Feedback

আরও..., বিনোদন

সন্তান জন্ম না দেওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিলো: তসলিমা নাসরিন

সন্তান জন্ম না দেওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিলো: তসলিমা নাসরিন
September 29
12:05pm
2020
Md jamil hussain
Tejgaon, Dhaka:
Eye News BD App PlayStore

কত কিছুর দিবস যে পালিত হচ্ছে। শুনলাম কাল নাকি ‘কন্যা দিবস’ ছিল। জানি না পুত্র দিবস বলে কোনো দিবস আছে কিনা। আসলে পুত্র দিবস তো প্রায় প্রতিদিনই পালিত হয়। কন্যা যেহেতু অনেক সংসারেই অবহেলিত, তাই কন্যাকে মূল্য দেওয়ার জন্য, আমার ধারণা, একটি দিবস তৈরি করা হয়েছে। 

আমার কন্যাও নেই, পুত্রও নেই। যৌবনে অনেক ভুল সিদ্ধান্ত নিলেও সন্তান না জন্ম দেওয়ার সিদ্ধান্তটি আমার সঠিক ছিল। ৭৮০ কোটি লোকে পৃথিবী উপচে পড়ছে, এই দুঃসময়ে জনসংখ্যা বাড়ানোর কোনো প্রয়োজন নেই। যারা জন্মেছে তারা কি সবাই খেতে পরতে পাচ্ছে, শিক্ষা স্বাস্থ্য পাচ্ছে?  ইতর প্রাণীর মধ্যে বংশ বিস্তারের ইচ্ছেটা কিলবিল করে, এই কিলবিল ব্যাপারটি নিয়ন্ত্রণ করতে তারা পারে না। মানুষের মধ্যেও এই ইচ্ছেটি আছে, তবে এটি আরোপিত। আরোপিত বলেই এটি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। অনেকে সন্তান জন্ম দেওয়ার ইচ্ছে নেই বলে সন্তান জন্ম দেয় না।  কিছু মানুষ, আমার অবাক লাগে, মনে করে সন্তান জন্ম না দিলে তাদের জীবনই ব্যর্থ, অর্থহীন। তারা সন্তানের জন্য ইতর প্রাণীদের মতো কিলবিল করা ইচ্ছের আমদানি করে। 

আমার এক মামাতো বোন উচ্চশিক্ষিতা, নামী কলেজের অধ্যাপিকা, কিন্তু সন্তান নেই বলে এমনই দুঃখে কষ্টে ডুবে থাকে যে তার জীবনটিই সে উপভোগ করে না। তার এমন অর্থপূর্ণ জীবনটিকে সে যে অর্থহীন মনে করছে, এ দোষ কার বা কাদের? তার কানের কাছে যারা শৈশব থেকে গুনগুন করেছে সন্তান না জন্মালে জীবনের কোনো মানে নেই, দোষ নিশ্চয়ই তাদের অনেকটা, বাকি দোষ তাদেরও যারা যুক্তি বুদ্ধি দিয়ে নারীবিদ্বেষী রীতিগুলোকে ভাঙার কোনো চেষ্টা করে না।  প্রজাতিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য যদি প্রজননের প্রয়োজন পড়তো, কথা ছিল। এখন তো দেখা যাচ্ছে মানুষের আধিক্য একটা ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করেছে। লক্ষ কোটি অরণ্য-নির্ভর প্রাণীর আবাসস্থল উড়িয়ে দিয়ে মানুষের জন্য শহর নগর বানাতে হয়েছে। 

পৃথিবীর কত প্রজাতি যে আমাদের মানুষ-প্রজাতির হিংস্রতা আর বোধবুদ্ধিহীনতার কারণে বিলুপ্ত হয়ে গেছে। এই গ্রহে আমাদের যতটা অধিকার, ততটা অধিকার তো তাদেরও। অস্ত্রের জোরে কী অরাজকতাই না আমরা চালিয়েছি! আমরা পৃথিবীর বন-জঙ্গল ধ্বংস করেছি, নদী সমুদ্র আকাশ বাতাস দূষিত করেছি আমাদের স্বার্থান্ধ জীবন-যাপন এবং আমাদের অর্থহীন জনসংখ্যা দিয়ে।  অনেকে মনে করেন, জ্ঞানীগুণীদের সন্তান জন্ম দেওয়া উচিত। কিন্তু বারবার প্রমাণিত হয়েছে, জ্ঞানীগুণীদের সন্তান জ্ঞানীগুণী হয় না। আর কত প্রমাণ দরকার! মৃত্যুতেই জীবনের চিরকালীন সমাপ্তি। বংশ রয়ে গিয়ে, রক্তের ছিটেফোঁটা রয়ে গিয়ে কারও কোনো লাভ হয় না।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: ভিডিও ভাইরাল সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর: ভিডিও ভাইরাল সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

শিক্ষক সংকট করোনা পরবর্তি সময়ে হাবিপ্রবিতে তীব্র সেশনজটের আশঙ্কা

শিক্ষক সংকট করোনা পরবর্তি সময়ে হাবিপ্রবিতে তীব্র সেশনজটের আশঙ্কা

জেনে নিন, দালাল ছাড়াই পাসপোর্ট করার সহজ উপায় !

জেনে নিন, দালাল ছাড়াই পাসপোর্ট করার সহজ উপায় !

হাজী সেলিমের ছেলে ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ইরফান সেলিমের এক বছরের কারাদণ্ড

হাজী সেলিমের ছেলে ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ইরফান সেলিমের এক বছরের কারাদণ্ড

বীমা শিল্পে নারী জাগরণের পথিকৃৎ রাবেয়া বেগম রুনা

বীমা শিল্পে নারী জাগরণের পথিকৃৎ রাবেয়া বেগম রুনা

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড

এসআই আকবর কে পালাতে সহায়তাকারী কে কে  আজ জানা যাবে

এসআই আকবর কে পালাতে সহায়তাকারী কে কে আজ জানা যাবে

১লা নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক শ্রেণির সিলেবাস বাস্তবায়ন কার্যক্রম

১লা নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক শ্রেণির সিলেবাস বাস্তবায়ন কার্যক্রম

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩৩ দিন ধরে কলেজ ছাত্রীর অনশন

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩৩ দিন ধরে কলেজ ছাত্রীর অনশন

সমাবেশেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ডা. জাফরুল্লাহ

সমাবেশেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ডা. জাফরুল্লাহ

এসএসসি পরীক্ষার হবে না হবে জানুন

এসএসসি পরীক্ষার হবে না হবে জানুন

কাঠালিয়ায় নদীর পাড় থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার

কাঠালিয়ায় নদীর পাড় থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার

স্কুল-কলেজেও সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন হচ্ছে!

স্কুল-কলেজেও সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন হচ্ছে!

সঙ্গীত অঙ্গনে বিস্ময়কর বালক "ভাবের মামুন"

সঙ্গীত অঙ্গনে বিস্ময়কর বালক "ভাবের মামুন"

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

সর্বশেষ

শিশুর বিকাশ বাড়বে সুষম খাদ্য আর খেলাধুলাতেই

শিশুর বিকাশ বাড়বে সুষম খাদ্য আর খেলাধুলাতেই

বরগুনায় প্রতিমা বানাতে ব্যবহার করা হয়েছে পবিত্র কালিমা খচিত বইয়ের পৃষ্ঠা

বরগুনায় প্রতিমা বানাতে ব্যবহার করা হয়েছে পবিত্র কালিমা খচিত বইয়ের পৃষ্ঠা

ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি: জবি শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি: জবি শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

বানারীপাড়ায় দলিল উদ্দিন মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ আনোয়ারের ইন্তেকাল

বানারীপাড়ায় দলিল উদ্দিন মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ আনোয়ারের ইন্তেকাল

হলোনা বাংলাদেশ-ভারতের মিলনমেলা, ইছামতিতে অশ্রুসিক্ত নয়নে দেবী দূর্গাকে বিসর্জন দিল সনাতন ধর্মাবলম্বীরা

হলোনা বাংলাদেশ-ভারতের মিলনমেলা, ইছামতিতে অশ্রুসিক্ত নয়নে দেবী দূর্গাকে বিসর্জন দিল সনাতন ধর্মাবলম্বীরা

রংপুরে ৩০ সেকেন্ডে উধাও সাড়ে ১২ লাখ টাকা, গ্রেফতার

রংপুরে ৩০ সেকেন্ডে উধাও সাড়ে ১২ লাখ টাকা, গ্রেফতার

বাঘারপাড়ায় কৃতি শিক্ষার্থীদর সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট বিতরণ

বাঘারপাড়ায় কৃতি শিক্ষার্থীদর সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট বিতরণ

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় আশাশুনির অতিদরিদ্র ১৭’শ পরিবারের মাঝে অর্থ সহায়তা

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় আশাশুনির অতিদরিদ্র ১৭’শ পরিবারের মাঝে অর্থ সহায়তা

আশাশুনিতে চেয়ারম্যান ডালিমের বিরুদ্ধে মামলা, মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

আশাশুনিতে চেয়ারম্যান ডালিমের বিরুদ্ধে মামলা, মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

গৌরনদীতে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু

গৌরনদীতে পানিতে ডুবে স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

মিন্নির মতো এই ১৪ জনেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান রিফাতের বোন

কাপড়ের মাস্ক ব্যবহারে যেসব নিয়ম মানা জরুরি

কাপড়ের মাস্ক ব্যবহারে যেসব নিয়ম মানা জরুরি

ভ্রমণ করার সময় বমি ও মাথা ঘোরা দূর করতে যা করবেন

ভ্রমণ করার সময় বমি ও মাথা ঘোরা দূর করতে যা করবেন

ফুটবল টুর্নামেন্ট: হাজিরহাট চ্যাম্পিয়ন

ফুটবল টুর্নামেন্ট: হাজিরহাট চ্যাম্পিয়ন

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড

যে কারণে হাজী সেলিমের ছেলে কে এক বছরের কারাদন্ড