Feedback

জাতীয়, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান
September 25
09:23am
2020
Md. Saddam Hossain
Chougacha, Jashore:
Eye News BD App PlayStore

আত্মহত্যা হচ্ছে,  জীবন যুদ্ধে নিজেকে ব্যর্থ মনে করে নিজেকে বা নিজের আত্মাকে নিজে শেষ করে দেওয়া। উচ্চ শিক্ষিত থেকে আলেম-উলামা, খেলোয়াড়, অভিনেতা, বিজ্ঞান পড়ুয়া ছাত্র ও বিতার্কিক  সবাই আত্মহত্যা করে।  ধরুন না গতকালের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র জিয়াউল বিন হকের কথা।  তিনি মেনেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের ছাত্র। ছাত্রজীবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হলের প্রতিষ্ঠাতা ডিবেটিং ক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক। তিনি ছাত্রজীবনে বিটিভি বিতর্ক করেছেন।করিয়েছেন অনেক বিতর্কের কর্মশালা। তার কাছ থেকে তার অনুজরা শিখেছে কিভাবে যুক্তি ভাঙতে হয়, কিভাবে যুক্তি দাঁড় করাতে হয়। আর তিনিই কিনা যুক্তির কাছে হার মেনে নিজেকে হনন করলেন। নিজেকে সিলিংফ্যানে ঝুলিয়ে দিয়ে বুঝিয়ে গেলেন আত্মহত্যায় কোন যুক্তি মানে না।  মানুষ তখনই আত্মহত্যা করে, যখন তার যুক্তি,আবেগ,অনুভূতি, উপলব্ধিকে সে বিশ্বাস করতে পারে না এবং নিজেকে ভরসাহীন ও অপদার্থ মনে হয়।   

এক গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রতি লাখে ৩৯.৬৩ জন আত্মহত্যা করে। বহির্বিশ্বে ছেলেদের মধ্যে আত্মহত্যা হার বেশি হলেও বাংলাদেশে ব্যতিক্রম।বাংলাদেশে নারীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা বেশি এবং তা সাধারণত অল্প বয়সী টিন এজারদের মধ্য।মানুষ  নানা কারনে আতৃমহত্যা করতে পারেন এর মধ্যে ডিপ্রেশন বা হতাশা, ব্যক্তিত্ব্যে সমস্যা,  গুরুতর মানসিক রোগ বা স্বল্পতর মানসিক রোগ। তাছাড়া মাদকাসক্তি, এনজাইটি, অপরাধবোধ, অত্মহত্যায় প্ররোচনা, অশিক্ষা,  দারিদ্র্য, দাম্পত্য কলহ,  প্রেম-কলহ, অভাব অনটন, দীর্ঘস্থায়ী রোগে ভোগা,যৌন নির্যতন,  মা-বাবার ওপর অভিমান, পরীক্ষায় আশানুরূপ রেজাল্ট না করা, প্রেমে ব্যর্থ ও প্রতারণার শিকার হয়ে অনেকে আত্মহত্যা করেন। আবার অনেকের ক্ষেত্রে আত্মহত্যার কারণ থেকে যায় অজানা। 

 বিশ্বে প্রতিবছর  প্রায় ৮ লাখ পুরুষ ও নারী আত্মহত্যা করে, যা যেকোন যুদ্ধে নিহতের চেয়েও অনেক বেশি। অর্থাৎ প্রতি ৪০ সেকেন্ডে ১ জন নারী বা পুরুষ  আতৃমহত্যা করছেন। বর্তমান বিশ্বে কোভিড-১৯ এর কারনে অনেকপর চাকরী চলে যাবে, যেকারনে আত্মহত্যার হার বাড়বে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। সবচেয়ে বেশি আত্মহত্যা সংঘটিত হয় হতাশা বা ডিপ্রেশনের জন্য।  ডিপ্রেশন বা  হতাশা কি?  ডিপ্রেশন হচ্ছে একটি ভয়াবহ মানসিক রোগ যা একজন মানুষকে সবার অজান্তে তিলে তিলে শেষ করে দেয়।  বর্তমান বিশ্বে প্রায় তিনশ মিলিয়ন (১  মিলিয়ন=১০ লাখ) ডিপ্রেশনের রোগি রয়েছে। 

একটি গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতি ৫ জনের ১ জন মানুষ কোনো না কোনো ধরনের ডিপ্রেশন বা এনজাইটিতে ভুগছেন।ডিপ্রেশনের ভয়াবহ দিকটি হচ্ছে আক্রান্ত রোগীরী নীরবে- নিভৃতে আত্মহত্যা করে বসেন। বিশ্বের ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সী তরুণ-তরুণীদের মৃত্যুর প্রধান কারন ডিপ্রেশন জনিত আত্মহত্যা।  ডিপ্রেশন বেশি দেখা যায় মধ্য ও নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে। বাংলাদেশের শতকরা ১৮ থেকে ২০ ভাগ মানুষ কোনো না কোনো প্রকারের ডিপ্রেশনে ভুগছেন। পরিবারের অনেকে হয়তো জানেনই না যে, তারা ডিপ্রেশের রোগী। আমাদের অনেকেই আছেন ডিপ্রেশনের রোগী। আমাদের অনেকেই আছেন ডিপ্রেশন সম্পর্কে অজ্ঞ এবং ডিপ্রেশনকে রোগই মনে করেন না। ডিপ্রেশন থেকে ডায়াবেটিস ও হাইপ্রেসার হয়ে থাকে।আবার উলটোটাও হয়। ডিপ্রেশন রোগীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়৷ অনেক সময় বৃদ্ধ, শিশু, কিশোর এমনকি সন্তান সম্ভবা মা বা প্রসূতি মায়েদের ও ডিপ্রেশন হয় এবং তারা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

ডিপ্রেশন রোগীরা আত্মহত্যা করে বেঁচে থাকার কোন মানে খুঁজে ব্যর্থ হয়ে। ডিপ্রেশন নিয়ে কোন লজ্জা নয়। ডিপ্ররেসিভ রোগীর সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দিন, তাদের সঙ্গে ডিপ্রেশন নিয়ে আলাপ করুন এবং চিকিৎসার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নিন।  অনেক মেডিকেল শিক্ষার্থীদেরকেও ডিপ্রেশনের জন্য গোপনে আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ডিপ্রেশনের প্রধান কিছু লক্ষণসমূহ হলোঃ

সারাক্ষণ মনমরা হয়ে থাকা,উৎসাহ-উদ্যম হারিয়ে ফেলা,ঘুম কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়া, রুচি কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়া, ওজন কমে যাওয়া বা বেড়ে যাওয়া, কাজ-কর্মেে শক্তি হারিয়ে ফেলা, মনেযোগ হারিয়ে ফেলা, মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাওয়া, নিজেকে নিঃস্ব মনে করা,আত্মহত্যার কথা বলা, ভাবা, চেষ্টা করা। এ লক্ষণগুলো টানা দু সপ্তাহের বেশি থাকলে আমরা তাকে আত্মহত্যার ঝুঁকিতে আছেন বলে মনে করা যায়।   

মানসিক রোগের চিকিৎসাঃ   

মানসিক রোগের দুই ধরনের চিকিৎসা রয়েছে।সাইকাট্রিস্টরা বিভিন্ন ঔষধের ও আধুনিক চিকিৎসা যন্ত্রপাতি দ্বারা  এই রোগ কমিয়ে আনতে পারেন। তাছাড়া কাউন্সেলিং সাইকোলজিস্টরা কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে ডিপ্রেশন কমিয়ে আনতে পারেন।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

ময়মনসিংহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিনের ধর্ষণের ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল

ময়মনসিংহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিনের ধর্ষণের ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল

নভেম্বরেই প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাচ্ছেন হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

নভেম্বরেই প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাচ্ছেন হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

দক্ষিণ আফ্রিকায় ২২ দেশের নাগরিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

দক্ষিণ আফ্রিকায় ২২ দেশের নাগরিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

কলারোয়ায় একই পরিবারের ৪ সদস্য খুনের রহস্য উন্মোচন, হত্যায় ব্যবহৃত চাপাতি উদ্ধার

কলারোয়ায় একই পরিবারের ৪ সদস্য খুনের রহস্য উন্মোচন, হত্যায় ব্যবহৃত চাপাতি উদ্ধার

এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী এসআই হাসান বরখাস্ত

এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী এসআই হাসান বরখাস্ত

পোল্যান্ডে নতুন রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা

পোল্যান্ডে নতুন রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা

ওরা তো খুব ছোট স্যার, তাই আমি চেষ্টা করি বেশি ব্যথা যেন না পায়, মাদ্রাসার শিক্ষক!

ওরা তো খুব ছোট স্যার, তাই আমি চেষ্টা করি বেশি ব্যথা যেন না পায়, মাদ্রাসার শিক্ষক!

আসসালামু আলাইকুম ও আল্লাহ হাফেজ বলাটা জামাত ও জঙ্গীবাদের শিক্ষা

আসসালামু আলাইকুম ও আল্লাহ হাফেজ বলাটা জামাত ও জঙ্গীবাদের শিক্ষা

সৌদি 'ফ্রি ভিসা'র ভয়াবহ ফাঁদ

সৌদি 'ফ্রি ভিসা'র ভয়াবহ ফাঁদ

জিয়ার সালাম নিয়ে কুটুক্তি সালাম দিয়েই জবাব সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

জিয়ার সালাম নিয়ে কুটুক্তি সালাম দিয়েই জবাব সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

রাজকে কতটা ভালোবাসেন ছবি পোস্ট করে জানালেন শুভশ্রী

রাজকে কতটা ভালোবাসেন ছবি পোস্ট করে জানালেন শুভশ্রী

চাটখিলে চাচিকে ধর্ষণ ও নগ্ন ভিডিও ধারণের অভিযোগে যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

চাটখিলে চাচিকে ধর্ষণ ও নগ্ন ভিডিও ধারণের অভিযোগে যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

হাত-পা ভেঙে জমি দখল করায় রেললাইনে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা

হাত-পা ভেঙে জমি দখল করায় রেললাইনে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা

কাতার থেকে ভিসা জটিলতায় দেশে ফিরতে হলো ৪৭ ইতালি প্রবাসীকে

কাতার থেকে ভিসা জটিলতায় দেশে ফিরতে হলো ৪৭ ইতালি প্রবাসীকে

কলারোয়ায় ৪ হত্যাকান্ড: একাই ৪জনকে কুপিয়েছে নিহতের ছোটভাই রাহানুর

কলারোয়ায় ৪ হত্যাকান্ড: একাই ৪জনকে কুপিয়েছে নিহতের ছোটভাই রাহানুর

সর্বশেষ

মিঠাপুকুরে মাছ মারার সময় নদীতে পড়ে এক ব্যাক্তির মৃত্যু

মিঠাপুকুরে মাছ মারার সময় নদীতে পড়ে এক ব্যাক্তির মৃত্যু

সঞ্জয় দত্ত ক্যানসারকে হার মানিয়ে কেমন আছেন এখন

সঞ্জয় দত্ত ক্যানসারকে হার মানিয়ে কেমন আছেন এখন

মিঠাপুকুরে ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রির সময় মা-ছেলে আটক

মিঠাপুকুরে ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রির সময় মা-ছেলে আটক

অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান-এর লেখা সম্পাদনা গ্রন্থ 'কৃষি সাংবাদিকতা'

অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান-এর লেখা সম্পাদনা গ্রন্থ 'কৃষি সাংবাদিকতা'

তাসকিনের বোলিং তোপে ফাইনালে শান্ত একাদশ: বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ

তাসকিনের বোলিং তোপে ফাইনালে শান্ত একাদশ: বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

তাড়াইলে জাতীয় পার্টির নেতা ইয়াবাসহ আটক

সিলেটে ২৫ বছর পর ভূমির মালিকানা ফিরে পেলেন তারা

সিলেটে ২৫ বছর পর ভূমির মালিকানা ফিরে পেলেন তারা

পুলিশ সদস্যকে মারধরের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

পুলিশ সদস্যকে মারধরের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

এক সাংবাদিকের সহায়তায় সিসিটিভি ফুটেজ পাল্টে দেন এসআই হাসান!

এক সাংবাদিকের সহায়তায় সিসিটিভি ফুটেজ পাল্টে দেন এসআই হাসান!

ইচ্ছে ছিল

ইচ্ছে ছিল

জাতীয় সঙ্গীতের সুরে হামদ গাওয়ায়,  বন্ধ করা মাদ্রাসাটি আগামীকাল খুলছে

জাতীয় সঙ্গীতের সুরে হামদ গাওয়ায়, বন্ধ করা মাদ্রাসাটি আগামীকাল খুলছে

দূর্গাপূজা শুরু হওয়ার আগেই প্রতিমা ভাঙচুর

দূর্গাপূজা শুরু হওয়ার আগেই প্রতিমা ভাঙচুর

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

ঢাকা থেকে রোম সরাসরি একটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দেখে এগিয়ে যেতেন ভুয়া ওসি

পোল্যান্ডে নতুন রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা

পোল্যান্ডে নতুন রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা