Feedback

খোলা কলাম

যতদিন রাজনীতি করবো, তত দিন গণভবনেই থাকবো

যতদিন রাজনীতি করবো, তত দিন গণভবনেই থাকবো
September 15
02:12am
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

গুলশানে খুলে দেয়া হয়েছে বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমদ পার্ক। এই পার্কের নামকরণ বিচারপতি ও বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিন আহমদের নামে। এই সূত্রে একটা ইতিহাস মনে পড়ে গেল। ২০০১ সালের নির্বাচন নিয়ে শেখ হাসিনা একটা কথা বলে থাকে যে আওয়ামী লীগই নাকি শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছে। ঘটনাক্রমে ২০০১ সালের নির্বাচনকালেও শাহাবুদ্দিন আহমেদ রাষ্ট্রপতি পদে আসীন। আওয়ামীলীগই তাঁকে রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব দিয়েছিল।


তত্ত্বাবধায়ক সরকার ২০০১ সালের জুলাইতে দায়িত্ব নেয়ার পরেও শেখ হাসিনা নির্বাচনী সরকারের উপর প্রভাব বিস্তারের উদ্দেশ্যে গণভবন ছাড়তে অস্বীকৃতি জানায়। ৬ জুলাই এক চা-চক্রে শেখ হাসিনা জানায়, "যতদিন রাজনীতি করবো, তত দিন গণভবনেই থাকবো।" শেখ হাসিনার এই ঘোষণায় সকল দলের রাজনীতিবিদদের মধ্যেই প্রতিক্রিয়া হয়। সরকারি ভবন দখল করে এভাবে প্রকাশ্যে সেই দখলের ঘোষণা করায় শেখ হাসিনা যে লোভী এইটা প্রকাশ্যে চলে আসে। নির্বাচন কতটা সুষ্ঠু হবে তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিলে রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ ৩১ জুলাই ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাংবাদিকদের সাথে আলোচনায় ঘোষণা দেন, "দেশ ডুবে গেলেও ১১ অক্টোবরের মধ্যে নির্বাচন হবে।" দেশের মানুষের প্রতিবাদের মুখে শেখ হাসিনাকে অবশেষে প্রধানমন্ত্রিত্ব শেষ হওয়ার একমাস পর ১৬ আগস্ট গণভবন ছাড়তে হয়।


অক্টোবরের প্রথম দিন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে হওয়া ২০০১ সালের নির্বাচনের ফল আসা শুরু করলে আওয়ামী লীগ প্রমাদ গুণতে থাকে। শেখ হাসিনা নিজেও রংপুরে বিপুল ভোটে জাতীয় পার্টির এক স্থানীয় নেতার কাছে হেরে যায়। ৬৪ জেলায় আওয়ামী লীগের তৈরি করা ৬৪ গডফাদাররা নির্বাচনের রাতেই ভারতে পাড়ি জমায়। দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট। শেখ হাসিনা বুঝতে পারে আওয়ামী লীগ কতটা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। হন্তদন্ত হয়ে সে যায় রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিনের কাছে। তাঁর আব্দার ছিল যে রাষ্ট্রপতির বিশেষ ক্ষমতাবলে এই নির্বাচন বাতিল করতে হবে।


শাহাবুদ্দিন আহমেদ সেই আব্দার রাখেননি। নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর শেখ হাসিনা সংবাদ সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদকে বেঈমান ও মোনাফেক আখ্যা দেয়।

জবাবে শাহাবুদ্দিন আহমেদ ২০০২ সালের ৪ জানুয়ারি প্রতিবাদলিপি পাঠান। সেখানে বলেন, "আওয়ামী লীগকে নির্বাচনে জেতানোর মুচলেকা দিয়ে আমি রাষ্ট্রপতি পদ গ্রহণ করিনি। তাঁদের সব কথা শুনলে আমি ফেরেশতা, নইলে আমি শয়তান।" তিনি আরো বলেন, "রাষ্ট্রপতি জনগণের সঙ্গে বেঈমানি করেছেন বলে শেখ হাসিনা ঠিক কী বোঝাতে চেয়েছেন, তা আমার কাছে স্পষ্ট নয়। হেরে যাওয়ার পর তাঁরা আমাকে নির্বাচন বাতিল করে রাষ্ট্রপতির অধীনে পুনরায় নির্বাচন করার অনুরোধ করেন। আমি তাতে রাজি হইনি।" শেখ হাসিনার 'অশান্তিপূর্ণ' ক্ষমতা আরোহণের স্বপ্নের সেখানেই সমাপ্তি ঘটে। বাধ্য হয়ে, নেতা-কর্মী বিচ্ছিন্ন অবস্থায় শেখ হাসিনা তাঁর কথিত 'শান্তিপূর্ণ' ক্ষমতা হস্তান্তর করে বাড়ি ফিরে যায়।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

নিখোঁজের ২০ ঘন্টা পর  আমতলীতে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

নিখোঁজের ২০ ঘন্টা পর আমতলীতে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

শাকিল বাড়ি ফিরেছে,তবে মৃত

শাকিল বাড়ি ফিরেছে,তবে মৃত

মানুষ মত দেখতে অদ্ভুত প্রাণীটির দেখা মিলল পৃথিবীতে!

মানুষ মত দেখতে অদ্ভুত প্রাণীটির দেখা মিলল পৃথিবীতে!

নূরদের বিরুদ্ধে মামলাকারী তরুণীর এবার শাহবাগ থানায় মামলা

নূরদের বিরুদ্ধে মামলাকারী তরুণীর এবার শাহবাগ থানায় মামলা

দেশের বাজারে বর্তমান স্বর্ণের দাম

দেশের বাজারে বর্তমান স্বর্ণের দাম

স্তন  নিয়ে  প্রশ্ন করায় বেজয় চটে গেলেন শার্লিন চোপড়া

স্তন নিয়ে প্রশ্ন করায় বেজয় চটে গেলেন শার্লিন চোপড়া

স্মৃতির পাতায় অমলিন প্রিয় ক্যাম্পাস

স্মৃতির পাতায় অমলিন প্রিয় ক্যাম্পাস

পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা দাবি রাষ্ট্রপক্ষের

পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা দাবি রাষ্ট্রপক্ষের

রোববার থেকে সৌদির নতুন ভিসা

রোববার থেকে সৌদির নতুন ভিসা

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ  মামলার তথ্য ও প্রমাণাদী চেয়ে তদন্ত কমিটির জরুরি প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ মামলার তথ্য ও প্রমাণাদী চেয়ে তদন্ত কমিটির জরুরি প্রেস বিজ্ঞপ্তি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ লক্ষ টাকার বীমা দাবী প্রদান করেছে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ লক্ষ টাকার বীমা দাবী প্রদান করেছে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স

পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে স্কুলছাত্রী কীটনাশক পানে আত্মহত্যা

পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে স্কুলছাত্রী কীটনাশক পানে আত্মহত্যা

সুনামগঞ্জ সমাচার

সুনামগঞ্জ সমাচার

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান

আত্মহত্যার কারণ ও তার সুস্পষ্ট সমাধান

অখ্যাত স্কুলের বিখ্যাত শিক্ষকঃ একজন হামিদ স্যার

অখ্যাত স্কুলের বিখ্যাত শিক্ষকঃ একজন হামিদ স্যার

সর্বশেষ

‘টাউট অভিযান’ সুপ্রিম কোর্টে ধরা পড়লো যেভাবে

‘টাউট অভিযান’ সুপ্রিম কোর্টে ধরা পড়লো যেভাবে

আগামী বছরের শুরুতে চীনের সিনোভ্যাকের করোনা ভ্যাকসিন আসছে

আগামী বছরের শুরুতে চীনের সিনোভ্যাকের করোনা ভ্যাকসিন আসছে

স্মার্টফোন স্বল্প খরচে এর মধ্যে স্যামসাং -এর নতুন মাইলফলক অর্জন

স্মার্টফোন স্বল্প খরচে এর মধ্যে স্যামসাং -এর নতুন মাইলফলক অর্জন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ১৫ দিন পর এইচএসসি পরীক্ষা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ১৫ দিন পর এইচএসসি পরীক্ষা

মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

উন্নয়ন রূপরেখা বাস্তবায়নই মূল চ্যালেঞ্জ -মেয়র প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম

উন্নয়ন রূপরেখা বাস্তবায়নই মূল চ্যালেঞ্জ -মেয়র প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম

এবার স্বর্ণপদক জিতলো ইঁদুর!

এবার স্বর্ণপদক জিতলো ইঁদুর!

বাংলাদেশের ২ জেলা যুক্ত করে নেপালের নতুন মানচিত্র প্রকাশ!

বাংলাদেশের ২ জেলা যুক্ত করে নেপালের নতুন মানচিত্র প্রকাশ!

পৃথিবী রক্ষায় শেখ হাসিনার পাঁচ প্রস্তাব

পৃথিবী রক্ষায় শেখ হাসিনার পাঁচ প্রস্তাব

৫৪,০০০ রোহিঙ্গাকে পাসপোর্ট দিতে সৌদির চাপ: কি করবে বাংলাদেশ

৫৪,০০০ রোহিঙ্গাকে পাসপোর্ট দিতে সৌদির চাপ: কি করবে বাংলাদেশ

এই দিন দিন না সামনে আরো দিন আছে কি বললেন: রিজভী

এই দিন দিন না সামনে আরো দিন আছে কি বললেন: রিজভী

পুঁজিবাজারে চলতি বছর আসছে না ২৭ বিমা কোম্পানি

পুঁজিবাজারে চলতি বছর আসছে না ২৭ বিমা কোম্পানি

ভূমিহীন ও নাগরিক অধিকার ভিত্তিক নেতা এড. আব্দুর রহিমের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

ভূমিহীন ও নাগরিক অধিকার ভিত্তিক নেতা এড. আব্দুর রহিমের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

তারা যতই ষড়যন্ত্র করুক কিন্তু সফল হবে না

তারা যতই ষড়যন্ত্র করুক কিন্তু সফল হবে না

১২৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

১২৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার