Feedback

জাতীয়

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার
September 27
07:56pm
2020
কাওসার জামিল
ছাতক, সুনামগঞ্জ:
Eye News BD App PlayStore
পৃথিবীর কোনো দেশে রাষ্ট্রধর্ম নেই’ দাবি করে বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম কেন ইসলাম হলো- প্রশ্ন তুলেছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।

তাঁর মতে, ‘সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ইসলামকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করে সবচেয়ে খারাপ কাজ করেছেন। কারণ যেখানে ধর্ম সেখানে শেষ।’

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে বিশ্ব নদী দিবস-২০২০ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মফিজুর রহমান বলেন, ‘পৃথিবীতে ধর্মের চেয়ে মানুষ বড়। অথচ পৃথিবীতে ধর্মের বাজার হয়ে গেছে। মুঘল সাম্রাজ্যের পতন হয়েছে ধর্মের কারণে। পাকিস্তানের পতন হয়েছে ধর্মের কারণে। যেখানে ধর্ম সেখানে শেষ।’

ভারতের শাসনব্যবস্থায় ধর্মের অবস্থান নিয়ে আফসোস করে এ আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘আমার কষ্ট হচ্ছে বন্ধুপ্রতীম রাষ্ট্র ভারতের জন্য। যারা স্বাধীনতা যুদ্ধে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। সেখানেও ধর্মের রমরমা ব্যবসা শুরু হয়ে গেছে। তারা কোথায় নিয়ে যাচ্ছে দেশকে। এগুলো দেখলে আমার খুব কষ্ট হয়।’

হেফাজত প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলে মফিজুর রহমান বলেন, ‘ধর্মের কারণে আমরা কি আবারও রক্তাক্ত পরিবেশে ফিরে যাব? পাকিস্তানে দেখেন- সেখানে প্রায় ২০০ মাদরাসা বন্ধ। আমাদের দেশে হেফাজত, তাদের নেতার নেতৃত্বে শাপলা চত্বরে তাণ্ডব চলেছে। অথচ সেই নেতাকে তারাই মেরে ফেলেছে। তাদের অপমানে তিনি মারা গেছেন। আর কত হবে ধর্মের ব্যবসা?’

তিনি বলেন, ‘দল মত নির্বিশেষে নদী দূষণকে প্রতিরোধ করা একান্ত আবশ্যক।’ চট্টগ্রাম বন্দরের ২৫ একর জমি ভুমিদস্যূদের ইজারা দেয়া হয়েছে বিষয়টি তিনি প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে অবহিত করবেন বলেও জানান।

প্রধান অতিথি ড. আনিসুজ্জামান খান সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে কর্ণফুলী, সাঙ্গু, মাতামুহুরী নদীর উজান ভাটি এলাকায় বসবাসকারীদের দূষণ নিয়ে বেশি বেশি সচেতনতার আহ্বান জানান। যাতে করে নদীর জীববৈচিত্র্য ও মানব জীবনকে রক্ষা করা যায়।

তিনি বলেন, ‘নদী বাঁচাতে তীরবর্তী মানুষের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। কারণ তারা যদি দূষণে লিপ্ত থাকে তাহলে ভাটি অঞ্চলে মানুষের ক্ষতিটা বেশি হবে। একইভাবে ভাটির মানুষেরও নদী দূষণ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। যদি আমরা এ ৩টি পর্যায়ে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেই, তাহলে দেশের প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা করতে পারব। যদি প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা পায় তাহলে দেশের প্রবৃদ্ধিও বাড়বে।’

কর্ণফুলী গবেষক ড. ইদ্রিছ আলী জানান, চট্টগ্রামের ১৭ শিল্প জোনের ৩০০টি শিল্প কারখানার বর্জ্য প্রতিনিয়ত কর্ণফুলী ও হালদা নদীতে পড়ছে। এর দূষণ প্রতিক্রিয়া মানবজাতি ও জীব বৈচিত্র্যের মারাত্মক ক্ষতি করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘নদী মানবজীবনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নদী জীবনের বাহক, সামাজিকতার পরিবাহক, সংস্কৃতির স্রোতধারা। সভ্যতার শুদ্ধি-শুচিকারক, পরিবৃদ্ধি, পরিচালন, পরিবহন, পরিসমাপ্তিতে নদী অন্যতম অনুষঙ্গ, অনুঘটক। দুঃখ-সুখের দোলায় দোলা জীবনের অবারিত স্রোতের মতো মহাকালের মহাসমুদ্রে জলের জলাঞ্জলি দেয়াই নদীর নিরবচ্ছিন্ন সাধনা’।

সাংবাদিক মাইনুদ্দিন দুলালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরির কো অর্ডিনেটর অধ্যাপক ড. মো. মনজুরুল কিবরিয়া, রাউজান পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত, গ্রিন প্লানেটের আহ্বায়ক স্থপতি মিজানুর রহমান প্রমুখ।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

নাস্তিকরা উগ্রবাদী হয়ে উঠছে- শাহরিয়ার কবির

নাস্তিকরা উগ্রবাদী হয়ে উঠছে- শাহরিয়ার কবির

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

সুনামগঞ্জে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে একই পরিবারের ৮ জন আহত

সুনামগঞ্জে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে একই পরিবারের ৮ জন আহত

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

রংপুরে ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে জড়িত এএসআই রাহেনুল

রংপুরে ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে জড়িত এএসআই রাহেনুল

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

রং নম্বরে পরিচয়, পরকীয়ার টানে ঘরে ছেড়ে মাইক্রোবাসে ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ

রং নম্বরে পরিচয়, পরকীয়ার টানে ঘরে ছেড়ে মাইক্রোবাসে ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ

মালয়েশিয়ায় চাকরী হারানো শ্রমিকদের জন্য অনলাইনে চাকরীর আবেদন চালু করা হয়েছে

মালয়েশিয়ায় চাকরী হারানো শ্রমিকদের জন্য অনলাইনে চাকরীর আবেদন চালু করা হয়েছে

সর্বশেষ

কালাইয়ে ধান বীজ বিক্রির প্রতারণা, ডিলারের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

কালাইয়ে ধান বীজ বিক্রির প্রতারণা, ডিলারের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

জয়পুরহাটে গাড়ি চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধি মূলক প্রশিক্ষণ

জয়পুরহাটে গাড়ি চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধি মূলক প্রশিক্ষণ

"কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও" দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

"কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও" দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

শ্যামনগরে স্বর্ণকিশোরী নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

শ্যামনগরে স্বর্ণকিশোরী নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

ছেলের মুক্তিতে সবাইকে মিষ্টিমুখ করালেন সাকিবের বাবা

ছেলের মুক্তিতে সবাইকে মিষ্টিমুখ করালেন সাকিবের বাবা

উলিপুরে অম্বিকাচরণ রায় শিক্ষা বৃত্তি-২০২০ প্রদান

উলিপুরে অম্বিকাচরণ রায় শিক্ষা বৃত্তি-২০২০ প্রদান

বাঘারপাড়ায় নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজলের স্মরণ সভা

বাঘারপাড়ায় নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজলের স্মরণ সভা

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু ‘অ্যাপোফিস’, ৪৮ বছর পর ধাক্কা লাগতে পারে পৃথিবীর সঙ্গে

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু ‘অ্যাপোফিস’, ৪৮ বছর পর ধাক্কা লাগতে পারে পৃথিবীর সঙ্গে

গোবিন্দগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদা জয়ী

গোবিন্দগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদা জয়ী

জেদ্দায় ফ্রান্স দূতাবাসের নিরাপত্তারক্ষী ছুরিকাঘাতে আহত

জেদ্দায় ফ্রান্স দূতাবাসের নিরাপত্তারক্ষী ছুরিকাঘাতে আহত

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মা ইলিশ ধরার কারেন্টজাল ধংস

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মা ইলিশ ধরার কারেন্টজাল ধংস

টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় ছয় জনের যাবজ্জীবন, ছয় জন বেকসুর খালাস

টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় ছয় জনের যাবজ্জীবন, ছয় জন বেকসুর খালাস

তালতলীতে মহানবী হযরত মুহম্মাদ (সাঃ)-কে অবমাননা করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

তালতলীতে মহানবী হযরত মুহম্মাদ (সাঃ)-কে অবমাননা করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

বগুড়ায় নকল ব্যান্ডরোলসহ গ্রেফতার ৩

বগুড়ায় নকল ব্যান্ডরোলসহ গ্রেফতার ৩

সিলেটে ফের থাবা বসালো করোনা

সিলেটে ফের থাবা বসালো করোনা