Feedback

জাতীয়, রাজনীতি

পাঁচ বিষয়ে সরাসরি তদারকি করছেন শেখ হাসিনা

পাঁচ বিষয়ে সরাসরি তদারকি করছেন শেখ হাসিনা
September 13
09:34pm
2020
Ali Sohel
Kuliarchar, Kishoreganj, প্রতিনিধি:
Eye News BD App PlayStore

করোনা সংকট কালে একাই লড়ছেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে যেমন দায়িত্ব পালন করছেন, তার দায়িত্বের বাইরে গিয়েও প্রতিটা বিষয়ে তিনি খুঁটিনাটি খোঁজখবর  নিচ্ছেন, যেন কোন কারণেই জনগণের কষ্ট না হয়। একদিকে তিনি যেমন অর্থনৈতিক সং’কট মোকাবেলার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, অন্যদিকে স্বাস্থ্যখাতে বিভিন্ন বিষয়গুলোর ব্যাপারে পরামর্শ দিচ্ছেন, নির্দেশনা দিচ্ছেন প্রতিনিয়ত।


কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের বাইরে ৫টি বিষয়ে শেখ হাসিনা সার্বক্ষণিক নজরদারি রাখছেন। প্রধানমন্ত্রী তার কার্যালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন যে, এই সকল বিষয়ে সার্বক্ষণিকভাবে যেন তাকে আপডেট জানানো হয়। প্রতিনিয়ত এই বিষয়গুলো যেন মনিটরিং করে তাকে রিপোর্ট প্রদান করা হয়। যে বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীর সার্বক্ষণিক নজরদারিতে আছে তারমধ্যে রয়েছে..


সিনহা হত্যা তদন্ত: ঈদের আগের দিন ৩১ জুলাই পুলিশের গুলিতে নিহত হন সাবেক অবসরপ্রাপ্ত মেজর সি’নহা মোহাম্মদ রাশেদ। টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ পয়েন্টে তার হত্যাকাণ্ডের পর এক ধরণের অস্থিরতা তৈরি হয়েছিল। এই ঘটনা বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি করেছিল। আর এর পর পরই প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেন।


তিনি সেনাবাহিনী ও পুলিশের প্রধানকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এই ঘটনার দ্রুত তদন্ত ও বিচারের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজে সিনহা পরিবারের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা বলছে যে, সিনহা হত্যায় যে তদন্ত ও ঘটনা প্রবাহ সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে প্রতিনিয়ত খবরাখবর রাখছেন।


ইউএনও ওয়াহিদার ঘটনা: সিনহা হত্যার রেশ কাটতে না কাটতেই ঘোড়াঘাটের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম দুর্বৃত্তদের দ্বারা আক্রান্ত হন। দুর্বৃত্তরা তার বাসায় প্রবেশ করে তাকে এবং তার পিতাকে নির্মমভাবে আক্রমণ করে। এটি স্পষ্ট যে, এটি হত্যা চেষ্টা। এর পরপরই প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে ওয়াহিদাকে দ্রুত ঢাকার বিশেষায়িত নিউরো সাইন্স হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।


সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। এখন তিনি শঙ্কামুক্ত বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। ওয়াহিদার আক্রমণের দুটি দিকই প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক নজর রাখছেন। একটি দিক হল, ওয়াহিদা এবং তার পিতার সুচিকিৎসা করা। আরেকটি দিক হল এই ঘ’টনার নেপথ্যে যারা আছে তাদের খুঁজে বের করা এবং আইনের আওতায় নিয়ে আসা।


এটি নিয়ে যেন কেউ ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে সেটির দিকে কঠোর নজর রাখা হচ্ছে । বিশেষ করে এই ঘটনাকে পুঁজি করে প্রশাসনের মধ্যে যেন কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন।


ওয়াহিদার ব্যাপারেও প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিকভাবে যোগাযোগ করছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। তার চিকিৎসার খোঁজ খবর নিচ্ছেন। এই ব্যাপারে যেন তদন্তে কোন গাফিলতি না হয় এবং দ্রুত যেন তদন্ত করে অপরাধীরা আইনের আওতায় আসে সে ব্যাপারে তিনি নজরদারি রাখছেন।


শুদ্ধি অভিযান: করোনা সংকটের মধ্যেও আওয়ামী লীগে শুদ্ধি অভিযানকে শেখ হাসিনা অগ্রাধিকারের তালিকায় রেখেছেন। করোনা সংকটের সময়ই ফরিদপুরে বড় ধরণের শুদ্ধি অভিযান হয়েছে। এই শুদ্ধি অভিযানের বিষয়টি এমনভাবে হয়েছে যে,


শেখ হাসিনা ছাড়া ঊর্ধ্বতন অনেক বড় বড় কর্মকর্তারাও এই অভিযানের ব্যাপারে কিছু জানতেন না। একইভাবে দেশের অন্যান্য জায়গায় শুদ্ধি অভিযান হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। এককভাবে শেখ হাসিনার সার্বক্ষণিক তদারকি ও নজরদারিতে শুদ্ধি অভিযানগুলো পরিচালিত হচ্ছে।


দুর্নীতিবিরোধী অভিযান: করোনা সংকটের সময় বিভিন্ন দুর্নীতি অভিযোগে যারা অভিযুক্ত তাদের বিচার এবং তাদের নেপথ্যে যারা আছেন তাদেরকে খুঁজে বের করা এবং আইনের আওতায় আনার ক্ষেত্রে পরিচালিত হচ্ছে দুর্নীতি বিরোধী অভিযান। এই দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে শেখ হাসিনার একক নজরদারিতে এবং পরামর্শে হচ্ছে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে নিশ্চিত করেছে।


কারণ দেখা যাচ্ছে যে, অনেক সময় অনেক খবর বেরিয়ে যায় এবং তার ফলে দুর্নীতিবাজরা পালানোর পথ পায়, নানা রকম দেনদরবার করে। এসব বন্ধের জন্য এবার দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে অনেক কঠোর গোপনীয়তা রাখা হচ্ছে। শেখ হাসিনা ছাড়া খুব কম কর্মকর্তাই এ ব্যাপারগুলো সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানছেন। ফলে দুর্নীতিবিরোধী অভিযানটা কার্যকর হচ্ছে। প্রকৃত দুর্নীতিবাজদের আইনের আওতায় আনা সহজ হচ্ছে।


ভ্যাকসিন: প্রধানমন্ত্রীর এখন আরেকটা অগ্রাধিকারের বিষয় হল ভ্যাকসিন। বিশ্বের যে দেশগুলো ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করছে, সে দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা এবং পৃথিবীর যেখানেই ভ্যাকসিন উৎপাদিত হোক না কেন- বাংলাদেশ যেন সেই ভ্যাকসিন সবার আগে পায়, তা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।


প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে, তহবিল তৈরি করা হয়েছে এবং ভ্যাকসিন পাওয়ার ক্ষেত্রে যেন বাংলাদেশ অগ্রাধিকার পায় তা নিশ্চিত করা হয়েছে। আর প্রধানমন্ত্রীর সার্বক্ষণিক নজরদারি থাকার কারণে এই বিষয়গুলো এখন ক্রমশ ইতিবাচক পথে হাঁটছেন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

২৭ হাজার প্রবাসীর আকামা বাতিল

২৭ হাজার প্রবাসীর আকামা বাতিল

যুদ্ধাপরাধ মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু

যুদ্ধাপরাধ মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু

ফেসবুক লাইভে ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা

ফেসবুক লাইভে ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা

প্রাথমিক বিদ্যালয় নীতিমালায় পরিবর্তন আসছে

প্রাথমিক বিদ্যালয় নীতিমালায় পরিবর্তন আসছে

আল্লামা আহমেদ শফীর জানাজা সময় ও স্থান

আল্লামা আহমেদ শফীর জানাজা সময় ও স্থান

সাঘাটায় শিশূ ধর্ষণের ধর্ষক ৯ বছরের শিশু সংশোধনাগারে

সাঘাটায় শিশূ ধর্ষণের ধর্ষক ৯ বছরের শিশু সংশোধনাগারে

মৌলভীবাজার নির্বাচনে লড়বেন লুৎফুর রহমান সুইট

মৌলভীবাজার নির্বাচনে লড়বেন লুৎফুর রহমান সুইট

আল্লামা শফি ইন্তেকাল করেছেন

আল্লামা শফি ইন্তেকাল করেছেন

রাতভর সংঘর্ষে রক্তাক্ত আফগানিস্তান, নিহত অর্ধশত

রাতভর সংঘর্ষে রক্তাক্ত আফগানিস্তান, নিহত অর্ধশত

আল্লামা আহমদ শফির চিরপ্রস্থানে দেশময় শোকের ছায়া

আল্লামা আহমদ শফির চিরপ্রস্থানে দেশময় শোকের ছায়া

২ বাস ও মাইক্রোর সংঘর্ষে চারজন নিহত, আহত ২০

২ বাস ও মাইক্রোর সংঘর্ষে চারজন নিহত, আহত ২০

অভিনব পদ্ধতিতে বৈদ্যুতিক মিটার চুরি

অভিনব পদ্ধতিতে বৈদ্যুতিক মিটার চুরি

ইয়াবাসহ বাসযাত্রী গ্রেপ্তার

ইয়াবাসহ বাসযাত্রী গ্রেপ্তার

স্ত্রীকে কুপিয়ে ৯৯৯ এ ফোন দেন পাষণ্ড স্বামী

স্ত্রীকে কুপিয়ে ৯৯৯ এ ফোন দেন পাষণ্ড স্বামী

স্ত্রীকে কুপিয়ে ৯৯৯-এ ফোন আওয়ামী লীগ নেতার

স্ত্রীকে কুপিয়ে ৯৯৯-এ ফোন আওয়ামী লীগ নেতার

সর্বশেষ

পল্টনে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আরও ৪ জন কারাগারে

পল্টনে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আরও ৪ জন কারাগারে

সাঘাটায় পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণের মামলা

সাঘাটায় পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণের মামলা

দীনমজুর এর অর্থনীতি

দীনমজুর এর অর্থনীতি

৯ বছরে ৯টি বিয়ে, অবশেষে ধরা পড়লেন গার্মেন্ট শ্রমিক

৯ বছরে ৯টি বিয়ে, অবশেষে ধরা পড়লেন গার্মেন্ট শ্রমিক

পাকিস্তানের জন্য প্রাণ দিতে চেয়ে মুহূর্তে ভাইরাল মিয়া খলিফা

পাকিস্তানের জন্য প্রাণ দিতে চেয়ে মুহূর্তে ভাইরাল মিয়া খলিফা

আজ প্রয়াত নায়ক "সালমান শাহ" এর ৪৯ তম জন্মদিন

আজ প্রয়াত নায়ক "সালমান শাহ" এর ৪৯ তম জন্মদিন

অনিশ্চয়তা কাটছে এইচএসসি নিয়ে

অনিশ্চয়তা কাটছে এইচএসসি নিয়ে

অর্থের মিনিময়ে উপজেলা ছাত্রদল কমিটি ঘোষনার অভিযোগ

অর্থের মিনিময়ে উপজেলা ছাত্রদল কমিটি ঘোষনার অভিযোগ

নয় বছরে নয় বিয়ে, বিয়ের প্রতিশ্রুতি আরও ৪ জনের!!

নয় বছরে নয় বিয়ে, বিয়ের প্রতিশ্রুতি আরও ৪ জনের!!

‘মুছা বন্ড’ রিফাত শরীফ হত্যার অন্যতম আসামি এখনও অধরা

‘মুছা বন্ড’ রিফাত শরীফ হত্যার অন্যতম আসামি এখনও অধরা

মৌলভীবাজারের সাংবাদিক রাধিকা মোহন গোস্বামী স্মৃতিপদক প্রদান

মৌলভীবাজারের সাংবাদিক রাধিকা মোহন গোস্বামী স্মৃতিপদক প্রদান

করোনায় আরো ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১৫৬৭ জন

করোনায় আরো ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১৫৬৭ জন

গৃহকর্মীদের উপর অত্যাচার এ কেমন পাশবিকতা! মোহাম্মদ হেলালুজ্জামান

গৃহকর্মীদের উপর অত্যাচার এ কেমন পাশবিকতা! মোহাম্মদ হেলালুজ্জামান

নদীতে বিলীন হলো মসজিদ

নদীতে বিলীন হলো মসজিদ

আওয়ামী লীগের কেমিস্ট্রি হচ্ছে আমি ছাড়া আর কেউ নেই : মির্জা ফখরুল

আওয়ামী লীগের কেমিস্ট্রি হচ্ছে আমি ছাড়া আর কেউ নেই : মির্জা ফখরুল