Feedback

খেলার খবর

লিওনেল মেসির সিদ্ধান্তে খুশি লিওনেল স্কালোনি

লিওনেল মেসির  সিদ্ধান্তে খুশি লিওনেল স্কালোনি
October 08
12:00pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

লিওনেল মেসির এই ঘোষণা নাড়িয়ে দিয়েছিল ফুটবল বিশ্বকে। ৯ দিন পর তিনি সিদ্ধান্ত পাল্টান। রিলিজ ক্লজ জটিলতায় আরও এক মৌসুম থাকতেই হলো আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে। তার এই সিদ্ধান্তে খুশি জাতীয় দলের কোচ লিওনেল স্কালোনি। ন্যু ক্যাম্পে মেসির থেকে যাওয়াকে ‘ইতিবাচক’ বলে মনে করছেন তিনি।   

২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপের জন্য দক্ষিণ আমেরিকান অঞ্চলের বাছাইপর্ব শুরু হচ্ছে। বৃহস্পতিবার লা বোম্বোনেরা স্টেডিয়ামে ইকুয়েডরের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। ক্লাবের খেলা শেষে এই ম্যাচ খেলতে সোমবার বুয়েন্স আয়ার্সে পৌঁছান মেসি ও তার জাতীয় দলের সতীর্থরা। গত দুই দিন ধরে স্কালোনির অধীনে অনুশীলন করছেন সব খেলোয়াড়। সেখানে মেসির সঙ্গে অনেক কথা হয়েছে কোচের। ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে বেশ নির্ভার দেখতে পেয়েছেন স্কালোনি। আর্জেন্টিনার কোচের মতে, বার্সেলোনা না ছাড়ায় মেসি স্থির আছেন। নতুন ক্লাবে গেলে হয়তো এতটা চাপমুক্ত থাকতে পারতেন না। বৃহস্পতিবার স্কালোনি বলেছেন, ‘যখন সবকিছু ঠিকঠাক হলো তখন আমি লিওর সঙ্গে কথা বলেছিলাম এবং তাকে বেশ ধীরস্থির দেখলাম।’   

মেসির মনে আনন্দ খুঁজে পেয়েছেন এই কোচ, ‘এখানে সে আসার পর আমাদের মধ্যে অনেক কথা হয়েছে। এখানে এসে সে সুখী। তার ক্লাবেও সে এখন ভালো আছে। একটু দূরত্ব রেখে আমরা সবাই সমস্যার সমাধান চেয়েছিলাম। আমরা চেয়েছিলাম সে খেলুক এবং ফিট থাকুক। তার থেকে যাওয়াটা আমাদের জন্য ইতিবাচক। সে এই ক্লাবকে জানে। সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা কিন্তু জড়িত হইনি, কারণ খেলোয়াড়দের নিজস্ব জগতে আমরা পা ফেলতে চাই না।’  কাতার বিশ্বকাপের সময় মেসির বয়স হবে ৩৫ বছর। তাকে আবারও বিশ্বমঞ্চে দেখতে চান স্কালোনি, ‘আমরা বিশ্বকাপে জায়গা পেতে চাই আমাদের দেশের জন্য কিন্তু আরও কারণ আছে, যার মধ্যে একটি হলো- যেন মেসি খেলতে পারে।

কিন্তু আমরা এমন কিছু আলোচনা করছি না, ম্যাচ ধরে ধরে আমরা এগোব।’  রাশিয়া বিশ্বকাপে গতবার যেতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছিল আর্জেন্টিনাকে। বাছাইয়ের শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরকে হারিয়ে তারা বিশ্বমঞ্চে যাওয়ার টিকিট কাটে, ইকুয়েডরের বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয়ে হ্যাটট্রিক করেন মেসি। আবারও ওই দলকে দিয়ে শুরু হচ্ছে তাদের বাছাই। স্কালোনি বলেছেন, ‘এটা কঠিন হতে যাচ্ছে। আমাদের একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ দল আছে, যেখানে প্রত্যেক খেলোয়াড় তাদের সেরাটা দেয়।’

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

আগামী তিন বছরে ১২ লাখ ৩৩ হাজার অভিবাসী নেবে কানাডা

আগামী তিন বছরে ১২ লাখ ৩৩ হাজার অভিবাসী নেবে কানাডা

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা!

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা  বরিশাল বিভাগীয়  কারাগারে

মিন্নি কাশিমপুরে বাকিরা বরিশাল বিভাগীয় কারাগারে

কাশিমপুর কারাগারে মিন্নি ফাঁসি কার্জকর হবে কি? এ নিয়ে সমালোচনার ঝড়

কাশিমপুর কারাগারে মিন্নি ফাঁসি কার্জকর হবে কি? এ নিয়ে সমালোচনার ঝড়

বাংলাদেশীদের ইতালিতে চাকুরি (সিজনাল ও অন্যান্য) খোজার জন্য কিছু অনলাইন পোর্টালঃ পর্ব-০৬

বাংলাদেশীদের ইতালিতে চাকুরি (সিজনাল ও অন্যান্য) খোজার জন্য কিছু অনলাইন পোর্টালঃ পর্ব-০৬

হযরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক হিন্দু যুবক গ্রেফতার

হযরত মোহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক হিন্দু যুবক গ্রেফতার

সেনেগাল উপকূলে ইউরোপগামী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ১৪০ অভিবাসীর মৃত্যু

সেনেগাল উপকূলে ইউরোপগামী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ১৪০ অভিবাসীর মৃত্যু

এবার কয়েদির পোশাকে মিন্নির ছবি ভাইরাল

এবার কয়েদির পোশাকে মিন্নির ছবি ভাইরাল

সৌদি আরবের ক্লিনিং সেক্টরে বড় ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশীরা

সৌদি আরবের ক্লিনিং সেক্টরে বড় ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশীরা

ফ্রান্সেই চাপের মুখে ইমানুয়েল  ম্যাক্রোঁ

ফ্রান্সেই চাপের মুখে ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ

রায়হানের পরিবারকে উপহার পাঠালেন সিলেটের পুলিশ কমিশনার

রায়হানের পরিবারকে উপহার পাঠালেন সিলেটের পুলিশ কমিশনার

টয়লেট করতে ঘর থেকে বের হল কিশোরী, ধর্ষণ করতে ঢুকে পড়লো যুবক

টয়লেট করতে ঘর থেকে বের হল কিশোরী, ধর্ষণ করতে ঢুকে পড়লো যুবক

কটিয়াদীতে ট্রিপল মার্ডার: নৈপথ্যে সম্পত্তির দ্বন্দ্ব

কটিয়াদীতে ট্রিপল মার্ডার: নৈপথ্যে সম্পত্তির দ্বন্দ্ব

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা

বিধবাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ, আটক ফেরিওয়ালা

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল কিশোরগঞ্জ

সর্বশেষ

নোয়াখালীর বিভিন্ন স্থানে শ্লীলতাহানির একাধিক অভিযোগ, আটক ১

নোয়াখালীর বিভিন্ন স্থানে শ্লীলতাহানির একাধিক অভিযোগ, আটক ১

জয়পুরহাটে নানা আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত

জয়পুরহাটে নানা আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত

সত্য ও মানবতার উৎস প্রাণাধিক প্রিয়নবীর শানে ফ্রন্সে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন

সত্য ও মানবতার উৎস প্রাণাধিক প্রিয়নবীর শানে ফ্রন্সে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন

মোবাইলে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়ানোর ৫ উপায়

মোবাইলে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়ানোর ৫ উপায়

কবিতা-“শান্তানা তাকে”

কবিতা-“শান্তানা তাকে”

করোনার ভ্যাকসিন আনতে চার দিনের মধ্যে চুক্তি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনার ভ্যাকসিন আনতে চার দিনের মধ্যে চুক্তি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জামালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন নির্মানের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠিত

জামালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন নির্মানের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠিত

ফরাসি  পণ্য বয়কট করলেন নুসরাত ফারিয়া

ফরাসি পণ্য বয়কট করলেন নুসরাত ফারিয়া

চরফ্যাশনে কিশোর-কিশোরীদের সামাজিক ব্যাধি থেকে মুক্ত রাখতে উঠান বৈঠক

চরফ্যাশনে কিশোর-কিশোরীদের সামাজিক ব্যাধি থেকে মুক্ত রাখতে উঠান বৈঠক

দালালের মাধ্যমে কেউ যেন বিদেশে না যায়: প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্

দালালের মাধ্যমে কেউ যেন বিদেশে না যায়: প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্

ঢাকা থেকে সরাসরি বাস যাবে জাফলং ও ভোলাগঞ্জে

ঢাকা থেকে সরাসরি বাস যাবে জাফলং ও ভোলাগঞ্জে

করোনা মাস্ক না পরলে রাস্তা ঝাড়ু দিতে হবে

করোনা মাস্ক না পরলে রাস্তা ঝাড়ু দিতে হবে

বগুড়ায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপিত

বগুড়ায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপিত

সাহিত্যিক শ্রী সত্য রঞ্জন লোহ

সাহিত্যিক শ্রী সত্য রঞ্জন লোহ

নওগাঁয় মাচা পদ্ধতিতে মাটিতে আঙ্গুর চাষে ব্যাপক সাড়া

নওগাঁয় মাচা পদ্ধতিতে মাটিতে আঙ্গুর চাষে ব্যাপক সাড়া