Feedback

জাতীয়

ওয়াহিদা খানমের মাথায় অস্ত্রোপচারের সেলাই কাটা হয়েছে

ওয়াহিদা খানমের মাথায় অস্ত্রোপচারের সেলাই কাটা হয়েছে
September 12
01:50pm
2020

আই নিউজ বিডি ডেস্ক Verify Icon
Eye News BD App PlayStore

‘রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের চিকিৎসাধীন দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের মাথায় অস্ত্রোপচারের সেলাই কাটা হয়েছে। তার শরীরের অবশ থাকা ডান পাশেরও উন্নতি হয়েছে। তিনি ডান হাতের কনুই পর্যন্ত তুলতে ও নাড়তে পারছেন তবে, তিনি এখনও ডান পা নাড়াতে পারছেন না। ’ 

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) এসব তথ্য জানিয়েছেন ওই হাসপাতালের নিউরোট্রমা বিভাগের প্রধান ও ওয়াহিদার চিকিৎসায় গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান মোহাম্মদ জাহেদ হোসেন। 

নিউরোট্রমা বিভাগের প্রধান জাহেদ হোসেন বলেন, ইউএনও ওয়াহিদার মাথায় যে অপারেশন করা হয়েছিল, সেখানকার সেলাইগুলো আমরা আজ কেটেছি। অপারেশনের জায়গাগুলো এখন ভালো আছে। 

ওয়াহিদার শারীরিক অবস্থার উন্নতি ধারা অব্যাহত আছে উল্লেখ করে জাহেদ হোসেন বলেন, তার অবশ ডান হাতের কনুই পর্যন্ত অংশের উন্নতি হয়েছে। আরও উন্নতির জন্য এখানে দিনে তিন-চারবার তার ফিজিওথেরাপি চলছে।  ইউএনও চাহিদাকে শঙ্কামুক্ত বলা যায় কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাকে অনেকটা আশঙ্কামুক্ত বলা যায়। তবে হাসপাতালে থাকা রোগীকে আমি ব্যক্তিগতভাবে শঙ্কামুক্ত বলি না। কারণ যেহেতু একটা রোগী হাসপাতালে থাকেন, যেকোনো সময় তার যেকোনো জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। তবে, আমি বলতে পারি তিনি ভালো আছেন। তার স্বাস্থ্যগত আর কোনো জটিলতা নেই। তার শুধু উন্নতির অবশিষ্ট রয়েছে শুধু ডান হাত ও ডান পা। মোটামুটি তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। যেহেতু তার ফিজিওথেরাপি চলছে সেহেতু তাকে আরও কিছুদিন পর্যবেক্ষণে রাখতে হতে পারে। 

তিনি আরও বলেন, আমরা এখনও তার সব ধরনের খাবার অ্যালাও করিনি। তবে তিনি সলিড খাবার খাচ্ছেন। তার ব্লাডপ্রেসার, সেন্স স্বাভাবিক রয়েছে।  ওয়াহিদাকে বেডে স্থানান্তরের বিষয়ে জানতে চাইলে মোহাম্মদ জাহেদ হোসেন বলেন, আমরা এখনও তাকে বেডে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেইনি। আপাতত কেবিনে স্থানান্তর করছি না কারণ তাকে কেবিনে স্থানান্তরের পর অনেক বেশি ভিজিটর এখানে ভিড় করবেন। সেক্ষেত্রে তার ইনফেকশনের শঙ্কা বেড়ে যায়। সেজন্য আমরা তার শারীরিক অবস্থা বুঝে আরও দু-একদিন পরে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো। 

গত ২ সেপ্টেম্বর দিনগত রাতে ইউএনও ওয়াহিদার সরকারি বাসভবনের ভেন্টিলেটর ভেঙে বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা ও তার বাবার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ইউএনওর মাথায় গুরুতর আঘাত এবং তার বাবাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়। 

পরে ইউএনওকে প্রথমে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (রমেক) নিয়ে ভর্তি করা হয়। এরপর তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে তাকে ঢাকায় আনা হয়। তিনি এখন ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

All News Report

সম্পর্কিত সংবাদ

ট্রেন্ডিং

সৌদির ভিসা রিনিউ আবেদনে ১৮ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ

সৌদির ভিসা রিনিউ আবেদনে ১৮ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ

হাবিপ্রবির হিসাব শাখার পরিচালকের রদবদল

হাবিপ্রবির হিসাব শাখার পরিচালকের রদবদল

বিদেশে কাজের ভিসায় জেতে একজন প্রার্থীর করণীয় পদক্ষেপসমূহ

বিদেশে কাজের ভিসায় জেতে একজন প্রার্থীর করণীয় পদক্ষেপসমূহ

শিক্ষক নেতৃত্বের দক্ষতা উন্নয়ন

শিক্ষক নেতৃত্বের দক্ষতা উন্নয়ন

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার

বাংলাদেশের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম কেন? প্রশ্ন আ.লীগ নেতার

একজন আলোকিত মানুষের কথা

একজন আলোকিত মানুষের কথা

জামালপুরে হত্যা মামলায় দুভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড, সাতজনের যাবজ্জীবন

জামালপুরে হত্যা মামলায় দুভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড, সাতজনের যাবজ্জীবন

নারায়ণগঞ্জে ১৪৪ ধারা

নারায়ণগঞ্জে ১৪৪ ধারা

বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শোক প্রকাশ

বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শোক প্রকাশ

ধর্ষণ তো দূরের কথা, আড়চোখে তাকাবে এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই

ধর্ষণ তো দূরের কথা, আড়চোখে তাকাবে এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই

ছেলের জন্মদিনে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

ছেলের জন্মদিনে অপু বিশ্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস

বাড়ছে ছুটির মেয়াদ

বাড়ছে ছুটির মেয়াদ

অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির রায় ১২  অক্টোবর

অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির রায় ১২ অক্টোবর

ধর্ষকের ‘লিঙ্গ’ কেটে নিজের সম্ভ্রম বাঁচালেন গৃহবধূ

ধর্ষকের ‘লিঙ্গ’ কেটে নিজের সম্ভ্রম বাঁচালেন গৃহবধূ

ইডেনের অধ্যক্ষ হত্যা: আসামিরা নিজেদের নির্দোষ বলে অঝরে কাঁদলেন!

ইডেনের অধ্যক্ষ হত্যা: আসামিরা নিজেদের নির্দোষ বলে অঝরে কাঁদলেন!

সর্বশেষ

৩নং খোশবাস ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার জন্মদিন উদযাপন

৩নং খোশবাস ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার জন্মদিন উদযাপন

মা হওয়ার পর প্রথম ভিডিও শেয়ার করলেন কোয়েল মল্লিক, ভিডিও ভাইরাল

মা হওয়ার পর প্রথম ভিডিও শেয়ার করলেন কোয়েল মল্লিক, ভিডিও ভাইরাল

সাংবাদিক নজরুল এর উপর সন্ত্রাসী হামলা

সাংবাদিক নজরুল এর উপর সন্ত্রাসী হামলা

নয় বছরের শিশু ধর্ষিত গ্রেপ্তার ১

নয় বছরের শিশু ধর্ষিত গ্রেপ্তার ১

লাশের পেটে মিললো ৩১ প্যাকেট ইয়াবা

লাশের পেটে মিললো ৩১ প্যাকেট ইয়াবা

জিয়া কে নেতিবাচক উপস্থাপন, মামলা খেলেন তারানা হালিম ও সাজু খাদেম

জিয়া কে নেতিবাচক উপস্থাপন, মামলা খেলেন তারানা হালিম ও সাজু খাদেম

দীপিকা, সারা আলি খান, শ্রদ্ধাদের ক্রেডিট কার্ড বাজেয়াপ্ত করল এনসিবি

দীপিকা, সারা আলি খান, শ্রদ্ধাদের ক্রেডিট কার্ড বাজেয়াপ্ত করল এনসিবি

এইচএসসি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত  আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর

এইচএসসি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর

শেখ হাসিনার হাতেই আগামীর সমৃদ্ধ বাংলাদেশের চাবিকাঠি- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

শেখ হাসিনার হাতেই আগামীর সমৃদ্ধ বাংলাদেশের চাবিকাঠি- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

হাসলে কিন্তু খবর আছে

হাসলে কিন্তু খবর আছে

মৌলভীবাজারে ৭শত ৬০পিছ ইয়াবাসহ একজনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ

মৌলভীবাজারে ৭শত ৬০পিছ ইয়াবাসহ একজনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ

জন্মদিনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নওগাঁ বুড়াকালি মাতার মন্ডপে প্রার্থনা

জন্মদিনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নওগাঁ বুড়াকালি মাতার মন্ডপে প্রার্থনা

এমপি রতন ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব জব্দ

এমপি রতন ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব জব্দ

চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে ভারতীয় দুই নারী আটক

চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে ভারতীয় দুই নারী আটক

ধর্ষক ছেলের বিচার দাবি বাবার

ধর্ষক ছেলের বিচার দাবি বাবার