Feedback

ভিন্নস্বাদের খবর

ইন্দোনেশীয় এক নারীর সঙ্গে ২ বাংলাদেশির প্রেম

ইন্দোনেশীয় এক নারীর সঙ্গে ২ বাংলাদেশির প্রেম
September 17
05:41pm
2020
মোশারফ
Kendua, Netrokona, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

ইন্দোনেশীয় এক নারীর সঙ্গে দুই বাংলাদেশির প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার পর প্রথম প্রেমিক ওই নারীকে হত্যার অভিযোগে সিঙ্গাপুরে মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হয়েছেন। ছয় বছরের প্রেমের সম্পর্ক সত্ত্বেও দ্বিতীয় আরেকজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ায় তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন পেশায় রঙ মিস্ত্রি এই বাংলাদেশি। তিনি বলেছেন, ওই ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে অস্বীকৃতি জানানোয় প্রেমিকাকে হত্যা করেন। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরের গেল্যাং এলাকার গোল্ডেন ড্রাগন হোটেলে প্রেমিকা নুরহিদায়াতি ওয়ার্তোনো সুরাতাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিক আহমেদ সেলিম। মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরের একটি আদালতে এই হত্যাকাণ্ডের বিচারে শুনানি শুরু হয়েছে। 

আদালতের বিচারক হে হুং চুন বলেছেন, ৩৪ বছর বয়সী প্রেমিকাকে হত্যার উদ্দেশে হোটেলে নিয়েছিলেন সেলিম। সেখানে একটি তোয়ালে সঙ্গে করে নিয়ে যান তিনি। ২০১৮ সালের ৯ ডিসেম্বর প্রেমিকার নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার বিষয়ে জানার পর থেকে তোয়ালেটি সঙ্গে নিয়ে ঘুরছিলেন তিনি।  আদালতে আসামিপক্ষের আইনজীবী বলেছেন, প্রেমিকা সুরাতা প্রায়ই তার প্রেমিক সেলিমকে বলতেন, শয্যায় এবং অর্থনৈতিক দিক থেকেও তোমার চেয়ে নতুন প্রেমিকই বেশি ভালো। তুমি যদি বিশ্বাস না করো, তাহলে পরবর্তী সপ্তাহে তোমাকে একটি নতুন ভিডিও দেখাবো। সেই সময় মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ায় হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে দাবি করেছে সেলিমের আইনজীবী। 

সিঙ্গাপুরের সেরানগুনের একটি পরিবারে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করার সময় ২০১২ সালের মে মাসে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তারা। প্রেম শুরুর এক মাসের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হন। ২০১৭ সালের নভেম্বরে তারা দু'জনই পরবর্তী বছরের ডিসেম্বরে বিয়ে করবেন বলে একমত হন  কিন্তু ২০১৮ সালের মাঝের দিকে বাংলাদেশি আরেক প্রবাসী শ্রমিক শামীম শামিজুর রহমানের দেখাশোনা শুরু করেন সুরাতা। প্রেমিকা প্রতারণা করছে বলে সেই সময় সন্দেহ করেন সেলিম। পরে এ নিয়ে দুজনের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সুরাতা অন্য একজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার বিষয়টি স্বীকার করেন। পরে সেলিম বাংলাদেশে তার মাকে ফোন করে বিয়ের জন্য পাত্রী দেখতে বলেন। 

সেলিম এবং সুরাতার মাঝে সম্পর্ক স্বাভাবিক হয়ে এলেও অবিশ্বাসের কারণে অপর প্রেমিককে নিয়ে প্রায়ই দু'জনের মাঝে ঝগড়া হয়। ২০১৮ সালের অক্টোবরের শেষ এবং নভেম্বরের শুরুর দিকে ফেসবুকে হানিফা মোহাম্মদ আবু নামের এক বাংলাদেশির সঙ্গে কথা বলা শুরু করেন সুরাতা।  সিঙ্গাপুরের আলজুনাইদের একটি হোটেলে হানিফার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হন সুরাতা। ইন্দোনেশীয় এই নারী হানিফার কাছে তার প্রথম প্রেমিক সেলিমের কথা জানান। সেলিমের সঙ্গে শিগগিরই সম্পর্ক ছিন্ন করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।  পরে ২০১৮ সালের ৯ ডিসেম্বর সেলিমকে নতুন প্রেমিকের ব্যাপারে জানান সুরাতা। একই সঙ্গে বাংলাদেশে ফিরে পরিবারের ইচ্ছায় বিয়ে করা উচিত বলেও সেলিমকে জানিয়ে দেন তিনি।

একই বছরের ২৩ ডিসেম্বর সেলিম গেল্যাংয়ের গোল্ডেন ড্রাগন হোটেলে সাক্ষাৎ করে ধার নেয়া ৫০০ সিঙ্গাপুরি ডলার সুরাতাকে ফেরত দেন।  বিচারক হে হুং চুন বলেন, সাতদিন পর, ৩০ ডিসেম্বর আবারও একই হোটেলে সাক্ষাতের জন্য সুরাতাকে রাজি করান সেলিম। সেখানে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার পর ইন্দোনেশীয় প্রেমিকাকে অপর ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার নির্দেশ দেন। সম্পর্ক ছিন্ন না করলে তাকে হত্যা করবেন বলে বারবার হুমকি দেন। কিন্তু নতুন সম্পর্ক ছিন্ন করতে রাজি না হওয়ায় গলায় তোয়ালে পেঁচিয়ে সুরাতাকে হত্যা করেন সেলিম।  পরদিন স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ১১টার দিকে সেলিমকে গ্রেফতার করে সিঙ্গাপুর পুলিশ।  সূত্র: স্ট্রেইট টাইমস।  এসআইএস/এমকেএইচ

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

বগুড়ায় ডেকে নিল বান্ধবী, ধর্ষণ করল ‘যুবলীগ নেতা’!

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় তিন শিক্ষক, বাবুনগরী পেলেন ২ দায়িত্ব

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

এনএসআই ও বিজিবি’র যৌথ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ আটক-১

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলী

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

পাইকগাছায় নার্সের স্বর্নের লকেট ছিনতাই করে পালানোর সময় দু'কলেজ ছাত্র আটক

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

কে হচ্ছেন হেফাজতের পরবর্তী আমির

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

সাবেক ওসি প্রদীপের সকল স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

রৌমারীতে চর লাঠিয়াল ডাঙ্গা এলাকায় নতুন হাটের সূচনা সমন্ধে আলোচনা সভা

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

কবিতাঃ বৃষ্টি জলের ছোঁয়া

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় পল্লী চিকিৎসক নিহত

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ জন প্রত্যাহার

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

নামাজ পড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে খুন মসজিদের ইমাম

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

মসজিদে বিস্ফোরণ: গ্রেফতার মোবারক রিমান্ডে

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

আবরারের বাবা অসুস্থ: মামলার প্রথম দিনেই সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি

শুধু নামেই ৫০ শয্যা হাসপাতাল, বাস্তবে নেই

শুধু নামেই ৫০ শয্যা হাসপাতাল, বাস্তবে নেই

সর্বশেষ

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

আন্তঃ আফগান বৈঠক ফলপ্রসূ নয়!

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

বিএসএফের তাড়ায় নিখোঁজ বাবার জন্য সন্তানদের অপেক্ষা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

হচ্ছে না শিকদার বাড়ির সবচেয়ে বড় দূ্র্গা পূজা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

মহিষ চুরির অভিযোগে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রকে ১৯ বছর দেখিয়ে মামলা

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

সন্ধ্যার পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

করোনা সচেতনতা বৃদ্ধিতে এবার শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে পটনাট্য

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

নির্মমতার চরম পর্যায়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

আদালতের ছয় তলা থেকে সেই মজনুর লাফিয়ে পড়ার চেষ্টা

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

একাধিকবার বাড়ানো যাবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

নবীনগরে লাল সবুজ উন্নয়ন সংঘের উদ্যোগে ৫০০ শত তালের বীজ রোপণ

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল পাবে জবি শিক্ষার্থীরা: জবি উপাচার্য

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার,  সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

মদ তৈরীর কারখানা আবিস্কার, সৈনিকলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ২

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

দক্ষিণাঞ্চলের অন্যতম দর্শনীয় স্থান ৫শ বছরের পুরাতন প্রাচীনতম মসজিদকুঁড় মসজিদ

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

শাজাহানপুরে ব্র্যাক স্কুলের এক শিক্ষিকার ১০ হাজার টাকা জারিমানা

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

নাগরপুরে আঁখ ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার