও।সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠির হাতে পরলে ড্রোন পরিণত হতে পারে ক্ষেপনাস্ত্রে।ভুয়া ভিডিও তৈরী করে বিভ্রান্ত করা হতে পারে জনমত।ঘটতে পারে হ্যাকিংএর মতো ঘটনা ও।বাড়তে পারে ডিজিটাল ক্রাইম। মানুষের বিকল্প যখন মানুষ না হয়ে যন্ত্র হয়ে ওঠে,তখন তা মানবজাতির জন্য ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে বৈকি!বিবিসির এক সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এআই কে বলা হয়েছে মানবজাতির জন্য ঝুকিপূর্ন প্রযুক্তি। অনেক বিশেষজ্ঞই এআই কে পৃথিবীর জন্য ঝুকিপূর্ণ  বলে মনে করেন।বিশ্বের অন্যতম ইলেকট্রিক গাড়ী নির্মানের প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক মনে করেন,'এআই মানবজাতির জন্য খারাপ এবং তা তয় বিশ্বযুদ্ধের কারন হতে পারে।'

তিনি এআইকে স্বৈরাচারী শাসকের সাথে তুলনা করেছেন যার হাত থেকে মানব জাতির নিতার নেই এবং যে স্বৈরাচারীর মৃত্যু নেই। অর্থাৎ,এআই নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে মতানৈক্য  বিদ্যমান। তবে মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ দুইই আছে। এআইএর ভালো দিকগুলো পেতে হলে এর ব্যাবহার নিয়ন্ত্রণ,এআই এর নিরাপত্তা বা সঠিক হাতে ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।তা না হলে পৃথীবির মানুষ হয়তো একসময় এআইএর হাতে বন্দী হয়ে পড়বে,কে জানে!

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

স্পিডবোট ডুবে নিখোঁজ, কনস্টেবলসহ ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার

স্পিডবোট ডুবে নিখোঁজ, কনস্টেবলসহ ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার

ইতালি সিজনাল ভিসার সচেতনার দিকসমূহ, নইলে আপনিও হতে পারেন প্রতারণার শিকার: পর্ব-০৫

ইতালি সিজনাল ভিসার সচেতনার দিকসমূহ, নইলে আপনিও হতে পারেন প্রতারণার শিকার: পর্ব-০৫

মুরগির সাথে যৌনতা, ধরা খেয়ে সাজা খাটছেন যুবক!

মুরগির সাথে যৌনতা, ধরা খেয়ে সাজা খাটছেন যুবক!

প্রধান শিক্ষকদের বকেয়া টাইমস্কেল প্রদান ও সহকারী শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে উন্নীত সহ ১০ দফা দাবীতে ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন।

প্রধান শিক্ষকদের বকেয়া টাইমস্কেল প্রদান ও সহকারী শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে উন্নীত সহ ১০ দফা দাবীতে ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন।

আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা পুতুল

আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা পুতুল

বগুড়ায় লম্পটকে কুপিয়ে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেলেন গৃহবধূ

বগুড়ায় লম্পটকে কুপিয়ে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেলেন গৃহবধূ

টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে ঘুরছে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে!

টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে ঘুরছে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে!

ফ্রান্সে মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গ কার্টুন প্রদর্শন, নবীপ্রেমিকদের ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক

ফ্রান্সে মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গ কার্টুন প্রদর্শন, নবীপ্রেমিকদের ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক

জামালপুরে ট্রেনে কাটাপড়ে ভাঙারি ব্যবসায়ীর মৃত্যু

জামালপুরে ট্রেনে কাটাপড়ে ভাঙারি ব্যবসায়ীর মৃত্যু

দামি ওষুধ-তেল বা চর্বি লোভে জ্যান্ত ডলফিন কেটে টুকছে গ্রামবাসী

দামি ওষুধ-তেল বা চর্বি লোভে জ্যান্ত ডলফিন কেটে টুকছে গ্রামবাসী

করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা, আবারও পূর্ণ হতে যাচ্ছে হাসপাতাল!

করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা, আবারও পূর্ণ হতে যাচ্ছে হাসপাতাল!

জয়পুরহাটে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা

জয়পুরহাটে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা

মারা গেলেন ব্যারিস্টার রফিকুল হক

মারা গেলেন ব্যারিস্টার রফিকুল হক

চুমুতে রাজি নয় ঐশ্বরিয়া

চুমুতে রাজি নয় ঐশ্বরিয়া

স্বামীর সঙ্গে পূজা মণ্ডপে অঞ্জলি দিলেন মিথিলা

স্বামীর সঙ্গে পূজা মণ্ডপে অঞ্জলি দিলেন মিথিলা

সর্বশেষ

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষন ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষন ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

ফ্রান্সে নবীকে নিয়ে কটুক্তি, যা বললেন আজহারী

ফ্রান্সে নবীকে নিয়ে কটুক্তি, যা বললেন আজহারী

৪ সাংবাদিকের নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে শ্রীমঙ্গলে সমাবেশ

৪ সাংবাদিকের নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে শ্রীমঙ্গলে সমাবেশ

মহামারি করোনার মধ্যেও সরকারের উন্নয়ন থেমে নেই- এমপি জ্যাকব

মহামারি করোনার মধ্যেও সরকারের উন্নয়ন থেমে নেই- এমপি জ্যাকব

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ফি মওকুফের দাবি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ফি মওকুফের দাবি

বঙ্গোপসাগরে জেলে খুন: ২ ডাকাত আটক করলো পুলিশ

বঙ্গোপসাগরে জেলে খুন: ২ ডাকাত আটক করলো পুলিশ

বিয়ে হওয়ার আশ্বাসে, পানি পড়া খাইয়ে যুবতীকে ধর্ষণ করলো কবিরাজ!

বিয়ে হওয়ার আশ্বাসে, পানি পড়া খাইয়ে যুবতীকে ধর্ষণ করলো কবিরাজ!

কলকাতার নাখোদা মসজিদ: স্থাপত্যের এক বিস্ময়কর সৃষ্টি

কলকাতার নাখোদা মসজিদ: স্থাপত্যের এক বিস্ময়কর সৃষ্টি

সামাজিক অবক্ষয় ও অপরাধ সংঘটনের  অন্যতম কারণ যৌন উত্তেজক ওষুধের অবাধ বিক্রি

সামাজিক অবক্ষয় ও অপরাধ সংঘটনের অন্যতম কারণ যৌন উত্তেজক ওষুধের অবাধ বিক্রি

মাটি ও মানুষের সাথে মিশে আছেন এমপি জগলুল হায়দার

মাটি ও মানুষের সাথে মিশে আছেন এমপি জগলুল হায়দার

ব্যাংক কর্মকর্তাকে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে পেটালো ছাত্রদল নেতা

ব্যাংক কর্মকর্তাকে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে পেটালো ছাত্রদল নেতা

কবিতাঃ সমুদ্র অতলতা খুঁজি

কবিতাঃ সমুদ্র অতলতা খুঁজি

মিঠাপুকুরে সুপারি বাগান থেকে এক ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার

মিঠাপুকুরে সুপারি বাগান থেকে এক ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার

দামি ওষুধ-তেল বা চর্বি লোভে জ্যান্ত ডলফিন কেটে টুকছে গ্রামবাসী

দামি ওষুধ-তেল বা চর্বি লোভে জ্যান্ত ডলফিন কেটে টুকছে গ্রামবাসী

আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ কষ্টকর ও বেদনাদায়ক অবস্থায় রয়েছেঃ জার্মান ডেপুটি হাই কমিশনার

আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ কষ্টকর ও বেদনাদায়ক অবস্থায় রয়েছেঃ জার্মান ডেপুটি হাই কমিশনার