Feedback

আরও...

আত্মহত্যা !!

আত্মহত্যা !!
September 24
09:54pm
2020
Sifat Al Saad
Jhalakathi, Jhalakathi:
Eye News BD App PlayStore

আত্মহত্যা মানে নিজের জীবন শেষ করা। এটি কখনও কখনও মানুষের পক্ষে ব্যথা বা যন্ত্রণার হাত থেকে বাঁচার উপায়।

যখন কেউ নিজের জীবন শেষ করেন, আমরা বলি যে তারা "আত্মহত্যার দ্বারা মারা গিয়েছিল।" একটি "আত্মহত্যার প্রচেষ্টা" এর অর্থ হল যে কেউ তাদের জীবন শেষ করার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু মারা যায় নি।  ডুরখাইম চারটি ভিন্ন ধরণের আত্মহত্যা সনাক্ত করে, যা হ'ল অহংবাদী আত্মহত্যা, পরার্থবাদী আত্মহত্যা, আণবিক আত্মহত্যা এবং প্রাণঘাতী আত্মহত্যা।                                           

১. অহমিকাবাদী আত্মহত্যা:

অহংকারমূলক আত্মহত্যা সামাজিক একীকরণের অভাব থেকে উদ্ভূত হিসাবে দেখা হয়। এটি এমন ব্যক্তিদের দ্বারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যারা সামাজিক প্রবণতা এবং নিজেকে একা বা বহিরাগত হিসাবে দেখেন। এই ব্যক্তিরা সমাজে তাদের নিজস্ব জায়গা খুঁজে পেতে অক্ষম এবং গ্রুপে সামঞ্জস্য করতে সমস্যা আছে। তারা সামান্য এবং কোন সামাজিক যত্ন পেয়েছিল। একাকীত্ব বা অত্যধিক স্বাতন্ত্র্য থেকে নিজেকে মুক্ত করার জন্য আত্মহত্যাকে একটি সমাধান হিসাবে দেখা হয়। 

২. পরার্থপর আত্মহত্যা:

সামাজিক গ্রুপের জড়িততা খুব বেশি হলেই পরার্থপর আত্মহত্যা ঘটে। ব্যক্তিরা গ্রুপে এতটা সংহত হয়েছে যে তারা এই গোষ্ঠীর কিছু বাধ্যবাধকতা পালনের জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করতে রাজি আছে। গোষ্ঠীর সম্মিলিত সুবিধার জন্য বা গ্রুপ যে কারণে বিশ্বাস করে তার জন্য ব্যক্তিরা নিজেকে হত্যা করে। 

৩. আণোমিক আত্মহত্যা:

অ্যানোমিক আত্মহত্যা সামাজিক নিয়ন্ত্রণের অভাবে ঘটে এবং এটি উচ্চ স্তরের চাপ এবং হতাশার সময়ে ঘটে। আনোমিক আত্মহত্যা পরিস্থিতিগুলির আকস্মিক এবং অপ্রত্যাশিত পরিবর্তন থেকে আসে। উদাহরণস্বরূপ, ব্যক্তিরা যখন চূড়ান্ত আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়, তখন হতাশা এবং চাপ যে ব্যক্তিরা তাদের মুখোমুখি হয় তা পালানোর উপায় হিসাবে আত্মহত্যা করার দিকে চালিত করে। 

৪. প্রাণঘাতী আত্মহত্যা:

ব্যক্তিদের কঠোর নিয়ন্ত্রণের অধীনে রাখলে প্রাণঘাতী আত্মহত্যা ঘটে। এই ব্যক্তিদের চূড়ান্ত নিয়মের অধীনে স্থাপন করা হয় বা তাদের উপর উচ্চ প্রত্যাশা সেট করা থাকে, যা কোনও ব্যক্তির স্ব-স্ব বা ব্যক্তিত্বের বোধকে সরিয়ে দেয়। দাসত্ব ও নিপীড়ন প্রাণঘাতী আত্মহত্যার উদাহরণ যেখানে ব্যক্তিরা অনুভব করতে পারে যে তারা ভাগ্য দ্বারা নির্ধারিত হয়েছে এ জাতীয় পরিস্থিতিতে এবং আত্মহত্যাকে এইরকম পরিস্থিতি থেকে মুক্তির একমাত্র উপায় হিসাবে বেছে নিতে পারে।  কিশোর কি কারণে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে?

  কিশোর বছরগুলি একটি মানসিক চাপের সময়। তারা বড় পরিবর্তন সঙ্গে ভরা হয়। এর মধ্যে রয়েছে দেহের পরিবর্তন, চিন্তার পরিবর্তন এবং অনুভূতির পরিবর্তন। মানসিক চাপ, বিভ্রান্তি, ভয় এবং সন্দেহের দৃ অনুভূতি কোনও কিশোরের সমস্যা সমাধান এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণকে প্রভাবিত করতে পারে। সে সফল হতে চাপও অনুভব করতে পারে।  কিছু কিশোর-কিশোরীদের জন্য, অন্যান্য ইভেন্টের সাথে একত্রিত হলে সাধারণ উন্নয়নমূলক পরিবর্তনগুলি খুব আনসেটলিং হতে পারে যেমন:  তাদের পরিবারে পরিবর্তন, যেমন বিবাহবিচ্ছেদ, ভাইবোনদের বাইরে চলে যাওয়া, বা কোনও নতুন শহরে চলে যাওয়া 

 *বন্ধুত্বের পরিবর্তন   

*স্কুলে সমস্যা 

 *অন্যান্য ক্ষতি  কীভাবে আমরা আত্মহত্যা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারি?  কেউ বলতে পারে না যে তারা আত্মহত্যার চিন্তা করবে না। আমরা আত্মহত্যা রোধে দুটি বড় কাজ করতে পারি। প্রথমটি হ'ল অন্য ব্যক্তির সাথে সংযোগ তৈরি করা। দ্বিতীয়টি হ'ল মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলির জন্য সহায়তা সন্ধান করা। 

অন্যান্য ব্যক্তির সাথে সংযোগ তৈরি করুন: 

নিজেকে আত্মহত্যার হাত থেকে রক্ষা করার একটি বড় অংশ অন্যের সাথে সংযুক্ত বোধ করা। 

সংযোগ তৈরির উপায়গুলি এখানে: 

পরিবার এবং বন্ধুদের সাথে সময় কাটান।  সাংস্কৃতিক বা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যান।   আপনার সম্প্রদায়ের সাথে জড়িত হন। উদাহরণস্বরূপ, আপনার সম্প্রদায় কেন্দ্র বা কলেজে ক্লাসের জন্য সাইন আপ করুন। 

১. অন্যদের সাহায্য কর. উদাহরণস্বরূপ, দাতব্য সংস্থা বা অন্য গোষ্ঠীটিকে সহায়তা করুন। 

২. মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলির জন্য প্রাথমিকভাবে সহায়তা পান:  মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা আত্মহত্যার একটি বড় অঙ্গ। মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যাগুলির প্রাথমিক দিকে সাহায্যের মাধ্যমে আমরা নিজেকে রক্ষা করতে পারি।

  মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার সাধারণ লক্ষণগুলি এখানে:

  *কোন কিছুর মতো অনুভূতি আপনাকে আর খুশি করে না। 

*বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে খুব দু: খিত বা নিরাশ বোধ করা।

  *মনে হচ্ছে আপনার জীবনে ঘটে যাওয়া জিনিসগুলির সাথে আপনি মানিয়ে নিতে পারবেন না   

*অনেক সপ্তাহ ধরে খুব স্ট্রেসড বা ভয় পেয়ে যাওয়া। 

*অদ্ভুত চিন্তা লক্ষ্য করা বা অজানা বিষয়গুলি লক্ষ্য করা যা দূরে যায় না। কিছু লোক এমন কণ্ঠস্বর শুনতে পায় যা অন্য লোকেরা শুনতে পায় না। 

*স্বাভাবিকের চেয়ে কম বা বেশি ঘুমানো। 

*স্বাভাবিকের চেয়ে কম বা বেশি খাওয়া। 

*বেশি অ্যালকোহল পান করা বা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ওষুধ ব্যবহার করা।

All News Report

Add Rating:

0

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

বাতিল হতে যাচ্ছে ‘কাফালা বা কপিল প্রথা’: ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসেই বিলুপ্তি কার্যকর হবে

নাস্তিকরা উগ্রবাদী হয়ে উঠছে- শাহরিয়ার কবির

নাস্তিকরা উগ্রবাদী হয়ে উঠছে- শাহরিয়ার কবির

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নিতে আবেদন জানিয়েছেন হাবিপ্রবির ছাত্র উপদেষ্টা পরিচালক

সুনামগঞ্জে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে একই পরিবারের ৮ জন আহত

সুনামগঞ্জে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে একই পরিবারের ৮ জন আহত

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অবৈধ ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

বাংলা সিনেমার ফিল্ম স্টাইলে দেহরক্ষী নিয়ে চলতেন ইরফান !

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে

৮ মাস কাজ বন্ধ থাকায় ৩৬৯ নকল নবীশ চরম আর্থিক সংকটে মানবেতর জীবন-যাপন করছে

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

ভয়ে ফরাসি নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান ফ্রান্সের

রংপুরে ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে জড়িত এএসআই রাহেনুল

রংপুরে ছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে জড়িত এএসআই রাহেনুল

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

যার ভরসায় রেখে গেলেন বাবা, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

জয়পুরহাটে এমপি'র নামফলক ভাংচুরের অভিযোগ

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

ম্যাক্রোঁকে ডিম নিক্ষেপ?

রং নম্বরে পরিচয়, পরকীয়ার টানে ঘরে ছেড়ে মাইক্রোবাসে ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ

রং নম্বরে পরিচয়, পরকীয়ার টানে ঘরে ছেড়ে মাইক্রোবাসে ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ

মালয়েশিয়ায় চাকরী হারানো শ্রমিকদের জন্য অনলাইনে চাকরীর আবেদন চালু করা হয়েছে

মালয়েশিয়ায় চাকরী হারানো শ্রমিকদের জন্য অনলাইনে চাকরীর আবেদন চালু করা হয়েছে

সর্বশেষ

কালাইয়ে ধান বীজ বিক্রির প্রতারণা, ডিলারের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

কালাইয়ে ধান বীজ বিক্রির প্রতারণা, ডিলারের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

জয়পুরহাটে গাড়ি চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধি মূলক প্রশিক্ষণ

জয়পুরহাটে গাড়ি চালকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধি মূলক প্রশিক্ষণ

"কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও" দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

"কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও" দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

শ্যামনগরে স্বর্ণকিশোরী নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

শ্যামনগরে স্বর্ণকিশোরী নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশনের ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

ছেলের মুক্তিতে সবাইকে মিষ্টিমুখ করালেন সাকিবের বাবা

ছেলের মুক্তিতে সবাইকে মিষ্টিমুখ করালেন সাকিবের বাবা

উলিপুরে অম্বিকাচরণ রায় শিক্ষা বৃত্তি-২০২০ প্রদান

উলিপুরে অম্বিকাচরণ রায় শিক্ষা বৃত্তি-২০২০ প্রদান

বাঘারপাড়ায় নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজলের স্মরণ সভা

বাঘারপাড়ায় নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান কাজলের স্মরণ সভা

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু ‘অ্যাপোফিস’, ৪৮ বছর পর ধাক্কা লাগতে পারে পৃথিবীর সঙ্গে

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু ‘অ্যাপোফিস’, ৪৮ বছর পর ধাক্কা লাগতে পারে পৃথিবীর সঙ্গে

গোবিন্দগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদা জয়ী

গোবিন্দগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদা জয়ী

জেদ্দায় ফ্রান্স দূতাবাসের নিরাপত্তারক্ষী ছুরিকাঘাতে আহত

জেদ্দায় ফ্রান্স দূতাবাসের নিরাপত্তারক্ষী ছুরিকাঘাতে আহত

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মা ইলিশ ধরার কারেন্টজাল ধংস

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মা ইলিশ ধরার কারেন্টজাল ধংস

টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় ছয় জনের যাবজ্জীবন, ছয় জন বেকসুর খালাস

টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় ছয় জনের যাবজ্জীবন, ছয় জন বেকসুর খালাস

তালতলীতে মহানবী হযরত মুহম্মাদ (সাঃ)-কে অবমাননা করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

তালতলীতে মহানবী হযরত মুহম্মাদ (সাঃ)-কে অবমাননা করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

বগুড়ায় নকল ব্যান্ডরোলসহ গ্রেফতার ৩

বগুড়ায় নকল ব্যান্ডরোলসহ গ্রেফতার ৩

সিলেটে ফের থাবা বসালো করোনা

সিলেটে ফের থাবা বসালো করোনা